Home /News /south-bengal /

Purba Bardhaman News: সংক্রমণ বাড়তেই ভেন্টিলেটর, পেশেন্ট মনিটর বসানোর তৎপরতা কালনা হাসপাতালে

Purba Bardhaman News: সংক্রমণ বাড়তেই ভেন্টিলেটর, পেশেন্ট মনিটর বসানোর তৎপরতা কালনা হাসপাতালে

Kalna super speciality Hospital is getting prepared more ventiletor as Covid 19 cases increase

Kalna super speciality Hospital is getting prepared more ventiletor as Covid 19 cases increase

Purba Bardhaman News: করোনার (Coronavirus) সংক্রমণ ফের ব্যাপক আকার নেওয়ার আশঙ্কা দেখা দেওয়ায় তড়িঘড়ি কালনা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের (Kalna super speciality Hospital) পরিকাঠামো বাড়ানোর উদ্যোগ নেওয়া হল।

  • Share this:

#পূর্ব বর্ধমান: করোনার (Coronavirus) সংক্রমণ ফের ব্যাপক আকার নেওয়ার আশঙ্কা দেখা দেওয়ায় তড়িঘড়ি কালনা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের (Kalna super speciality Hospital) পরিকাঠামো বাড়ানোর উদ্যোগ নেওয়া হল। এই হাসপাতালে করোনা(Covid 19) রোগীদের চিকিৎসার জন্য পাঁচটি ভেন্টিলেটর এবং ১৬ টি পেশেন্ট মনিটর বসানো হচ্ছে। এ ব্যাপারে শনিবার হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে স্বাস্থ্য দফতর ও জেলা প্রশাসনের আধিকারিকদের মধ্যে বিস্তারিত বৈঠক হয়েছে।

কালনা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল (Kalna super speciality Hospital) সূত্রে জানা গিয়েছে, করোনা (Coronavirus) রোগীদের চিকিৎসার জন্য এই হাসপাতালে 90 টি বেড রয়েছে। তার মধ্যে অর্ধেক অর্থাৎ 45 টি বেড প্রথম দফায় চালু করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। করোনার (Coronavirus) সংক্রমণ কমে যাওয়ায়  এই বেডগুলি সেভাবে ব্যবহার হচ্ছিল না। কিন্তু করোনা (Covid 19) সংক্রমণ ফের বাড়ার আশংকা দেখা দেওয়ায় এই হাসপাতালে করোনার চিকিৎসার পরিকাঠামো উন্নয়নে বিশেষ জোর দেওয়া হচ্ছে।

আরও পড়ুন - Purba Bardhaman News: পিকনিকে বচসার জের, গুলি বোমায় কেঁপে উঠলো এলাকা, কোথায়

জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, করোনা (Covid 19) রোগীদের চিকিৎসার জন্য এই হাসপাতালে হাই ডিপেন্ডেন্সি ইউনিট অর্থাৎ এইচ ডি ইউ তে দশটি বেড ও ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিট সিসিইউ'তে ৬টি বেডের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।হাসপাতালের এক চিকিৎসক জানান, করোনা সংক্রমণের কারণে অনেক রোগীর শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়। শরীরের অক্সিজেনের লেভেলও কমতে থাকে। সেই সব রোগীর জন্য ভেন্টিলেটর প্রয়োজন হয়। এতদিন এই হাসপাতলে সেই ভেন্টিলেটর ছিল না। ফলে গুরুতর অসুস্থ বা শ্বাসকষ্ট হতে থাকা রোগীদের অন্যত্র রেফার করতে হতো। ওই অবস্থায় রোগীকে রেফার করলে মৃত্যুর ঝুঁকি অনেকটাই বেড়ে যায়। সেসব বিষয় মাথায় রেখেই এই হাসপাতালের পাঁচটি ভেন্টিলেটরের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। পেসেন্ট মনিটর নিয়মিত রোগীর দেহে বিভিন্ন সূচক পরিমাপের সাহায্য করবে। ইতিমধ্যেই কালনা হাসপাতালে এক হাজার লিটার অক্সিজেন তৈরির ইউনিট কাজ শুরু করেছে।

আরও পড়ুন - Delhi police injured: কুখ্যাত মাদক চোরাচালানকারীকে ধরতে গিয়ে আক্রান্ত পুলিশ

জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, অতীতে বর্ধমান শহরের পাশাপাশি কালনা মহকুমায় করোন সংক্রমণ ব্যাপক আকার ধারণ করেছিল। এর পাশাপাশি আশপাশের এলাকা এবং পাশের জেলা নদিয়ার একটা বড় অংশের বাসিন্দারা কালনা মহকুমা হাসপাতালের ওপর নির্ভরশীল। সেসব বিষয় চিন্তা করেই কালনা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে (Kalna super speciality Hospital) পরিকাঠামো বাড়ানোর ওপর জোর দেওয়া হয়েছে।

 Saradindu Ghosh

Published by:Debalina Datta
First published:

Tags: Coronavirus, Kalna, Purba bardhaman

পরবর্তী খবর