Bengal Polls 2021 : দ্বিতীয় দফা, ৩০ আসন, ফিরে দেখা লোকসভা ভোটের লেন্সে

Bengal Polls 2021 : দ্বিতীয় দফা, ৩০ আসন, ফিরে দেখা লোকসভা ভোটের লেন্সে

দ্বিতীয় দফা Photo-File

চার জেলার ৩০ আসনে ভোটগ্রহণ করা হবে বৃহস্পতিবার। এরমধ্যে পশ্চিম মেদিনীপুরের ৯, বাঁকুড়ার ৮, পূর্ব মেদিনীপুরের ৯ ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার ৪ আসনে ভোটগ্রহণ করা হবে।

  • Share this:

     #কলকাতা : চার জেলার ৩০ আসনে ভোটগ্রহণ করা হবে বৃহস্পতিবার। এরমধ্যে পশ্চিম মেদিনীপুরের ৯, বাঁকুড়ার ৮, পূর্ব মেদিনীপুরের ৯ ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার ৪ আসনে ভোটগ্রহণ করা হবে। চলুন একবার চোখ বুলিয়ে নেওয়া যাক গত লোকসভা ভোটের ফলাফলে। ২০১৯ এর নির্বাচনের ফলাফলের নিরিখে দেখে নেওয়া যাক এই ৩০টি কেন্দ্রে রাজনৈতিক দলগুলির অবস্থান।

    তমলুক : পূর্ব মেদিনীপুরের এই লোকসভা আসনে ২০১৯-র নির্বাচনে জিতেছিলেন তৃণমূল প্রার্থী দিব্যেন্দু অধিকারী। এই লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত তমলুক বিধানসভা আসনে এগিয়েছিল তৃণমূল। লোকসভা ভোটের ফল অনুযায়ী, এই কেন্দ্রে তৃণমূল পেয়েছিল ৯৩,৬৮০ ভোট। বিজেপি পেয়েছিল ৮৭,১৩২ ভোট। সিপিএম পেয়েছিল ২৭,৯৫৮ ভোট। কংগ্রেস পেয়েছিল ২১৩০ ভোট।

    পাঁশকুড়া পূর্ব :  এই আসনেও তৃণমূল এগিয়েছিল। এই আসনে তৃণমূল ৭৯,৪৩৭, বিজেপি ৭২,০৫৭, সিপিএম ২১০৫৪ ও কংগ্রেস ২৬৭৬ ভোট পেয়েছিল।

    ময়না : এই লোকসভা  আসনে তৃণমূল এগিয়েছিল। তৃণমূলের প্রাপ্ত ভোট ছিল ১,০০,৮৮০। বিজেপি পেয়েছিল ৮৮,৪৯৭ ভোট। সিপিএম ১২,৩৮৯ ও কংগ্রেস ২৪৮৮ ভোট পেয়েছিল।

    নন্দকুমার : এখানে এগিয়ে তৃণমূল। তারা পেয়েছিল ৯৭,৪৭৪ ভোট। বিজেপি ৮২,১১৬, কংগ্রেস ২০৬৫ ও সিপিএম ২৪,৯১৮ ভোট পেয়েছিল।

    মহিষাদল : এই আসনেও লিড ছিল তৃণমূলের। তারা পেয়েছিল ৯৬,২১৫ ভোট। বিজেপি ৭৯,২৯৯ ভোট পেয়েছিল। ২১,৮৩৫ ভোট পেয়েছিল সিপিএম। কংগ্রেস পেয়েছিল ২৪২৮ ভোট।

    হলদিয়া : ২০১৯-এ এগিয়েছিল তৃণমূল। ১,২৫,২৯৬ ভোট পেয়েছিল তৃণমূল। বিজেপির প্রাপ্ত ভোট ছিল ৬১৪৭৫, সিপিএম পেয়েছিল ১৮,৩৫৫ ভোট। কংগ্রেস পেয়েছিল ২৩৭৯ ভোট।

    নন্দীগ্রাম : ২০১৯ এর ফলাফলের বিচারে এগিয়ে তৃণমূল। তৃণমূলের প্রাপ্ত ভোট ছিল ১,৩০,৬৫৯। বিজেপি পেয়েছিল ৬২২৬৮ ভোট। সিপিএম পেয়েছিল ৯৩৫৩ ভোট এবং কংগ্রেস পেয়েছিল ১৭৮৮ ভোট।

    পাঁশকুড়া পশ্চিম : পূর্ব মেদিনীপুরের কেন্দ্রটি ঘাটাল লোকসভা আসনের অন্তর্ভূক্ত। এই আসনে লোকসভা ভোটের ফল অনুযায়ী এগিয়ে বিজেপি। এই আসনে তৃণমূলের প্রাপ্ত ভোট ছিল ৯৪,৬৮৩। বিজেপি পেয়েছিল ৯৭,৫২৮ ভোট। সিপিএম পেয়েছিল ১৩,০৭৪ ভোট।

    ঘাটাল : এই লোকসভা আসনের অন্তর্ভূক্ত সবং, পিংলা, ডেবরা, দাসপুর, ঘাটাল, কেশপুর বিধানসভা আসনেও দ্বিতীয় দফায় ভোট গ্রহণ করা হবে।

    সবং : ২০১৯-র লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল অনুযায়ী,  আসনে এগিয়ে তৃণমূল। তারা পেয়েছিল ৯৪,৭৯৮ ভোট। বিজেপি পেয়েছিল ৮৮,৬২৮ ভোট। সিপিএম পেয়েছিল ১৯,৩১৮ ভোট।

    পিংলা  : এই আসনেও সামান্য ব্যবধানে এগিয়েছিল তৃণমূল। তাদের প্রাপ্ত ভোট ৯৯,৭৬০ ভোট। বিজেপি ৯৮,০৬২ ও সিপিএম ৯৮৯৩ ভোট পেয়েছিল।

    ডেবরা : এই লোকসভা আসনে এগিয়েছিল বিজেপি। তারা পেয়েছিল ৮৪,৬১৮ ভোট। তৃণমূল পেয়েছিল ৮০,৫৯৯ ভোট। সিপিএম পেয়েছিল ২১,৬৩৬ ভোট।

    দাসপুর : এই  আসনে এগিয়েছিল তৃণমূল। তারা পেয়েছিল ৯৯,২৪৬ ভোট। বিজেপি পেয়েছিল ৮৯,৩০৬ ভোট। সিপিএমের প্রাপ্ত ভোট ছিল ১৭,৫৬৯ ভোট।

    ঘাটাল : এই লোকসভা আসনেও এগিয়েছিল তৃণমূল। তৃণমূলের প্রাপ্ত ভোট ১,০৩,৩৩১। বিজেপি পেয়েছিল ৯৭,৪৬৫ ভোট। সিপিএমের প্রাপ্ত ভোট ছিল ৮,১৫৬।

    কেশপুর : আসনে এগিয়েছিল তৃণমূল। তারা পেয়েছিল ১,৪৪,৯৯০ ভোট। বিজেপি পেয়েছিল ৫২৯১৬ ভোট। সিপিএম পেয়েছিল ৭,২৯৭।

    আরামবাগ : লোকসভা আসনের অন্তর্গত পশ্চিম মেদিনীপুরের চন্দ্রকোনা আসনে ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনের ফল অনুযায়ী এগিয়ে তৃণমূল। তারা পেয়েছিল ১,০৬,৮০০ ভোট। বিজেপি পেয়েছিল ১,০৩,১৬৯ ভোট। সিপিএম পেয়েছিল ১৪,৮২৭ ভোট।

    মেদিনীপুর লোকসভা আসনের অন্তর্ভূক্ত নারায়ণগড় ও খড়্গপুর সদর আসনে ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনের ফল অনুযায়ী এগিয়ে বিজেপি। নারায়ণগড়ে বিজেপির প্রাপ্ত ভোট ছিল ৯৭,৩২৪ । তৃণমূল পেয়েছিল ৮৮,৫৭৪ ভোট। বাম প্রার্থীর প্রাপ্ত ভোট ছিল ১১,৫৬৮।

    খড়্গপুর সদর আসনে বিজেপির প্রাপ্ত ভোট ছিল ৯৩,৪২৫, তৃণমূল পেয়েছিল ৪৮,২৯৩ ভোট। বাম প্রার্থী পেয়েছিলেন ৮,১৫৬ ভোট।

    বাঁকুড়া লোকসভা আসনের অন্তর্গত তালড্যাংরা ও বাঁকুড়া-দুটি বিধানসভা আসনেই ২০১৯-র লোকসভা নির্বাচনের ফল অনুযায়ী এগিয়েছিল বিজেপি।

    তালড্যাংরায় বিজেপির প্রাপ্ত ভোট ছিল ৮৭,৮২৬। তৃণমূল পেয়েছিল ৭০, ৫৫৮। বাম প্রার্থী পেয়েছিলেন ২০,৫৬৯ ভোট।

    বাঁকুড়া আসনে বিজেপি পেয়েছিল ১,১২,০৮০ ভোট। তৃণমূল ৬৫,৩০৪ ভোট। বামেরা পেয়েছিল ১৫,১৪৩ ভোট।

    দ্বিতীয় দফায় ভোটগ্রহণ বিষ্ণুপুর লোকসভা আসনের অন্তর্গত বড়জোড়া, ওন্দা, বিষ্ণুপুর, কোতুলপুর, ইন্দাস, সোনামুখী বিধানসভা আসনেও।

    বড়জোড়া  : ২০১৯-র লোকসভা নির্বাচনের ফল অনুযায়ী বড়জোড়া আসনে এগিয়ে বিজেপি। তাদের প্রাপ্ত ভোট ৯১,৭৩৬। তৃণমূল পেয়েছিল ৮০,১১৬ ভোট। সিপিএম পেয়েছিল ২৩,১৭১ ভোট।

    ওন্দা আসনেও এগিয়ে বিজেপি। তারা পেয়েছিল ১,০৬,৭৮৮ ভোট। তৃণমূল পেয়েছিল ৮০,৪১৫। সিপিএম প্রার্থী পেয়েছিলেন ৮,৮৬৬ ভোট। বিষ্ণুপুর আসনেও এগিয়ে বিজেপি। তাদের প্রাপ্ত ভোট ছিল ৮৯,৮০৬। তৃণমূল পেয়েছিল ৬৬,৯৮৮ ভোট। সিপিএম পেয়েছিল ১৩,৭৫৩ ভোট।

    কোতুলপুর আসনে এগিয়ে বিজেপি। তাদের প্রাপ্ত ভোট ৯৭,৯০৭। তৃণমূল পেয়েছিল ৮৮,৮০৮। সিপিএম পেয়েছিল ১৪,০৮১ ভোট।

    ইন্দাস আসনে ৯৮,১৮৪ ভোট পেয়ে এগিয়েছিল বিজেপি। তৃণমূল পেয়েছিল ৮৪,৫৯১ ভোট। সিপিএম পেয়েছি ১২,১০৬ ভোট।

    সোনামুখী আসনেও ৯৮,৯৮৩ ভোট পেয়ে এগিয়ে বিজেপি। তৃণমূলের প্রাপ্ত ভোট ছিল ৭৫,১৪৮। সিপিএম পেয়েছিল ১৯,৪৫১ ভোট।

    গোসাবা দক্ষিণ ২৪ পরগনার জয়নগর লোকসভা কেন্দ্রের গোসাবা বিধানসভায় ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল অনুযায়ী এগিয়ে তৃণমূল। তারা পেয়েছিল ১,০১,৫২২ ভোট। বিজেপি পেয়েছিল ৭২,২৩৬ ভোট। বাম প্রার্থীর প্রাপ্ত ভোট ছিল ৩৭১৩ ভোট।

    পাথরপ্রতিমা : দক্ষিণ ২৪ পরগনার মথুরাপুর লোকসভা আসনের অন্তর্গত পাথরপ্রতিমায় ১,১৩,০৬০ ভোট পেয়ে এগিয়েছিল তৃণমূল। বিজেপির প্রাপ্ত ভোট ছিল ৭৭,২৮১। বাম প্রার্থীর প্রাপ্ত ভোট ১৭,১৩৮।

    কাকদ্বীপ : আসনেও ১,০৬,২০৩ ভোট পেয়ে এগিয়ে তৃণমূল। বিজেপি পেয়েছিল ৮০,৭৪৭ ভোট। সিপিএম পেয়েছিল ৯,৭৩০ ভোট।

    সাগর : আসনে ১,১৯,০৭০ ভোট পেয়ে এগিয়ে ছিল তৃণমূল। বিজেপি পেয়েছিল ৮৭,০৫৮ ভোট। সিপিএম পেয়েছিল ১৩,৮৯৬ ভোট।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: