বাঁকুড়ার স্কুলডাঙায় অনন্য নজির, ইদ পালনে একসঙ্গে হিন্দু-মুসলিম

বাঁকুড়ার স্কুলডাঙায় অনন্য নজির, ইদ পালনে একসঙ্গে হিন্দু-মুসলিম

রাত পেরোলেই খুশির ইদ । সারা রমজান মাস ধরে রোজা রাখার পর মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষের কাছে আনন্দে মেতে ওঠার উৎসব ইদ ।

  • Share this:

#বাঁকুড়া: রাত পেরোলেই খুশির ইদ । সারা রমজান মাস ধরে রোজা রাখার পর মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষের কাছে আনন্দে মেতে ওঠার উৎসব ইদ । এই উৎসবে হিন্দু মুসলিম সম্প্রীতির ছবি ধরা পড়ল বাঁকুড়ার স্কুলডাঙ্গা এলাকায় । তবে এটা লোক দেখানো কোনও সম্প্রীতি নয় । বছরের পর বছর ধরে পাশাপাশি থাকতে থাকতে একে অপরের উৎসবকে আপন করার মধ্য দিয়েই নিজেদের উৎসবকে সার্বজনীন রুপ দেন এলাকার মানুষ ।

খুশির ইদে মাততে তৈরি হচ্ছেন গোটা বিশ্বের মুসলিমরা। এ যেন গোটা উ‍ৎসব-আনন্দে ভেসে যাওয়া। তারই মধ্যে এক টুকরো সম্প্রীতির ছবি বাঁকুড়ার স্কুলডাঙায়।

রমজান মাসে এভাবেই জাগানিয়ার কাজ করেন এলাকার কিছু হিন্দু ধর্মালম্বী মানুষ। এলাকার অধিকাংশ মানুষই শ্রমজীবী। আগের দিনে ততটা ঘড়ির চল ছিল না। ভোরের আলো ফোটার আগে পেটে কিছু না দিলে সারাদিন উপোস রাখা কঠিন। সেই ভাবনা থেকেই জাগানিয়ার শুরু। জাগানিয়া এক ধরনের বিশেষ গান। জাগানিয়া গান শুনেই ঘুম ভাঙে এলাকাবাসীর। পেটে সামান্য কিছু দিয়ে শুরু হয় সারাদিনের লড়াই।

হিন্দু-মুসলিমের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ইদ পালন। অনন্য নজির তৈরি করলেন বাঁকুড়ার স্কুলডাঙার মানুষ।

ইদের আগে এলাকার মানুষ নিজের নিজের ক্ষমতা অনুযায়ী এই জাগানিয়াদের হাতে তুলে দেন কিছু কিছু অর্থ । তবে সামান্য সেই অর্থের লোভে নয় প্রতিবেশী ধর্ম প্রান মুসলিম বাসিন্দাদের ধর্মপালনের অন্যতম আচার এই রোজা পালনে সহায়তা করার উদ্যেশ্য নিয়েই এই জগানিয়া দলে যোগ দেন এলাকার হিন্দু যুবকেরাও । দেশের বিভিন্ন জায়গায় যখন সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার মতো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটছে সেইসময় বাঁকুড়ার স্কুলডাঙ্গা এলাকায় হিন্দু মুসলিম সম্প্রদায়ের এই সম্প্রীতি নিশ্চিত ভাবেই নজির হয়ে ওঠার দাবি রাখে ।

First published: 12:52:28 PM Jun 24, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर