দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

৪০০ বছরে প্রথমবার বন্ধ জয়দেবের কেন্দুলি মেলা ! অনুমতি শুধু পুণ্যস্নান ও পুজোতে !

৪০০ বছরে প্রথমবার বন্ধ জয়দেবের কেন্দুলি মেলা ! অনুমতি শুধু পুণ্যস্নান ও পুজোতে !

স্নানের জন্য ৩ টি ঘাট প্রস্তুত করা হয়েছে৷ অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে জলে ১২ ফুট পর্যন্ত বাঁশ দিয়ে ঘিরে দেওয়া হয়েছে।

  • Share this:

#বীরভূম: করোনা আবহের জন্য এবার হচ্ছে না জয়দেব-কেন্দুলির মেলা। তবে যথারীতি রাধা-বিনোদের মন্দিরে পুজো দিতে ও অজয় নদের জলে পুণ্যস্নান করতে পারবেন ভক্তরা। কোনও দোকান বসতে দেওয়া হয়নি। স্থায়ী আখড়া গুলিকে অনুমতি দেওয়া হয়েছে মাত্র। সেই মত সমস্ত ব্যবস্থা করা হয়েছে প্রশাসনের তরফে।

প্রতি বছর মকর সংক্রান্তির দিন ইলামবাজারে অজয় নদের তীরে বসে জয়দেব-কেন্দুলির মেলা। প্রায় ৪০০ বছরের প্রাচীন এই মেলা। কিন্তু এবার হচ্ছে না জয়দেব মেলা। কোভিড পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে এবার মেলায় কোনও দোকান বসতে দেওয়া হয়নি। তবে  ভক্তদের প্রাচীন রাধা-বিনোদের মন্দিরে পুজো দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। অজয় নদের জলে পুণ্যস্নান করতেও পারবেন ভক্তরা। স্থায়ী প্রায় ১০০ টি আখড়াকে অনুমতি দেওয়া হয়েছে। অস্থায়ী বা বহিরাগত আখড়া গুলিকে এবার আসার অনুমতি দেওয়া হয়নি।

স্নানের জন্য ৩ টি ঘাট প্রস্তুত করা হয়েছে৷ অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে জলে ১২ ফুট পর্যন্ত বাঁশ দিয়ে ঘিরে দেওয়া হয়েছে। তার বেশি জলে নামতে দেওয়া হবে না। নজরদারির জন্য ১৩ টি ওয়াচ টাওয়ার, ১০৪ টি সিসিটিভি ক্যামেরা বসানো হয়েছে। নিরাপত্তার জন্য সাদা পোশাকের পুলিশ, মহিলা পুলিশ, সিভিক ভলেন্টিয়ার সহ মোট ২০০০ পুলিশ কর্মী মোতায়েন থাকবে। নদীর তীরবর্তী এলাকা পরিচ্ছন্ন রাখতে প্রায় ৫৫০ টি অস্থায়ী শৌচাগার তৈরি করা হয়েছে। কোভিডের কথা মাথায় রেখে জেলা প্রশাসনের তরফে ঘোষণা করা হয়েছে প্রত্যেক পুণ্যার্থীকে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। মন্দির থেকে কিছুটা দূরে আইসোলেশন রুম করা হয়েছে। থার্মালস্কানিং-এর ব্যবস্থা থাকছে।

তবে এর আগে কোন দিন জয়দেব মেলা বন্ধ থেকেছে বলে কারও জানা নেই। করোনা আবহে জয়দেবে অজয় নদীতে স্নান করতে পারবেন পুণ্যার্থীরা এটাই খুশির খবর পুণ্যার্থীদের কাছে,  কারণ করোনা আবহে যেখানে সমস্ত ধরনের অনুষ্ঠান বন্ধ সেই অবস্থায় তারা যে মকরের পুণ্য স্নান করতে পারবেন এটাই তাদের কাছে অনেক।

SUPRATIM DAS 

Published by: Piya Banerjee
First published: January 13, 2021, 9:20 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर