দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

মাস্কে মুখ ঢাকলেই বিনামূল্যে এক কিলো পেঁয়াজ! করোনামুক্তির অফারে ঝটকা...

মাস্কে মুখ ঢাকলেই বিনামূল্যে এক কিলো পেঁয়াজ! করোনামুক্তির অফারে ঝটকা...
এই দৃশ্যই দেখা গেল রাস্তায়।

এই সময় আপনি উপহার হিসেবে পেতেই পারেন বিনামূল্যে এক কেজি পেঁয়াজ।

  • Share this:

#বর্ধমান: একদিকে করোনার সঙ্গে লড়াই, অন্যদিকে বাজারে গিয়ে লড়াই পকেটের সঙ্গে। সরষের তেল থেকে শুরু করে আলু পেঁয়াজ সবেরই দাম আকাশছোঁয়া। সরষের তেলের কেজি প্রতি দাম দেড়শ টাকার দিকে এগোচ্ছে। আলু রেকর্ড ভেঙে এখন চল্লিশ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। পেঁয়াজ সেঞ্চুরি হাঁকানোর পথে। সব মিলিয়ে বাজারে গিয়ে দাম শুনে নাভিশ্বাস ওঠার জোগাড় মধ্যবিত্তের।ঠিক এই সময় আপনি উপহার হিসেবে পেতেই পারেন বিনামূল্যে এক কেজি পেঁয়াজ। সেজন্য কঠিন কোনও প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার প্রয়োজন নেই। রাস্তায় বেরিয়ে মুখে মাস্ক বা ফেস কভার থাকলেই হলো। করোনা সম্পর্কে আপনার এই সচেতনতার জন্যই আপনার হাতে এক কিলো পেঁয়াজ উপহার হিসেবে উঠে আসতে পারে। বাসিন্দাদের করোনা সম্পর্কে সচেতন করতে এমন উদ্যোগ নিয়েছে পূর্ব বর্ধমানের মেমারির পাল্লা রোড পল্লী মঙ্গল সমিতি। বর্ধমান শহরের বিভিন্ন প্রান্তে ঘুরে ঘুরে এমন উপহার তুলে দিচ্ছে পল্লীমঙ্গল সমিতির সদস্যরা।

জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় প্রত্যেকদিনই সেঞ্চুরি হাঁকাচ্ছে। তাও মানুষের মধ্যে সচেতনতার অভাব। মাস্ক ছাড়া অনেককেই দেখা যাচ্ছে রাস্তায়। প্রশাসন বারবার বলেও হুশ ফেরাতে পারেনি সাধারণ মানুষের। এদিকে আবার করোনার সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে পেয়াঁজের দামও।সেও সেঞ্চুরি হাঁকালো বলে। একেবারে মুশকিল আসান সম্ভব না হলেও মাস্ক পরলে ফ্রিতে পেয়াঁজ পাওয়ার চান্স থাকছেই। বর্ধমানের কার্জনগেট চত্বরে বাসিন্দাদের মাস্ক ব্যবহারে আগ্রহ বাড়াতেই প্রচারে নেমেছে পল্লীমঙ্গল সমিতি। তাই মাস্ক পরলে আপনিও পেয়ে যেতে পারেন এক কেজি পেঁয়াজ একদম বিনামূল্যে। তাই পেঁয়াজের ঝাঁঝে কিংবা করোনার ভয়ে চোখে কান্নার জল নয়, বরং মাস্ক থাকলেই মুখে ফুটছে হাসি!

পাল্লারোড পল্লীমঙ্গল সমিতি সম্পাদক সন্দীপন সরকার বলেন, বার বার বাসিন্দাদের বলেও কাজ হচ্ছে না। তাই আবেদনে নতুনত্ব আনতে এই কর্মসূচি। জীবনের দাম সবার আগে - সেকথা বোঝাচ্ছি আমরা। বিনামূল্যে পেঁয়াজ পেয়ে খুশি হচ্ছেন বাসিন্দারা। তাঁরা আবার এলাকায় গিয়ে সবাইকে মাস্ক পড়তে বলছেন। এভাবেই সচেতনতা বাড়ানোর চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

Published by: Arka Deb
First published: November 5, 2020, 1:08 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर