• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • পুজোর আগেই ফিরতে পারে হাল, বেহাল বর্ধমান কাটোয়া রোড সংস্কারে তৎপর জেলা প্রশাসন 

পুজোর আগেই ফিরতে পারে হাল, বেহাল বর্ধমান কাটোয়া রোড সংস্কারে তৎপর জেলা প্রশাসন 

আগে যে ঠিকাদার সংস্থা এই রাস্তা সংস্কারের বরাত পেয়েছিল তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। নতুন ঠিকাদার সংস্থা এই রাস্তা সংস্কার করবে। সেজন্য টেন্ডার প্রক্রিয়া চলছে

আগে যে ঠিকাদার সংস্থা এই রাস্তা সংস্কারের বরাত পেয়েছিল তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। নতুন ঠিকাদার সংস্থা এই রাস্তা সংস্কার করবে। সেজন্য টেন্ডার প্রক্রিয়া চলছে

আগে যে ঠিকাদার সংস্থা এই রাস্তা সংস্কারের বরাত পেয়েছিল তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। নতুন ঠিকাদার সংস্থা এই রাস্তা সংস্কার করবে। সেজন্য টেন্ডার প্রক্রিয়া চলছে

  • Share this:

Saradindu Ghosh

#বর্ধমান: দ্রুত টেন্ডার ডেকে বর্ধমান কাটোয়া রোড সংস্কারের উদ্যোগ নিল পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন। ইতিমধ্যেই সংশ্লিষ্ট দফতরের আধিকারিকরা ওই রাস্তা পরিদর্শন করেছেন। এই গুরুত্বপূর্ণ রাস্তার বেহাল অংশ সংস্কারের জন্য টেন্ডার ডাকার প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গিয়েছে বলে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে। পুজোর আগেই এই রাস্তা সংস্কারের লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে বলে প্রশাসনিক সূত্রে জানা গিয়েছে।

বর্ধমান কাটোয়া রাজ্য সড়কের দৈর্ঘ্য ৬০ কিলোমিটার। তার মধ্যে বর্ধমান শহরে ঢোকার মুখ থেকে দেওয়ানদিঘি পর্যন্ত রাস্তার অবস্থা খুবই খারাপ। বাসিন্দাদের অভিযোগ, বর্ধমানের রেল উড়ালপুলে ওঠার মুখ থেকে দেওয়ানদিঘি পর্যন্ত রাস্তায় অজস্র খানাখন্দের মিছিল। ছোট বড় গর্ত গোটা রাস্তা জুড়ে। বৃষ্টি পড়লে সেই রাস্তায় জল দাঁড়িয়ে থাকছে। তাতে কোথায় কত গভীর গর্ত রয়েছে তা বোঝা যাচ্ছে না। বেহাল রাস্তার কারণে দুর্ঘটনা লেগেই রয়েছে। গাড়ি যন্ত্রাংশ ভেঙে রাস্তাতেই পড়ে থাকছে। তার জেরে তৈরি হচ্ছে যানজট।

এই রাস্তা ব্যবহারকারীরা বলছেন, আট মাসেরও বেশি সময় ধরে এই রাস্তা খারাপ হয়ে রয়েছে। কাটোয়া, কেতুগ্রাম, মঙ্গলকোট থেকে শুরু করে জেলার একটা বড় অংশ, পাশের জেলা মুর্শিদাবাদ থেকেও বহু সংকটাপন্ন রোগী এই রাস্তা দিয়েই বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যায়। অনেক সময় এই বেহাল রাস্তায় অ্যাম্বুলান্সে থাকা রোগীর প্রাণান্তকর অবস্থা হয়। বাসিন্দারা বলছেন, ছোট বড় দুর্ঘটনা লেগেই রয়েছে। গত সাত দিনে দু’বার এই রাস্তা সারাইয়ের দাবিতে অবরোধ বিক্ষোভ শামিল হয়েছিলেন এলাকার বাসিন্দারা।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, আগে যে ঠিকাদার সংস্থা এই রাস্তা সংস্কারের বরাত পেয়েছিল তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। নতুন ঠিকাদার সংস্থা এই রাস্তা সংস্কার করবে। সেজন্য টেন্ডার প্রক্রিয়া চলছে। শীঘ্রই রাস্তা সংস্কারের কাজ শুরু হবে। পুজোর আগেই যাতে বর্ধমান থেকে বাজেপ্রতাপপুর, হটু দেওয়ান, বিজয়রাম হয়ে দেওয়ানদিঘি পর্যন্ত রাস্তা সংস্কার করা যায় সেই চেষ্টায় চালানোো হচ্ছে।

Published by:Simli Raha
First published: