পূর্ব বর্ধমানে তৃণমূল ছেড়ে আসা দুই বিধায়ককে প্রার্থী করল বিজেপি

পূর্ব বর্ধমানে তৃণমূল ছেড়ে আসা দুই বিধায়ককে প্রার্থী করল বিজেপি

গত লোকসভা ভোটের পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে, কালনা বিধানসভা আসনে তৃণমূল কংগ্রেসের ঘাড়ের উপর নিঃশ্বাস ফেলছে বিজেপি। তাই এই আসনে জয় পাওয়ার ব্যাপারে যথেষ্ট আশাবাদী ছিল বিজেপি নেতৃত্ব।

গত লোকসভা ভোটের পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে, কালনা বিধানসভা আসনে তৃণমূল কংগ্রেসের ঘাড়ের উপর নিঃশ্বাস ফেলছে বিজেপি। তাই এই আসনে জয় পাওয়ার ব্যাপারে যথেষ্ট আশাবাদী ছিল বিজেপি নেতৃত্ব।

  • Share this:

Saradindu Ghosh

#বর্ধমান: তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে আসা দুই বিধায়ককে পূর্ব বর্ধমান জেলায় প্রার্থী করল বিজেপি। এই ঘটনায় দলের একাংশ ক্ষুব্ধ। এ ছাড়াও বিভিন্ন সময়ে কংগ্রেস বা তৃণমূল ছেড়ে আসা আরও তিনজনকে এই জেলায় প্রার্থী করা হয়েছে। অন্য দল থেকে আসা ব্যক্তিরা দলে বাড়তি গুরুত্ব পাওয়ায় ক্ষুব্ধ পুরনো দিনের কর্মীরা। কিছু কিছু জায়গায় তা নিয়ে বিক্ষোভও শুরু হয়েছে। তবে জয়ের ব্যাপারে তাঁরা যথেষ্ট আশাবাদী বলে জানিয়েছেন এই পাঁচ প্রার্থী।

শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন কালনার বিধায়ক বিশ্বজিৎ কুন্ডু ও মন্তেশ্বরের বিধায়ক সৈকত পাঁজা। তাঁদের দু'জনকেই ওই দুই কেন্দ্রে প্রার্থী করেছে বিজেপি। গত লোকসভা ভোটের পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে, কালনা বিধানসভা আসনে তৃণমূল কংগ্রেসের ঘাড়ের উপর নিঃশ্বাস ফেলছে বিজেপি। তাই এই আসনে জয় পাওয়ার ব্যাপারে যথেষ্ট আশাবাদী ছিল বিজেপি নেতৃত্ব। এই আসনে তৃণমূল কংগ্রেসে থাকাকালীন বিশ্বজিৎ কুণ্ডুর বিরুদ্ধ গোষ্ঠীর লোক হিসেবে পরিচিত দেবপ্রসাদ বাগকে প্রার্থী করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। সদ্য তৃণমূল ছেড়ে আসা বিশ্বজিৎ কুণ্ডু বিজেপির প্রার্থী হিসেবে কতটা সাফল্য পাবেন তা নিয়ে দ্বিধায় বিজেপি কর্মী নেতারাই।

বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকেই নিকটাত্মীয়দের প্রাথমিক শিক্ষকের চাকরি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে বিশ্বজিৎ কুণ্ডুর বিরুদ্ধে। সেই অভিযোগকে কেন্দ্র করে সরগরম রাজ্য রাজনীতি। এমন ব্যক্তিকে প্রার্থী করে কতটা সাফল্য মিলবে তা নিয়ে সংশয়ে বিজেপি নেতৃত্বের একাংশ। যদিও প্রার্থী তালিকা ঘোষণার পর পরই জনসংযোগের মধ্য দিয়ে প্রচার শুরু করে দিয়েছেন বিশ্বজিৎ। তিনি বলেন, চেনা এলাকা। সকলকে নিয়ে প্রচার শুরু করেছি।

মন্তেশ্বর আসনেও তৃণমূল থেকে আসা বিধায়ক সৈকত পাঁজাকে প্রার্থী করেছে বিজেপি। এই আসনে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরি। মন্তেশ্বর আসনে সৈকত পাঁজাকে দল প্রার্থী করায় বিক্ষোভ দেখায় বিজেপির যুব নেতা কর্মীদের একাংশ। কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া আইনজীবী শ্যামা মজুমদারকে কাটোয়া কেন্দ্র প্রার্থী করেছে বিজেপি। অন্যদিকে কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূল হয়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া মথুরা ঘোষকে কেতুগ্রামের প্রার্থী করা হয়েছে। একসময় তৃণমূলে থাকা রাণাপ্রতাপ গোস্বামীকে মঙ্গলকোটে প্রার্থী করেছে বিজেপি। বিজেপির জেলা নেতাদের একাংশ বলছেন, অন্য দল থেকে আসা ব্যক্তিদের প্রার্থী না করে দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় দল করে আসা পুরুষ-মহিলাদের প্রার্থী করা হলে গ্রহণযোগ্যতা বাড়তো।

Published by:Simli Raha
First published: