• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • রাজ আমলের প্রথা মেনে কুমারী পুজো হল বর্ধমানের সর্বমঙ্গলা মন্দিরে

রাজ আমলের প্রথা মেনে কুমারী পুজো হল বর্ধমানের সর্বমঙ্গলা মন্দিরে

গত ২২ অক্টোবর অ্যামাজন প্রাইম-এ রিলিজ করেছে বহু প্রতীক্ষীত মির্জাপুরের দ্বিতীয় সিজন৷ আদতে ২৩ অক্টোবর মুক্তির কথা থাকলেও তার কয়েকঘণ্টা আগেই ২২ তারিখ রিলিজ করে এই ওয়েব সিরিজ৷ সিজন টু-তে দশটি এপিসোড রয়েছে৷ এখনও পর্যন্ত মির্জাপুর সিজন টু-এর প্রশংসাই করেছে দর্শক৷

গত ২২ অক্টোবর অ্যামাজন প্রাইম-এ রিলিজ করেছে বহু প্রতীক্ষীত মির্জাপুরের দ্বিতীয় সিজন৷ আদতে ২৩ অক্টোবর মুক্তির কথা থাকলেও তার কয়েকঘণ্টা আগেই ২২ তারিখ রিলিজ করে এই ওয়েব সিরিজ৷ সিজন টু-তে দশটি এপিসোড রয়েছে৷ এখনও পর্যন্ত মির্জাপুর সিজন টু-এর প্রশংসাই করেছে দর্শক৷

রীতি মেনে ৯ কুমারীকে দেবীর সাজে সাজিয়ে পুজো করা হয় সর্বমঙ্গলা মন্দিরে। তবে এবার সেই রীতিতে কিছুটা কাটছাঁট হল। ভিড় এড়াতে শেষ মুহূর্তে ৯ জন কুমারীর বদলে একজন কুমারীকে এদিন দেবীর আসনে বসিয়ে পুজো করা হয়।

  • Share this:

#বর্ধমান: রাজ আমলের প্রথা মেনে মহানবমীতে কুমারী পুজো হল বর্ধমানের সর্বমঙ্গলা মন্দিরে। তবে করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে সামাজিক দূরত্ব মেনেই সেই পুজোর আয়োজন করেছিল মন্দির কর্তৃপক্ষ। করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় রাজ্যের কিছু জায়গায় এবার কুমারী পূজা স্থগিত রাখা হয়েছে। তবে বর্ধমানের অধিষ্ঠাত্রী দেবী সর্বমঙ্গলা মন্দিরে সেই পুজো চাক্ষুষ করলেন দর্শনার্থীরা।

মহা নবমীর সকালে নব কুমারী পুজো বর্ধমান সর্বমঙ্গলা মন্দির অন্যতম প্রথা। রাজ আমল থেকেই সেই প্রথা চলে আসছে। রীতি মেনে ৯ কুমারীকে দেবীর সাজে সাজিয়ে পুজো করা হয় সর্বমঙ্গলা মন্দিরে। তবে এবার সেই রীতিতে কিছুটা কাটছাঁট হল। ভিড় এড়াতে শেষ মুহূর্তে ৯ জন কুমারীর বদলে একজন কুমারীকে এদিন দেবীর আসনে বসিয়ে পুজো করা হয়। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে যাতে সেই কুমারী পূজা দেখতে পারেন দর্শনার্থীরা তার ব্যবস্থা ছিল।

কুমারী পূজা দেখতে বর্ধমানের সর্বমঙ্গলা মন্দিরে অগণিত ভক্ত ভিড় করেন। তাদের মধ্য দিয়ে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার একটা আশঙ্কা করা হচ্ছিল। তাই এবার কুমারীপূজা হবে কিনা তা নিয়ে কৌতূহল ছিল বর্ধমানের বাসিন্দাদের মধ্যে। সেই সংশয়ের অবসান ঘটিয়ে কুমারী পূজা হল সর্বমঙ্গলা মন্দিরে। বর্ধমানের বাসিন্দা আদিয়া মুখোপাধ্যায়কে দেবীর আসনে বসিয়়ে পুজো করা হয়।

বর্ধমান সর্বমঙ্গলা মন্দির ট্রাস্টি বোর্ডের পক্ষে সঞ্জয় ঘোষ বলেন, করোনা পরিস্থিতির মধ্যে মন্দিরে বেশ কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। সবাই যাতে মাস্ক পরে মন্দিরে ঢোকেন তা নিশ্চিত করা হচ্ছে। রয়েছে স্যানিটাইজার টানেল। পাশাপাশি ভিড় এড়িয়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে দর্শনার্থীরা যাতে পুজো দিতে পারেন তা নিশ্চিত করতে অতিরিক্ত স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করা হয়েছে। কোভিড বিধি মেনেই এবার নবকুমারীর জায়গায় একজন কুমারীকে পূজা করা হল। আগে একসঙ্গে ন’জন কুমারীকে দেবীর আসনে বসিয়ে পুজো করা হতো। সকলের সুস্হতার কথা ভেবেই শেষ মুহূর্তে সিদ্ধান্ত বদল করা হয়েছে।

Saradindu Ghosh

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: