• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • KATOA FERRYGHAT IN DILAPITATED SITUATION NO SIGN OF RENNOVATION PEOPLE ARE TRAVELLING TAKING RISK OF THEIR LIVES

কাটোয়ায় ভাঙা ফেরিঘাট, সংস্কার হয়নি! ভাঙাচোরা ফেরিপথে প্রাণ হাতে করে চলছে নিত্য যাতায়াত

katwa ferryghat

কাটোয়ায় ভাঙা ফেরিঘাট, সংস্কার হয়নি! ভাঙাচোরা ফেরিপথে প্রাণ হাতে করে চলছে নিত্য যাতায়াত

  • Share this:

    #কাটোয়া: এক বছর আগেই অজয়ের তোড়ে ভেসে গিয়েছে ফেরিঘাট। সংস্কার হয়নি। তৈরি হয়নি নতুন ফেরিঘাটও। ভাঙাচোরা ফেরিপথেই প্রাণ হাতে করে চলছে নিত্য যাতায়াত। বাঁশ ও বলগা দিয়ে কোনওরকমে ভাঙন আটকে কাটোয়া-শাঁখাই ফেরিঘাটে চলছে বিপজ্জনক ফেরি চলাচল।

    স্থায়ী ফেরিঘাট নেই। ছিল। একটা সময়ে। ২০১৭-র ২৪ জুলাই অজয় নদের তোড়ে ভেঙে যায় কংক্রিটের সেই ফেরিঘাট। কিছুটা ভেসে চলে যায়। বাকিটা ভাঙাচোরা। প্রতিটি ইঞ্চিতে ঘাপটি মেরে আছে বিপদ। প্রাণ হাতে করে সেই পথেই চলছে যাতায়াত। কাটোয়ার শাঁখাই ফেরিঘাটে বিপদই সঙ্গী নিত্যযাত্রীদের। মানুষ তো বটেই , বাইক, সাইকেল এমনকী টোটোও পার হচ্ছে এই পথে।

    অজয় ও ভাগীরথীর সঙ্গমস্থলে শাঁখাই ফেরিঘাট। এটাই কাটোয়ার সঙ্গে কেতুগ্রাম দু নম্বর ব্লক , নদিয়া ও মুর্শিদাবাদের যোগাযোগকারী মূল ফেরি পথ। কাটোয়ার হাসপাতাল, স্কুল, কলেজ, বাজারে যেতে প্রতিদিন এই ফেরিপথই ভরসা আশপাশের এলাকার মানুষের। তাঁদের আশঙ্কা, এই পথে যে কোনও সময়ে ঘটে যেতে পারে দুর্ঘটনা। প্রশাসনকে জানিয়েও ফল হয়নি।

    বর্ষায় অজয়ের জল বাড়লে হয়ত বন্ধ হয়ে যাবে এই পথটুকুও। আশঙ্কায় নিত্যযাত্রীরা। তবে, স্থায়ী ফেরিঘাট তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে জেলা প্রশাসনের । আপাতত ভাঙন আটকাতে অজয়ের পাড়ে করা হবে পাইলিং। পয়ত্রিশ লক্ষ টাকা অনুমোদন করেছে রাজ্য সরকার। পুরো কাজ শেষ হতে সময় লাগবে তিন মাস। ফলে এবার বর্ষায় শাঁখাই ফেরিপথ আরও দুঃসহ হয়ে উঠার আশঙ্কায় নিত্যযাত্রীরা।

    আরও পড়ুন-চাঁদমারী রেলগেটের 'বেয়াদপি'তে নাজেহাল রামপুরহাটের বাসিন্দারা
    First published: