আজও নাকি পুরুলিয়ার কাশীপুর রাজবাড়িতে পায়ের ছাপ রেখে যান মা রাজরাজেশ্বরী

খনও রীতি মেনে একসঙ্গে অষ্ঠমীর অঞ্জলী দেয় রাজপরিবার। ঐতিহ্যের ঠাকুলদালানে রাজা কল্যাণ সিং দেও’র দুর্গাপুজো

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 21, 2019 09:29 PM IST
আজও নাকি পুরুলিয়ার কাশীপুর রাজবাড়িতে পায়ের ছাপ রেখে যান মা রাজরাজেশ্বরী
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 21, 2019 09:29 PM IST

মহাঅষ্টমীর ক্ষণে রাখা থাকে সোনার থালা। তাতে থাকে সিঁদুর। আজও নাকি পুরুলিয়ার কাশীপুর রাজবাড়িতে পায়ের ছাপ রেখে যা মা রাজরাজেশ্বরী। এখনও রীতি মেনে একসঙ্গে অষ্ঠমীর অঞ্জলী দেয় রাজপরিবার। ঐতিহ্যের ঠাকুলদালানে রাজা কল্যাণ সিং দেও’র দুর্গাপুজো।

এই বাড়ি অনেক গল্প জানে। রাজা-রানির গল্প। এই বাড়ি জানে এক দেবীর উপাখ্যান। এই বাড়ি আবার যুদ্ধে গল্প বলে। যুদ্ধ শালা আর জামাইবাবুর।

সত্যি অনেক ইতিহাস মিশে আছে এই বাড়ির মধ্যে। বয়ে যাওয়া সময়ে আজ ধুলো জমেছে বেলজিয়াম কাচের উপরে। কামান আছে, গোলা নেই। তবুও আছেন রাজরাজেশ্বরী। শাখা-প্রশাখা আজ অনেক দূর পর্যন্ত। কিন্তু অষ্ঠমীর সকালে এই বাড়ির দালান ভরে যায় রাজ পরিবারের কোলাহলে।

এখনও এই পুজো ষোলোদিনের। একসময় এই বাড়িতে একদিনে হাজার হাজার লোক ভোগ খেতেন। আজ সে-সব নেই। যেটা আছে তা ঐতিহ্য। আর আছেন রাজরাজেশ্বরী। যাঁর মাহাত্ম্য এখনও বয়ে বেড়ায় কাশীপুর।

First published: 08:20:45 PM Sep 21, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर