Home /News /south-bengal /

কন্যাসন্তান হওয়ায় শ্বশুরবাড়ির অত্যাচারে মানসিক অবসাদে আত্মঘাতী গৃহবধূ !

কন্যাসন্তান হওয়ায় শ্বশুরবাড়ির অত্যাচারে মানসিক অবসাদে আত্মঘাতী গৃহবধূ !

Representational image

Representational image

শ্বশুরবাড়ির লোকজন চেয়েছিল পুত্রসন্তান ৷ কিন্তু শ্বশুড়বাড়ির লোকজনের মনের ইচ্ছে পূরণ করতে পারেননি মিনারা বিবি ৷ একটি ফুটফুটে কন্যা সন্তানের জন্ম দেন তিনি ৷

  • Share this:

    মিনাখাঁ(উত্তর চব্বিশ পরগণা): শ্বশুরবাড়ির লোকজন চেয়েছিল পুত্রসন্তান ৷ কিন্তু শ্বশুড়বাড়ির লোকজনের মনের ইচ্ছে পূরণ করতে পারেননি মিনারা বিবি ৷ একটি ফুটফুটে কন্যা সন্তানের জন্ম দেন তিনি ৷ আর তারপর থেকেই সুখের সংসারে ঘটে ছন্দপতন ৷ কন্যাসন্তান হওয়ায় শুরু হয় শ্বশুড়বাড়ির লোকজনের অত্যাচার ৷ দিনকে দিন বাড়ে অত্যাচারের মাত্রা ৷ যার জেরেই মানসিক অবসাদে আত্মহত্যার পথ বেছে নিলেন মিনারা বিবি ৷ এমন দাবিতেই স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে থানার অভিযোগ দায়ের করেন মিনারা দেবীর পরিবার ৷

    আরও পড়ুন: দুই শিশুকন্যার সামনেই মহিলাকে ধর্ষণ করে খুনের চেষ্টা ৬৫ বছরের প্রৌঢ়ের

    ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর চব্বিশ পরগণার মিনাখাঁ থানার বারগা গ্রামে ৷ মিনারা বিবির বাবা খালেক মোল্লার অভিযোগ, ৬ বছর আগে ওই একই গ্রামের মালেক মোল্লার ছেলে মোজাফ্ফর মোল্লার সঙ্গে বিয়ে হয় মিনারা বিবির ৷ বিয়ের দু’বছর পরই একটি কন্যাসন্তানের জন্ম দেন মিনারা ৷ এরপরই শুরু হয় অত্যাচার ৷ নানা অজুহাতে মিনারার উপরে অত্যাচার চালাত মিনারার শ্বশুরবাড়ির লোকজন ৷ এমনটাই দাবি করেন খালেক মোল্লা ৷ তিনি আরও দাবি করেন, বুধবার সকাল থেকেই অত্যাচারের মাত্রা বাড়ে ৷ সেই অত্যাচার সহ্য করতে না পেরেই রাতে আত্মহত্যা করেন মিনারা বিবি ৷

    পুলিশ এসে ওই মহিলার দেহ উদ্ধার করে বসিরহাট জেলা হাসপাতালে পাঠায় ময়নাতদন্তের জন্য ৷ ইতিমধ্যেই ঘটনাটির তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ ৷ যদিও মিনারা বিবির শ্বশুরবাড়ির লোকজন পলাতক বলে পুলিশ সূত্রে খবর ৷

    First published:

    Tags: North 24 Pargana. Suicide

    পরবর্তী খবর