• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • CAA| রাজ্যে বিজেপির সরকার এলেই উদ্বাস্তুদের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে, জানালেন সায়ন্তন বসু

CAA| রাজ্যে বিজেপির সরকার এলেই উদ্বাস্তুদের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে, জানালেন সায়ন্তন বসু

সায়ন্তন বসু

সায়ন্তন বসু

একই সঙ্গে নারদা কাণ্ড নিয়ে শুভেন্দু অধিকারীকে এক প্রকার ক্লিনচিট দিয়ে দিলেন এই বিজেপি নেতা।

  • Share this:

#বারাসত: বারাসত শহরে কলোনী মোড়ে সকাল সকাল চায়ে পে চর্চায় সামিল বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু।চাকদায় দলীয় কাজে যাওয়ার পথে চায়ে পে চার্চায় এসে সোচ্চার হলেন ঢিমেতালে চলা চিট ফান্ড নিয়ে সিবিআই তদন্ত বিরুদ্ধে। বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসুর দাবী আদলতের নজরদারিতে তদন্ত চলার কারণেই চিট ফান্ড নিয়ে তদন্ত এত দেরি হচ্ছে। তবে সিবিআইকে তিনি এখন আর কেজড প্যারট (Cagged Parrot) মনে করেন না।তাঁর দাবি বারাসত শহরের সব চিট ফান্ত সংস্থার অফিস রয়েছে।রাজ্য সরকার সিট (SIT) তৈরি করে তথ্য ও প্রমাণ লোপাট করেছে। সর্বসান্ত হয়েছে সাধারণ মানুষ। সিবিআইএর তদন্তে ধীর গতি নিয়ে তিনিও এদিন ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

একই সঙ্গে নারদা কাণ্ড নিয়ে শুভেন্দু অধিকারীকে এক প্রকার ক্লিনচিট দিয়ে দিলেন এই বিজেপি নেতা। তাঁর দাবি তৃণমূলের সাংসদ সৌগত রায়কে নারদার ভিডিও ফুটেছে দেখা গিয়েছে৷ সৌগত রায় কী নিচ্ছেন সেটাও দেখা গিয়েছে। আর সদ্য বিধায়ক পদ ত্যাগ করা শুভেন্দুর অধিকারীকে নারদা ফুটেজে তেমন ছবিতে দেখা যায়নি। সৌগত রায়ের নারদা ফুটেজে কথপোকথন রয়েছে বলে দাবি বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসুর।

তবে নাগরিকত্ব ইস্যুতে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ন ঘোষণাটা এইদিন করেন সায়ন্তন বসু। তাঁর দাবি রাজ্যে বিজেপির সরকার গঠন না হলে সিএএ আইনকে লাগু করাতে সমস্যা আছে। তাই ৩-৪ মাস পর ভোট জিতে রাজ্যে বিজেপির সরকার প্রতিষ্ঠার হলেই উদ্বাস্তু মানুষগুলিকে নাগরিকত্ব দিয়ে দেওয়া হবে। প্রশ্ন ছিল তাহলে বারাসতে কৈলাশ বিজয়বর্গীও ঘোষণা করে গেছেন আগামী জানুয়ারি মাসেই সি এ এ (CAA) লাগু হবে রাজ্যে, তার অর্থ কী ছিল ? তার উত্তরে বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু জানান জানুয়ারি মাসে রাজ্যে সরকার পাল্টালেই সেটা সম্ভব হবে। কারণ নাগরিকত্ব দিতে গেলে পুলিশের একটা ভূমিকা থাকে। সেই কারণে রাজ্যে বিজেপির সরকার প্রতিষ্ঠার পর পুলিশ ও প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণ চলে আসবে তাদের কাছে।তখনই এক মাত্র সুচারু ভাবে সব উদ্বাস্তু মানুষগুলিকে নাগরিকত্ব দেওয়া হবে, দাবি সায়ন্তন বসুর।

Published by:Pooja Basu
First published: