Home /News /south-bengal /
Rampurhat Case: দিনের দুই অর্ধে ৫৪ জন করে পুলিশকর্মী বগটুইয়ের নিরাপত্তায়, গেলেন ডিজি মনোজ মালব্য

Rampurhat Case: দিনের দুই অর্ধে ৫৪ জন করে পুলিশকর্মী বগটুইয়ের নিরাপত্তায়, গেলেন ডিজি মনোজ মালব্য

নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব চিত্র

Rampurhat Case: গ্রামে পুলিশের রাতভর টহলদারি চলবে। মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছিলেন, গ্রামের মানুষের আস্থা ফিরিয়ে আনতে হবে

  • Share this:

#কলকাতা: নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হলো বগটুই গ্রাম। বৃহস্পতিবার নিরাপত্তা ব্যবস্থা সরেজমিনে খতিয়ে দেখতে সন্ধ্যায় বগটুই যান রাজ্য পুলিশের ডিজি মনোজ মালব্য। পুলিশ সূত্রে খবর, কার্যত নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হবে বগটুই গ্রামকে। বৃহস্পতিবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গ্রামে গিয়ে নিরাপত্তার কথা বলেন। বলেন গ্রামবাসীদের সকলে যাতে নিরাপদে থাকতে পারেন, তার ব্যবস্থা করতে বিশেষ আয়োজন করবে রাজ্য।

সেই নির্দেশের কয়েকঘণ্টার মধ্যে কার্যত বিশেষ নিরাপত্তা দিয়ে মুড়ে ফেলা হল বগটুই গ্রাম। পুলিশ সূত্রে খবর, গ্রামের নিরাপত্তার দায়িত্বে দুটি শিফটে থাকবেন এক জন ডিএসপি, দু'জন ইন্সপেক্টর ও এক জন সাব ইন্সপেক্টর পর্যায়ের অফিসার। এ ছাড়াও ৫৪ জন করে পুলিশ কর্মী দিনের দুটি অর্থে গ্রামের নিরাপত্তায় মোতায়েন থাকবেন।

আরও পড়ুন : মেগা রিক্রুটমেন্ট! স্টাফ সিলেকশন কমিশনে ৩৬০৩ শূন্যপদে নিয়োগ, আজই আবেদন করুন...

গ্রামে পুলিশের রাতভর টহলদারি চলবে। মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছিলেন, গ্রামের মানুষের আস্থা ফিরিয়ে আনতে হবে। তিনি বলেছিলেন, যাঁরা এখনও ঘরছাড়া তাঁদের ঘরে ফেরাতে হবে। সেই নির্দেশের পরেই রাজ্য পুলিশের ডিজি মনোজ মালব্য বগটুই গ্রামে যান সন্ধ্যা সাড়ে যান। গ্রামে এসে তিনি নিরাপত্তা ব্যবস্থা খতিয়ে দেখেন এবং কর্তব্যরত পুলিশকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেন। তাঁর নির্দেশ অনুসারে বলা হয়েছে, বগটুই গ্রামে তৈরি হবে নির্দিষ্ট একটি পুলিশ ক্যাম্প। সেই পুলিশ ক্যাম্পের মাধ্যমে গ্রামের বিভিন্ন বিষয়ে নিরাপত্তা বজায় রাখা হবে। এ ছাড়া আদালতের নির্দেশে যে সিসি ক্যামেরা বসানো হয়েছিল গ্রামে, সেগুলির বিষয়েও খোঁজখবর নেন রাজ্যপুলিশের ডিজি। দেখেন, সেগুলি কাজ করছে কি না।

আরও পড়ুন : ‘সরানো হোক রাজ্যপালকে’, রামপুরহাট কাণ্ডে অমিত শাহর দরবারে আর্জি সুদীপদের

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় গ্রামের বিভিন্ন অংশ ঘুরে ফিরে দেখেন ডিজি। তিনি কথা বলেন দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশ আধিকারিকদের সঙ্গেও। এ দিকে মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ মতো বৃহস্পতিবার থেকেই রাজ্যজুড়ে বেআইনি অস্ত্র উদ্ধারের জন্য বিশেষ অভিযান শুরু করছে পুলিশ। পুলিশের তরফ থেকে এই অভিযানের জন্য ইতিমধ্যে রাজ্যের সর্বস্তরে নোটিশ পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। সেই মতো আজ থেকেই শুরু হচ্ছে অভিযান।

ভেঙ্কটেশ্বর লাহিড়ি

Published by:Uddalak B
First published:

Tags: Rampurhat

পরবর্তী খবর