আকাশমণির জঙ্গলের ভিতরেই জেগে থাকে শিশুদের খোয়াব গাঁ

আকাশমণির জঙ্গলের ভিতরেই জেগে থাকে শিশুদের খোয়াব গাঁ

মাছ ধরে, কাজুবাদাম সংগ্রহ করে গ্রামের পেট চলে। সহজ সরল আন্তরিক জীবন।

  • Share this:

#ঝাড়গ্রাম: সব গ্রামে রূপকথা থাকে না। শিশুরা স্বপ্ন আঁকলে রূপকথা হয়। গ্রাম হয়ে ওঠে ক্যানভাস। ঝাড়গ্রামে কাজুবাদাম আর আকাশমণির জঙ্গলের ভিতরে স্বপ্নের গ্রাম খোয়াব গাঁ।

কারা যেন বলে, স্বপ্ন সাদা কালো হয়। কিন্তু লালবাজারে স্বপ্নগুলো সব রংচঙে। লালবাজারও স্বপ্ন দেখায়। না, কলকাতার বাঘা পুলিশ অফিসারদের সেই বাড়িটা নয়। এ লালবাজার ঝাড়গ্রামে। এই লালবাজার কাজু আর আকাশমণির নিবিড় জঙ্গলে। তাই সাহিত্যিক শিবাজি বন্দ্যোপাধ্যায় লালবাজারের নাম দিয়েছেন খোয়াব গাঁ।

মাটির দেওয়াল, খড়, টালির ছাদ। লোধা-শবরদের হাসি হাসি মুখ। এরকম ছাপোষা গ্রাম কত আছে। তবে খোয়াব গাঁ পট আর আলপনার ক্যানভাসে রূপকথার বই। দেওয়ালে দেওয়ালে পুরান...যাপন..জীবনকথা... রূপকথার তুলি শিশুদের হাতে।

ঝাড়গ্রাম পুলিশ লাইনের মেন রোড ছেড়ে ক্যানেলপাড়ের রাস্তা দিয়ে সোজা জঙ্গল। পায়ে পায়ে শালপাতা। রাস্তা শেষে খোয়াব গাঁ। মাত্র ১৩ লোধা শবর পরিবার থাকে। শিশুরা পড়াশোনা করে। আর ছবি আঁকে গ্রামজুড়ে। কলকাতা থেকে কয়েকজন শিল্পী গিয়ে তৈরি করেছেন চালচিত্র অ্যাকাডেমি। তাঁদের হাত ধরেই জঙ্গলমহলের সবুজ ছায়ায় রংবেরঙের মন কেমন।

বাঁশ-কাঠের তৈরি ময়ূর, গনেশের মুখ, কাঁকড়া বিছে। এগুলোর নাম কাটুম কুটুম। শিশুরাই বানায়। ছোটগ্রামকে ওপেন স্টুডিও করার পরিকল্পনা চালচিত্র অ্যাকাডেমির। তাতে এলাকার অর্থনৈতিক লাভ। লাভ পর্যটনেও।

রূপকথার চরিত্ররা বলছে, এই বেশ ভাল আছি।

মাছ ধরে, কাজুবাদাম সংগ্রহ করে গ্রামের পেট চলে। সহজ সরল আন্তরিক জীবন। খোয়াব গাঁ স্বপ্ন দেখতে দেঁখতে এঁকে রাখে... তৈরি করে খোয়াবনামা..

First published: 07:51:12 PM Aug 27, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर