Home /News /south-bengal /
হাসপাতালের ব্লাড টেস্টে ধরা পড়ল এডস, ভুল রিপোর্টের জেরে আত্মহত্যার চেষ্টা যুবকের

হাসপাতালের ব্লাড টেস্টে ধরা পড়ল এডস, ভুল রিপোর্টের জেরে আত্মহত্যার চেষ্টা যুবকের

নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব চিত্র

রক্ত পরীক্ষার রিপোর্ট বলছে এইচআইভি রিয়েক্টিভ। অবসাদে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন বীরভুমের টিকরবেতার যুবক।

  • Share this:

    #দুর্গাপুর: রক্ত পরীক্ষার রিপোর্ট বলছে এইচআইভি রিয়েক্টিভ। অবসাদে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন বীরভুমের টিকরবেতার যুবক। কাঠগড়ায় দুর্গাপুরের বেসরকারি হাসপাতাল। পরে বর্ধমান ও কলকাতার দুটি আলাদা ল্যাবে ফের রক্ত পরীক্ষা হয় তাঁর। দুটি ক্ষেত্রেই এইচআইভি নন-রিয়েক্টিভ । যদিও রিপোর্ট সঠিক বলেই দাবি করছে দুর্গাপুরের হাসপাতাল। ক্ষোভে ফুঁসছে যুবকের পরিবার ।

    ২৩শে জানুয়ারি এক পরিচিতকে রক্ত দিতে দুর্গাপুরের বেসরকারি হাসপাতালে যান ইলামবাজারের টিকরবেতার বাসিন্দা নাড়ুগোপাল বাদ্যকর। সাতদিন পর ফোনে ফের তাঁকে হাসপাতালে ডেকেপাঠানো হয়। রক্তপরীক্ষা হয় তাঁর।

    ৩ রা ফেব্রুয়ারি তাঁর এইচআইভি রিয়েক্টিভ বলে জানায় হাসপাতাল।অবসাদে প্রথমে বিষ খেয়ে , পরে গলায় গড়ি দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন নাড়ুগোপাল। কোনওরকমে তাঁকে বাঁচান পরিবারের সদস্যরা। বর্ধমান ও কলকাতার দুটি বেসরকারি প্যাথ ল্যাবে ফের তাঁর রক্ত পরীক্ষা হয়। দুটি ক্ষেত্রেই রিপোর্ট এইচআইভি নন-রিয়েক্টিভ আসে।

    দ্বিতীয় রিপোর্টে যাই আসুক, লোকলজ্জায় এখনও ঘর থেকে বেরচ্ছেন না নাড়ুগোপাল। তটস্থ পরিবার। বাড়ছে ক্ষোভ। দুর্গাপুরের বেসরকারি হাসপাতালের পালটা দাবি, তাঁদের স্ক্রিনিং রিপোর্টে যুবকের এইচআইভি রিয়েক্টিভ আসার পর তাঁরা তা নিশ্চিত করতে যুবককে বর্ধমান মেডিক্যালের আইসিটিসিতে রেফার করেছিলেন। দাবি, পাল্টা দাবিতে বাড়ছে বিভ্রান্তি। দুটি প্যাথ ল্যাবের রিপোর্ট হাতিয়ার করে এবার বর্ধমান মেডিক্যালের দ্বারস্থ হচ্ছে যুবকের পরিবার। তারপরই দুর্গাপুর বেসরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে আইনি লড়াইয়ের পথে যাওয়ার কথা ভাবছেন নাড়ুগোপালের পরিবার।
    First published:

    Tags: AIDS, Youth tried to commit suicide

    পরবর্তী খবর