নবান্ন অভিযানে গিয়ে ফেরেননি পাঁশকুড়ার দীপক, মইদুলের মৃত্যুর খবরে বাড়ল উদ্বেগ

নবান্ন অভিযানে গিয়ে ফেরেননি পাঁশকুড়ার দীপক, মইদুলের মৃত্যুর খবরে বাড়ল উদ্বেগ
নিখোঁজ দীপক পাঁজা৷

নিখোঁজ দীপক পাঁজার স্ত্রী সরস্বতী পাঁজার দাবি, গত বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টা নাগাদ কলকাতা যাওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান দীপক বাবু।

  • Share this:

#পাঁশকুড়া: নবান্ন অভিযানে গিয়ে আহত বাঁকুড়ার ডিওয়াইএফআই কর্মী মইদুল ইসলাম মিদ্দার মৃত্যুর খবরে উদ্বেগ বাড়ল পূর্ব মেদিনীপুরের পাঁশকুড়ার থানার বাহারপোতা গ্রামেও৷ কারণ এই গ্রামেরই বাসিন্দা দীপক পাঁজাও নবান্ন অভিযানে গিয়ে আর বাড়ি ফেরেননি বলে অভিযোগ পরিবারের৷ গত ১১ ফেব্রুয়ারি বাড়ি থেকে বেরনোর পর থেকেই নিখোঁজ দীপক৷ মইদুলের মৃত্যুর পর এখন দীপকও কী অবস্থায় রয়েছেন, তা নিয়ে চূড়ান্ত দুশ্চিন্তায় পরিবার৷

নিখোঁজ দীপক পাঁজার স্ত্রী সরস্বতী পাঁজার দাবি, গত বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টা নাগাদ কলকাতা যাওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান দীপক বাবু। তাঁর সঙ্গে যাঁরা সেদিন কলকাতায় আসেন, তাঁরা সন্ধ্যায় জানান যে দীপকবাবুকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না৷ পরিবারের দাবি, দীপকবাবু খুব বেশি পড়াশোনা জানেন না৷ ফলে পুলিশি জেরায় তিনি বেফাঁস কিছু বলে ফেললে আইনি ঝামেলায় জড়িয়ে পড়তে পারেন বলেও আশঙ্কায় পরিবার৷ ফলে, পুলিশই যাতে তাঁর স্বামীকে যাতে খুঁজে দেন, সেই দাবি জানিয়েছেন নিখোঁজের স্ত্রী৷ পরিবারের তরফে পাঁশকুড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে৷


স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, দীপকবাবু আগে ডিওয়াইএফআই-এর সঙ্গে যুক্ত ছিলেন৷ তার পর বাম কর্মী হিসেবেই এলাকায় পরিচিত ছিলেন৷ এ দিন সকালে নিখোঁজ দীপক পাঁজার বাড়িতে যান পাঁশকুড়ার সিপিএম বিধায়ক ইব্রাহিম আলি৷ তিনি জানিয়েছেন, হাওড়ার দিক থেকে বামেদের মিছিলে যোগ দিয়েছিলেন দীপক৷ তাঁর নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় পুলিশ- প্রশাসনকেই দায়ী করেছেন সিপিএম বিধায়ক৷ ইতিমধ্যেই দলের তরফে হাওড়ার শিবপুর থানা এবং নিউ মার্কেট থানায় যোগাযোগ করা হয়েছে৷ সিপিএম বিধায়কের আরও দাবি, গোটা রাজ্যের আরও দু' একজন বাম কর্মী নবান্ন অভিযানে গিয়ে নিখোঁজ হয়েছেন৷

Sujit Bhowmik
Published by:Debamoy Ghosh
First published: