corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা হাসপাতাল হওয়ার ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে পড়াশোনা, প্রতিবাদে কর্মবিরতি জুনিয়ার ডাক্তার-ছাত্রছাত্রীদের

করোনা হাসপাতাল হওয়ার ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে পড়াশোনা, প্রতিবাদে কর্মবিরতি জুনিয়ার ডাক্তার-ছাত্রছাত্রীদের

প্রতিবাদ করে কর্মবিরতি শুরু করে সাগর দত্ত মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ইন্টার্ন তথা জুনিয়ার ডাক্তার এবং ছাত্রছাত্রীদের একটি বড় অংশ।

  • Share this:

#কামারহাটি: উত্তর কলকাতার শহরতলী বরানগর, দক্ষিণেশ্বর,বেলঘরিয়া,আগারপারা, সোদপুর, খরদহ, টিটাগর থেকে শুরু করে ব্যারাকপুর, মধ্যমগ্রাম,নিউ ব্যারাকপুর,বারাসাত তথা উত্তর ২৪ পরগনার বিস্তীর্ণ অংশের মানুষের অন্যতম চিকিৎসাকেন্দ্র হিসাবে কামারহাটি সাগর দত্ত মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ স্থান অধিকার করে আছে। আর বুধবার সকাল থেকেই এই হাসপাতাল প্রায় স্তব্ধ। করোনা হাসপাতাল হওয়ার ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে পড়াশোনা। তার প্রতিবাদ করে কর্মবিরতি শুরু করে সাগর দত্ত মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ইন্টার্ন তথা জুনিয়ার ডাক্তার এবং ছাত্রছাত্রীদের একটি বড় অংশ। গত শনিবার রাজ্য সরকার কামারহাটি কলেজ অব মেডিসিন এবং সাগর দত্ত হাসপাতালকে অন্যতম কোভিড হাসপাতাল হিসাবে ঘোষণা করে। এই হাসপাতালে ৫০০ বেডের করোনা আক্রান্ত মানুষের চিকিৎসা হবে বলে জানানো হয় গত সোমবার থেকে কোভিড হাসপাতাল হিসেবে প্রাথমিক ভাবে কাজও শুরু হয়। বিভিন্ন বিভাগে রোগী ভর্তি নিয়ন্ত্রিত করা হয়।আগের থেকে রোগী ভর্তি এক ধাক্কায় অনেকটাই কমিয়ে দেওয়া হয়। কভিড বা করোনা হাসপাতাল হিসাবে ঘোষণা করার পর থেকেই স্থানীয় বাসিন্দারা প্রথম বিক্ষোভ দেখানো শুরু করে। পাশাপাশি হাসপাতালের জুনিয়ার ডাক্তার থেকে মেডিক্যাল ছাত্রছাত্রীরাও ক্ষোভ ফুঁসছিল। করোনা হাসপাতাল হলে এখানে অন্য কোনো রোগী ভর্তি হতে পারবে না,তারসঙ্গে গোটা হাসপাতালে একটি বিল্ডিং হওয়ায় অন্য রোগী না থাকায় চিকিৎসা করার কোনো সুযোগ পাবে না ইন্টার্ন বা জুনিয়ার ডাক্তাররা। এমনকি ছাত্রছাত্রীদের প্র্যাক্টিক্যাল পড়াশোনা অনেকটাই বাধাপ্রাপ্ত হবে বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত রোগী না আসার কারণে। তাছাড়া আশপাশের হাজার হাজার রোগী বঞ্চিত হবে চিকিৎসা পরিষেবা না পেয়ে করোনা হাসপাতাল হলে। এর প্রতিবাদে বুধবার সকলের পর  হঠাৎই হাসপাতালের একশোরও বেশি ইন্টার্ন এবং তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষের ছাত্রছাত্রীরা কর্মবিরতি শুরু করেন। সব মিলিয়ে প্রায় ৬০০ জন। তাঁরা একগুচ্ছ দাবি পেশ করে কলেজ কর্তৃপক্ষ এবং রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের কাছে। তার মধ্যে অন্যতম হল কোভিড হাসপাতাল ঘোষণার সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ। বুধবার ইন্টার্নদের একাংশ জানিয়েছেন, কোভিড হাসপাতালে পরিণত হওয়ায়, সাগর দত্ত হাসপাতালে সাধারণ রোগীদের চিকিৎসা বন্ধ থাকবে। ফলে অস্ত্রোপচার থেকে শুরু করে ছাত্রদের যে চিকিৎসা সংক্রান্ত ক্লাস (ক্লিনিকাল ক্লাস) হয় তা বন্ধ থাকবে। ফলে তাঁদের পড়াশোনা ব্যাপক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গেছে,সাগর দত্ত মেডিক্যাল কলেজ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে ইতিমধ্যেই ওই ইন্টার্ন এবং ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে। তাঁদের বোঝানোর চেষ্টা চলছে। স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিকর্তা স্বয়ং বিষয়টি খোঁজ নিয়েছেন। দ্রুত এই কর্মববিরতি তুলে নেবেন ইন্টার্ন এবং ছাত্রছাত্রীরা এ ব্যাপারে আশাবাদী স্বাস্থ্য দফতর।

Published by: Akash Misra
First published: June 10, 2020, 11:51 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर