Home /News /south-bengal /
Bangladeshi ship stuck at Sagar: বাংলাদেশী জাহাজকে ঘিরে ধরল একের পর এক নৌকো! ঘোড়ামারা দ্বীপের কাছে চরম উত্তেজনা

Bangladeshi ship stuck at Sagar: বাংলাদেশী জাহাজকে ঘিরে ধরল একের পর এক নৌকো! ঘোড়ামারা দ্বীপের কাছে চরম উত্তেজনা

বাংলাদেশী জাহাজকে ঘিরে ধরেছে একের পর এক নৌকো৷

বাংলাদেশী জাহাজকে ঘিরে ধরেছে একের পর এক নৌকো৷

নদীতে থাকা অন্তত পাঁচটি মাছধরার নৌকা ঘিরে ধরে বাংলাদেশী জাহাজ এমভি সি প্রাইডকে। জালের ক্ষতিপূরণের দাবিতে নদীতে নৌকা দিয়ে জাহাজ ঘিরে চলে প্রতিবাদ (Bangladeshi ship stuck at Saga)।

  • Share this:

    #সাগর: বাংলাদেশী জাহাজে (Bangladesh) ছিঁড়ল মাছ ধরার জাল৷ আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই মাঝ নদীতে ছড়ালো উত্তেজনা৷ ঘণ্টার পর ঘণ্টা বাংলাদেশী জাহাজকে আটকে রাখলেন মৎস্যজীবীরা৷ ঘটনটি ঘটেছে দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার (South 24 Pas) সাগরের ঘোড়ামারা দ্বীপের কাছে৷

    স্থানীয় সূত্রে খবর, বুধবার কাকভোরে দক্ষিণ ২৪ পরগণার সাগরের ঘোড়ামাড়া দ্বীপের পাশ দিয়ে একটি বাংলাদেশী জাহাজ হলদিয়া যাচ্ছিল। হুগলী নদীতে প্রতিদিনের মতো মাছ ধরার জন্য জাল পেতেছিলেন বেশ কয়েকজন মৎস্যজীবীরা। জাহাজের নাবিক জলের মধ্যে থাকা জাল ঠাওর করতে পারেননি। জাহাজের পাখায় আটকে যায় মাছধরার জাল। ফালা ফালা হয়ে যায় জালটি। ভোর রাতে এই ঘটনার পরেই ক্ষোভে ফুঁসতে থাকেন মৎস্যজীবীরা।

    আরও পড়ুন: জাহাজের ধাক্কায় তলিয়ে গেল যাত্রীবোঝাই লঞ্চ, বাংলাদেশে ভয়াবহ দুর্ঘটনা, দেখুন ভিডিও

    সেই সময় নদীতে থাকা অন্তত পাঁচটি মাছধরার নৌকা ঘিরে ধরে বাংলাদেশী জাহাজ এমভি সি প্রাইডকে। জালের ক্ষতিপূরণের দাবিতে নদীতে নৌকা দিয়ে জাহাজ ঘিরে চলে প্রতিবাদ। সকাল হতেই বিষয়টি কলকাতা পোর্টট্রাস্ট, কাকদ্বীপের মহকুমা শাসক, জেলা মৎস্য আধিকারিক (‌ সামুদ্রিক)‌ ও পুলিশের নজরে আনা হয়। মাঝ নদীতে আটকে থাকে জাহাজটি৷

    আরও পড়ুন: বীভৎস! আকাশ থেকে সোজা মাটিতে হু হু করে নামছে প্লেন, ধ্বংসের ভয়াবহ ভিডিও সামনে

    খবর পেয়ে দুপুরে সাগরের এসডিপিও দেবাঞ্জন চট্টোপাধ্যায় ঘটনাস্থলে পৌঁছন। জাহাজের নাবিক ও বিক্ষোভরত মৎস্যজীবীদের সঙ্গে কথা বলেন। জাহাজ কর্তৃপক্ষ মৎস্যজীবীদের ক্ষতিপূরণ দিতে রাজি হওয়ায় বিক্ষোভ ওঠে। ক্ষতিগ্রস্ত মৎস্যজীবী পুলক দাস জানান, 'আমার নৌকার নাম এফবি মা মালতী। আমার একটি বিন্দি জাল পুরোপুরি নষ্ট করে দেয়। যার বাজারমূল্য ৬৫ হাজার টাকা। বিক্ষোভ দেখানো ছাড়া কোন উপায় ছিল না। '

    শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এ দিন সন্ধ্যা পর্যন্ত ওই জায়গাতেই আটকে রয়েছে জাহাজটি৷ কারণ জাহাজের নীচের পাখায় জাল এমন ভাবে জড়িয়ে গিয়েছে যে তা না ছাড়ালে জাহাজ এগোতে পারবে না৷ ডুবুরি এসে জাহাজের নীচ থেকে জাল ছাড়ানোর পরই গন্তব্যের উদ্দ্যেশে রওনা দিতে পারবে এমভি সি প্রাইড৷

    Biswajit Halder

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published:

    Tags: Bangladesh

    পরবর্তী খবর