জিয়াগঞ্জে ৩ খুনের জট আরও ঘনীভূত

জিয়াগঞ্জে ৩ খুনের জট আরও ঘনীভূত
বন্ধুপ্রকাশ পাল

দশমীতে মুর্শিদাবাদের জিয়াগঞ্জের লেবুবাগানে শিক্ষক বন্ধুপ্রকাশ পালের সঙ্গে খুন হন তাঁর আট মাসের অন্তসত্ত্বা স্ত্রী ও ছ’বছরের ছেলে। তদন্তে উঠে আসে নানা তথ্য।

  • Share this:

#জিয়াগঞ্জ: ছ’দিন কেটে গেলেও , জিয়াগঞ্জে তিন খুনের জট আরও ঘনীভূত। দুজনকে আটক করলেও, গ্রেফতার হয়নি কেউ। রহস্যের জট কাটাতে আজ আটক সৌভিক বণিকের প্রাক্তন স্ত্রীর শান্তিনিকেতনের বাড়ি যায় সিআইডি। এছাড়াও নিহত বিউটি পালের বাপেরবাড়িতেও যান তদন্তকারীরা। দফায় দফায় জেরা করা হচ্ছে আটক সৌভিককে।

দশমীতে মুর্শিদাবাদের জিয়াগঞ্জের লেবুবাগানে শিক্ষক বন্ধুপ্রকাশ পালের সঙ্গে খুন হন তাঁর আট মাসের অন্তসত্ত্বা স্ত্রী ও ছ’বছরের ছেলে। তদন্তে উঠে আসে নানা তথ্য। আটক নিহত শিক্ষকের বন্ধু সৌভিক বণিক-সহ দুই। প্রাথমিক তদন্তে জানা যআয, সৌভিকের সঙ্গে নানা ধরণের আর্থিক লেনদেন ও ব্যবসায়িক সম্পর্ক ছিল বন্ধুপ্রকাশের। তদন্ত যত এগোচ্ছে, ততই জটিল হচ্ছে রহস্য।

সৌভিকের সম্বন্ধে জানতে শান্তিনিকেতনের সীমান্তপল্লীতে তাঁর প্রাক্তন স্ত্রীর বাড়ি যান সিআইডি অফিসাররা। কথা বলা হচ্ছে অন্য আত্মীয়দের সঙ্গেও। সিআইডির আরেকটি টিম যায় বিউটি পালের বাপের বাড়ি, রামপুরহাটের সিউড়া গ্রামে। এছাড়াও, নিহত শিক্ষকের বাবার বাড়িও যান তদন্তকারীরা।

তদন্তে জানা গিয়েছে, বিভিন্ন অর্থলগ্নি সংস্থার আমানতকারীদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে পলিসি করাতেন নিহত শিক্ষক। কথা বলা হচ্ছে আমানতকারীদের সঙ্গে। জিয়াগঞ্জ থানায় ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে নিহত বিউটির বাবাকে। সৌভিককে তাঁর সামনাসামনি বসিয়ে চলে টানা জেরা।

ব্যবসায়িক কারণ, না কী ব্যক্তিগত শত্রুতা? না কী অন্য কোনও ষড়যন্ত্র? খুনের ছ’দিন পরও এখনও অন্ধকারে পুলিশ।

First published: 10:46:31 AM Oct 15, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर