Home /News /south-bengal /
Kharagpur Vaccination Fraud: কসবার পর আজ খড়গপুর! ভ্যাকসিন প্রতারণার শিকার সাধারণ মানুষ

Kharagpur Vaccination Fraud: কসবার পর আজ খড়গপুর! ভ্যাকসিন প্রতারণার শিকার সাধারণ মানুষ

কসবার টিকা জালিয়াতির নায়ক ভুয়ো IAS দেবাঞ্জন দেবকে নিয়ে যখন তোলপাড় রাজ্য, সেই মুহূর্তে ফের প্রকাশ্যে ভ্যাকসিন প্রতারণার খবর।

  • Share this:

    #খড়গপুর: কসবার টিকা জালিয়াতির নায়ক ভুয়ো IAS দেবাঞ্জন দেবকে নিয়ে যখন তোলপাড় রাজ্য, সেই মুহূর্তে ফের প্রকাশ্যে ভ্যাকসিন প্রতারণার খবর। এ বারে প্রতারণার শিকার খড়গপুরের সাধারণ মানুষ। ইতিমধ্যেই প্রতারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তবে এ ক্ষেত্রে ভুয়ো টিকা দেওয়ার অভিযোগ নয়, উলটে টিকা দেওয়ার নামে টাকা তোলার অভিযোগ।

    পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ভ্যাকসিন দেওয়ার নামে টাকা তোলার অভিযোগ উঠেছে খড়গপুরের একটি বেসরকারি সংস্থার কর্ণধারের বিরুদ্ধে। অভিযোগ,  টিকা দেওয়ার আগেই উপভোক্তাদের কাছ থেকে টাকা তুলছিলেন তিনি। টিকার দেওয়ার জন্য আগাম ১১৫০ টাকা করে নেওয়া হচ্ছিল। ঘটনার খবর জানাজানি হতেই ওই  ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান চালান স্বাস্থ্য দফতরের আধিকারিকরা। গ্রেফতার করা হয় ডায়াগনস্টিক সেন্টারের অন্যতম কর্ণধারকে। এ ছাড়াও চক্রের সঙ্গে যুক্ত আরও ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

    প্রসঙ্গত, রাজ্যে করোনা টিকার দাম ইতিমধ্যেই বেঁধে দিয়েছে রাজ্য সরকার। কোভিশিল্ড, কোভ্যাকসিন এবং স্পুটনিক ভি-র জন্য আলাদা আলাদা দাম ধার্য হয়েছে।  তবে খড়গপুরের ডায়াগনস্টিক সেন্টার থেকে যে টাকা জমা নেওয়া হছছি, রাজ্যের বেঁধে দেওয়া কোনও টিকার দামই তার সমতুল্য নয়। ফলে কেন ১১৫০ টাকা নেওয়া হচ্ছিল? কোভিশিল্ড, কোভ্যাকসিন নাকি স্পুটনিক ভি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল টিকা প্রার্থীদের? টাকা ন্যে কোনও নথি দেওয়া হচ্ছিল কিনা? কতদিন ধরে এ ভাবে টাকা তোলা হচ্ছিল? সবই খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারী আধিকারিকরা।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published:

    Tags: Corona Vaccine, Kharagpur

    পরবর্তী খবর