• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • Rasgulla: ডায়াবেটিস দিবসে রসোগোল্লা দিবস! অভিনব পথ বেছে নিল হাওড়ার মিষ্টির দোকান...

Rasgulla: ডায়াবেটিস দিবসে রসোগোল্লা দিবস! অভিনব পথ বেছে নিল হাওড়ার মিষ্টির দোকান...

অভিনব উদযাপন

অভিনব উদযাপন

বিভিন্ন সংস্থা ডায়বেটিক বিরুদ্ধে করলো প্রচার, পাশাপাশি  হাওড়াতে বিলি হলো দশ হাজার রসোগোল্লা |  সাধারণ রসগোল্লার সাথে সাথে বিলি হলো ডায়বেটিক রসোগোল্লা | 

  • Share this:

#কলকাতা: ১৪ নভেম্বর দিনটাই এমন, যে এক কথায় বলা যায় 'বাঘে হরিনে এক ঘটে জল খাওয়া'র মতো | একদিকে বিশ্ব জুড়ে অনুষ্ঠিত হয়  'ডায়বেটিক দিবস',  আরেকদিকে আজকের দিনটি আমাদের রাজ্যে 'রসগোল্লা দিবস' হিসাবে পালিত হয় | চিকিৎসকদের ভাষায় ডায়বেটিক রোগীদের রসগোল্লা খাওয়া মানে বিষপান করার সমান। একদিকে রাজ্য তথা হাওড়া শহর জুড়ে বিভিন্ন হাসপাতাল, নার্সিংহোম সহ ডায়বেটিক সংস্থা থেকে বিভিন্ন জায়গায় পালিত হয়েছে ডায়বেটিক রোধে প্রচার, কোথাও পদযাত্রা, আবার কোথাও গাড়ি বা সাইকেল অভিযানের মধ্যে দিয়ে প্রচার।

সেই প্রচার গুলি থেকে উঠে এসেছে কীভাবে বা কোন কোন খাদ্য থেকে দূরে থাকলে এই ডায়বেটিক রোগ থেকে মুক্ত থাকা যায়। পাশাপাশি  'রসোগোল্লা দিবস' পালনেও ছিল না কোন খামতি | হাওড়ার সালকিয়ার এক প্রসিদ্ধা মিষ্টান্ন ভাণ্ডার 'ব্রজনাথ গ্রান্ড সন্স'-এর তরফে এলাকায়   বিলি করা হল প্রায় ১০ হাজার রসগোল্লা।

আরও পড়ুন: দুপুরে হাইকোর্টে নন্দীগ্রাম মামলার শুনানি, সকালেই অন্য কৌশল শুভেন্দু অধিকারীর!

মিষ্টান্ন ভাণ্ডারের কর্ণধার অভিজিৎ দাস জানান, ২০১৮ সালে আজকের দিনেই ওড়িশার সঙ্গে লড়াই করে পশ্চিমবঙ্গ রসগোল্লার 'জি আই' অর্জন করে নেয়। সেই কারণেই রাজ্য জুড়ে মিষ্টি উদ্যাগের তরফে রসগোল্লা দিবস পালিত হয়। ঠিক একই রকম ভাবে এই দিনটি পালিত হয় ডায়বেটিক দিবস হিসাবে। তিনি বলেন, 'বাঘে হরিণে এক সাথে জল খাওয়ার মতোই অবস্থা বটে | কিন্তু এই বছর আমরা তৈরী করেছি সাধারণ রসগোল্লার পাশাপাশি ডায়বেটিক রসগোল্লা। যা চিনি দিয়ে তৈরী হলেও, এক ধরণের বিশেষ চিনি দিয়ে তৈরী করা হয়েছে। যে চিনিতে শূন্য ক্যালোরি। ফলে স্বাদে একই রকম হলেও ডায়বেটিক রোগীদের কথা মাথায় রেখেই তৈরী করা হয়েছে রসগোল্লা।

আরও পড়ুন: আচমকা 'বায়ো'তে পরিবর্তন, বড় বিস্ফোরণের ইঙ্গিত তথাগত রায়ের! না কি দলত্যাগ?

অন্য দিকে ডায়াবেটিক চিকিৎসক গুরুপ্রসাদ ভট্টাচার্য জানান , সাধারণ চিনি দিয়ে তৈরী  রসোগোল্লা ডায়বেটিক রোগীদের জন্য ক্ষতিকারক। তবে এই বিশেষ ধরণের চিনি দিয়ে তৈরী  রসোগোল্লা খাওয়া যেতেই পারে। তবে তিনি দাবি করেন, অল্প মাত্রায় শরীরে থাকা ডায়বেটিক রোগীরা যদি পায়ে হেঁটে মিষ্টর দোকান থেকে রসগোল্লা খান, তাহলে সেই সমস্যা কিছুটা কমতে পারে। এক কথায়, কষ্ট করে কেষ্ট পাওয়ার মতো। পাঁয়ে হেটে শরীরের ক্যালোরি ঝরিয়ে তারপর রসগোল্লা খেলে কিছুটা ক্ষতির মুখ থেকে রক্ষা পাওয়া যায়।

Published by:Suman Biswas
First published: