• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • প্রতিটি রেল স্টেশনে থাকছে আইসোলেশন রুম, অ্যাম্বুলেন্স, থার্মাল স্ক্রিনিং হবে সব যাত্রীর

প্রতিটি রেল স্টেশনে থাকছে আইসোলেশন রুম, অ্যাম্বুলেন্স, থার্মাল স্ক্রিনিং হবে সব যাত্রীর

দেহের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে বেশি থাকলে সেই যাত্রীকে চিহ্নিত করে আইসোলেশন রুমে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে তাকে ভাল করে পরীক্ষা করবেন চিকিৎসকরা।

দেহের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে বেশি থাকলে সেই যাত্রীকে চিহ্নিত করে আইসোলেশন রুমে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে তাকে ভাল করে পরীক্ষা করবেন চিকিৎসকরা।

দেহের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে বেশি থাকলে সেই যাত্রীকে চিহ্নিত করে আইসোলেশন রুমে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে তাকে ভাল করে পরীক্ষা করবেন চিকিৎসকরা।

  • Share this:

Saradindu Ghosh

#বর্ধমান: বর্ধমান সহ প্রতিটি রেল স্টেশনে থাকছে আইসোলেশন রুম। স্টেশন থেকে বের হওয়ার সময় প্রত্যেক যাত্রীর দেহের তাপমাত্রা পরীক্ষা করা হবে। থার্মাল স্ক্রিনিংয়ের মাধ্যমে চলবে সেই পরীক্ষা। দেহের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে বেশি থাকলে সেই যাত্রীকে চিহ্নিত করে আইসোলেশন রুমে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে তাকে ভাল করে পরীক্ষা করবেন চিকিৎসকরা। সেই যাত্রীর শরীরে করোনার উপসর্গ থাকার ব্যাপারে চিকিৎসক নিশ্চিত হলে তাঁকে পাঠানো হবে করোনা হাসপাতাল বা সেফ হোমে। পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন সূত্রে এই খবর জানা গিয়েছে।

আগামীকাল বুধবার থেকে রাজ্যের অন্যান্য কয়েকটি শাখার পাশাপাশি বর্ধমান হাওড়া কর্ড ও মেন শাখায় লোকাল ট্রেন চলাচল শুরু হচ্ছে। বর্ধমান কাটোয়া ও হাওড়া কাটোয়া শাখাতেও লোকাল ট্রেন চলবে। বাসিন্দাদের অসুবিধার কথা চিন্তা করে রাজ্য সরকার এই লোকাল ট্রেন চালানোর পরিকল্পনা নিয়েছে। সেইমতো যাবতীয় প্রস্তুতি নিয়েছে রেল।

সেই সঙ্গে ট্রেন চলাচল শুরু হলে যাতে তার মধ্য দিয়ে করোনার সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে না পারে তা নিশ্চিত করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে জেলা গুলিকে। সেই নির্দেশের পরিপ্রেক্ষিতে এদিন পূর্ব বর্ধমানের জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ ও স্বাস্থ্য দফতরের আধিকারিকরা বিভিন্ন স্টেশন পরিদর্শন করেন। রেলের আধিকারিকদের সঙ্গেও কথা বলেন তাঁরা।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রতিটি স্টেশনে আইসোলেশন রুমের পাশাপাশি থাকছে অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থাও। কোন স্টেশনে কোন অ্যাম্বুলেন্স রোগী পরিবহণের জন্য প্রস্তুত থাকবে তার তালিকাও তৈরি করা হয়েছে। জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, করোনার উপসর্গ রয়েছে এমন যাত্রীর হদিশ মিললে স্টেশন থেকে অ্যাম্বুলেন্সে চাপিয়ে সেই যাত্রীকে করোনা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হবে। ওই যাত্রী করোনা আক্রান্ত কিনা সে ব্যাপারে নিশ্চিত হতে দ্রুত তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হবে।

এর পাশাপাশি রেল স্টেশনে ঢুকতে গেলে যাত্রীদের মাস্ক বা ফেস কভার ব্যবহার বাধ্যতামূলক বলে ঘোষণা করা হয়েছে। মাস্কে মুখ না ঢাকলে রেল স্টেশন চত্বরে যাত্রীদের ঢুকতে দেওয়া হবে না বলে জেলা প্রশাসন জানিয়ে দিয়েছে।

Published by:Simli Raha
First published: