Home /News /south-bengal /
Latest Bangla News|| ৪০,০০০ টাকায় মিলবে দ্বিগুণ-তিনগুণ অঙ্কের ইমারতি দ্রব্য! কোটি কোটির প্রতারণায় হতবাক পুলিশ!

Latest Bangla News|| ৪০,০০০ টাকায় মিলবে দ্বিগুণ-তিনগুণ অঙ্কের ইমারতি দ্রব্য! কোটি কোটির প্রতারণায় হতবাক পুলিশ!

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

Kakdwip Fraud Case Man cheated over Crore Rupees: কাকদ্বীপ মহকুমা এলাকায় গত কয়েকটি ঝড়ে কাঁচা ঘরবাড়ি একেবারে ভেঙে গেছিল। সেই ক্ষতিগ্রস্থ মানুষেরা, অল্প টাকায় তিন গুণ দামে পাকা বাড়ি বানানোর মালপত্র পাওয়ার টোপ পেয়ে, নিঃস্ব প্রচুর মানুষ।

আরও পড়ুন...
  • Share this:

#কাকদ্বীপ: কোটি কোটি টাকা প্রতারণার অভিযোগে, দক্ষিণ ২৪ পরগনার কাকদ্বীপের হারুডপয়েন্ট কোস্টাল থানার কাশীনগরের বাসিন্দা অরিন্দম পণ্ডাকে গ্রেফতার করল পুলিশ। মাসকয়েক ধরে ফেরার ছিলেন অরিন্দম।শুক্রবার সন্ধ্যায় হায়দরাবাদ থেকে কলকাতা বিমানবন্দরে নামার পরই ধরা পড়ে যায় সুন্দরবন পুলিশের জালে। ধৃতের বিরুদ্ধে প্রতারণা, ষড়যন্ত্র-সহ একাধিক ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ। ধৃতকে আদালতে পেশ করা হলে ১০ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেয়।

২০১৯ সালের মাঝামাঝি স্বনির্ভর গোষ্ঠীর নাম করে একটি এনজিও প্রতিষ্ঠা করেন অরিন্দম। কাকদ্বীপে ঝাঁ চকচকে অফিসও তৈরি হয়। প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে প্রচার করা হয়, বাড়ি তৈরীর জন্য সস্তায় ইমারতী দ্রব্য দেওয়া হবে। এককালীন চল্লিশ হাজার টাকা জমা করলে দ্বিগুন অর্থের অর্থাৎ আশি হাজার টাকার ইমারতী দ্রব্য দেওয়া হবে উপভোক্তাকে। প্রথমে কয়েকজনকে এই সুবিধা পাইয়েও দেন। ক্রমে এলাকায় চাউর হয়ে যায় এমন আর্থিক সুবিধার গল্প। রীতিমত এজেন্ট রেখে সুন্দরবন এলাকার মানুষদের থেকে মোটা টাকা তোলা শুরু করেন ওই প্রতারক।

আরও পড়ুন: সিঙারায় মজে বাবুল! বাবার 'জিন্দাবাদ' কেমন চলছে, খোঁজ নিল কন্যা

চিটফান্ডের আদলে পুরো বিষয়টি চলতে থাকে। ২০২১ সালের পর থেকে প্রতারণা প্রকাশ্যে আসতে শুরু করে। গা ঢাকা দেন প্রতারক অরিন্দম। বন্ধ হয়ে যায় অফিস। ততদিনে এলাকা থেকে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করে ফেলেছেন অরিন্দম। কাকদ্বীপ ও হারুডপয়েন্ট কোস্টাল থানায় পৃথক ৭টি অভিযোগ দায়ের করেন প্রতারিতরা। সুন্দরবন পুলিশ জেলার এসপি ভাস্কর মুখোপাধ্যায়ের নির্দেশে তৈরী করা হয় বিশেষ টিম। সেই টিমের সদস্যরাই নজর রাখছিলেন অরিন্দমের গতিবিধি।

আদালতে তোলা হলে প্রতারিতরা আদালত চত্বরে ভিড় জমাতে শুরু করেন। যাঁরা এসেছিলেন তাঁদের সংখ্যায় প্রমাণ করে দিচ্ছিল, কোটি কোটি টাকা প্রতারণার গল্প। সারাদিন আদালতে বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন ছিল। কাকদ্বীপ, পাথর প্রতিমা, নামখানা, সাগর এলাকা জুড়ে এজেন্ট রেখে প্রতারণা চালিয়েছে অরিন্দম। প্রচুর প্রান্তিক মানুষেরা, ঝড়ের দাপটে ঘর বাড়ি ভেঙ যাওয়ার জন্য, স্থায়ী পাকা বাড়ির তৈরির আশায় ঠকেছে।

SHANKU SANTRA 

Published by:Shubhagata Dey
First published:

Tags: Kakdwip

পরবর্তী খবর