দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

তৃণমূলের বৈঠকে ডাক পেলেন না জিতেন্দ্র! আস্থা ফেরেনি দলের, উঠছে প্রশ্ন

তৃণমূলের বৈঠকে ডাক পেলেন না জিতেন্দ্র! আস্থা ফেরেনি দলের, উঠছে প্রশ্ন
জিতেন্দ্র তিওয়ারি৷ Photo-Facebook
  • Share this:

#আসানসোল: তিনি পাণ্ডবেশ্বরের বিধায়ক৷ অথচ সেই পাণ্ডবেশ্বরেই তৃণমূল মহিলা কংগ্রেসের বৈঠকে ডাক পেলেন না আসানসোলের তৃণমূল নেতা জিতেন্দ্র তিওয়ারি৷ ফলে জিতেন্দ্রের উপরে দলীয় নেতৃত্বের আস্থা আদৌ ফিরেছে কি না, তা নিয়ে ফের একবার প্রশ্ন উঠে গেল৷

আগামী ২ জানুয়ারি পাণ্ডবেশ্বরে তৃণমূল মহিলা কংগ্রেসের দুর্গাপুর মহকুমা অঞ্চলের সাংগঠনিক বৈঠক ডাকা হয়েছে৷ সেই বৈঠকে প্রধান বক্তা হিসেবে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যকে৷ এর পাশাপাশি আমন্ত্রিতদের তালিকায় রয়েছেন শ্রমমন্ত্রী মলয় ঘটক, দুর্গাপুরের মেয়র দিলীপ অগস্তি এবং দুর্গাপুরের প্রাক্তন মেয়র অপূর্ব মুখোপাধ্যায় সহ অনেককেই৷ কিন্তু এলাকার বিধায়ক জিতেন্দ্র তিওয়ারিকেই আমন্ত্রণ জানানো হয়নি৷

কয়েকদিন আগেই দল ছাড়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন আসানসোলের প্রাক্তন মেয়র ও পশ্চিম মেদিনীপুরের জেলা তৃণমূল সভাপতি জিতেন্দ্র তিওয়ারি৷ রাজ্য সরকারের জন্য আসানসোল কেন্দ্রীয় অনুদান থেকে বঞ্চিত হয়েছে, এই অভিযোগ তুলেই সরব হন তিনি৷ আসানসোলের পুর প্রশাসক এবং জেলা সভাপতির পদও ছেড়ে দেন জিতেন্দ্র৷ এর পর কলকাতায় এসে মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের সঙ্গে কথা বলার পর সিদ্ধান্ত বদলান জিতেন্দ্র, দলেই থেকে যান তিনি৷ তার পরেও অবশ্য জিতেন্দ্রকে পুরোন পদে ফেরায়নি শাসক দল৷

তবে জিতেন্দ্র দলে ফিরলেও তাঁকে পুরোন পদে ফেরায়নি দল৷ তার মধ্যে ফেসবুকে জিতেন্দ্র তিওয়ারির একটি ফেসবুক পোস্ট ঘিরে ফের তাঁর রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ নিয়ে জল্পনা বাড়ে৷ পরে অবশ্য ট্যুইটারে দাবি করেন, তিনি তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গেই আছে৷ আবার গত সোমবার বিজেপি-র সাংগঠনিক বৈঠক চলাকালীন কলকাতার একটি নামী হোটেলে হাজির হন জিতেন্দ্র৷ তিনি অবশ্য দাবি করেন, পরিবারকে নিয়ে হোটেলে খেতে গিয়েছিলেন৷ সবমিলিয়ে আসানসোলের তৃণমূল নেতাকে নিয়ে জল্পনা থেকেই গিয়েছে৷

দলের সভায় আমন্ত্রণ না জানানোর বিষয়টিকে অবশ্য গুরুত্ব দিতে চাননি জিতেন্দ্র৷ তিনি বলেন, 'আমন্ত্রণপত্রে নাম থাকুক না থাকুক আমি দলের হয়েই কাজ করব৷ এ নিয়ে এত জল্পনার কিছু হয়নি৷ যখন দলের সভায় ডাকবে, আমি যাব৷' এ বিষয়ে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব কিছু বলতে রাজি হননি৷ তাঁদের দাবি, এ বিষয়ে যা বলার দলের শীর্ষ নেতারাই বলবেন৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: December 31, 2020, 5:40 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर