বন্ধ হয়ে গিয়েছে নরবলি, তবে আজও ধূমধাম করে পুজো হয় রঘু ডাকাতের আরাধ্যা কালীর

চারদিকে জঙ্গল, নদী নালায় ভরে আছে ছোট্ট এলাকা। তার মধ্যে এক ফালি জায়গায় অট্টহাস সতীপীঠের মন্দির।

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Oct 25, 2019 04:54 PM IST
বন্ধ হয়ে গিয়েছে নরবলি, তবে আজও ধূমধাম করে পুজো হয় রঘু ডাকাতের আরাধ্যা কালীর
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Oct 25, 2019 04:54 PM IST

#বর্ধমান: আজও ধূমধাম করে পুজো হয় রঘু ডাকাতের আরাধ্যা কালীর। কাটোয়ার কেতুগ্রামের অট্টহাসের সতীপীঠে রঘু ডাকাতের পুজোয় নতুন করে প্রতিমা আনা হয় না। পুরোন মূর্তিতেই পুজো হয় প্রতিবছর।

চারদিকে জঙ্গল, নদী নালায় ভরে আছে ছোট্ট এলাকা। তার মধ্যে এক ফালি জায়গায় অট্টহাস সতীপীঠের মন্দির। ইতিহাস বলে, প্রায় ২০০ বছর আগে, এলাকায় ত্রাস জাগানো রঘু ডাকাত এই মন্দিরেই পুজো দিয়ে ডাকাতি করতে বেরোতেন। রঘুর এলাকা ছিল বীরভূম, মুর্শিদাবাদ ও বর্ধমানে ৷

অট্টহাস মূলত সতীপীঠ। বলা হয়, এখানে দেবীর অধোওষ্ঠ পড়েছিল। এই মন্দিরের বিশেষত্ব হল, এখানে কালী পুজোর সময়, নতুন কোনও মূর্তি নয়, পুরনো পাথরের মূর্তিতেই পুজো হয়। জনশ্রুতি, একসময় অট্টহাসের কালী মন্দিরে নরবলির রেওয়াজ ছিল। যদিও পরে তা সম্পূর্ণ ভাবে বন্ধ হয়ে যায়। মন্দির চত্বরে অবশ্য এখনও দেখা যায় হাড়িকাঠ।

মহাভোগ যোগে কালী মন্ত্রে পুজিত হন এখানকার দেবী। রঘু ডাকাতের নামে এই মন্দিরের নাম। কয়েকবছর আগেও নাকি দক্ষিণবঙ্গের কিছু ডাকাতদল অট্টহাসের ঘন জঙ্গলে আরাধ্যা দেবী মা কালীর পুজো দিত।

অট্টহাসের প্রায় তিরিশ একর ঘনজঙ্গলের মধ্যে থাকা রটন্তী কালীর প্রস্তর মূর্তিকে ঘিরে আজও ভক্তেরা মহাসমারোহে কালীর আরাধনা করেন। তবে কার্তিক অমাবস্যায় এই রটন্তী কালীর পুজো হয় না। অট্টহাসের কালী পুজোয় স্থানীয় বাসিন্দা থেকে প্রশাসনের সকলেই অংশ নেয়।

Loading...

রঘু ডাকাত আজ আর নেই। গল্পে সিনেমায় ঘুরে ফিরে আসে তার বিভিন্ন গল্প। কিন্তু অট্টহাসের রঘুর আরাধ্যা মা কালীর পুজোর জৌলুস কমেনি আজও।

First published: 04:54:00 PM Oct 25, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर