Bengal Assembly Election 2021 Third Phase: তৃতীয় দফার ভোটে একঝাঁক হেভিওয়েটের অগ্নিপরীক্ষা! চমকে ভরা তালিকা দেখুন...

Bengal Assembly Election 2021 Third Phase: তৃতীয় দফার ভোটে একঝাঁক হেভিওয়েটের অগ্নিপরীক্ষা! চমকে ভরা তালিকা দেখুন...

হেভিওয়েটদের পরীক্ষা

তৃতীয় দফায় শাসক, বিরোধী সব শিবিরেরই একাধিক হেভিওয়েটের অগ্নিপরীক্ষা হতে চলেছে। দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলির মোট ৩১ আসনে হতে চলেছে তৃতীয় দফার ভোট।

  • Share this:
    #কলকাতা: দু'দফার ভোট সম্পন্ন হয়েছে। তৃণমূল, বিজেপি-প্রত্যেকেরই দাবি, প্রথম দু'দফার ৬০ আসনের সিংহভাগই গিয়েছে তাঁদের দখলে। এই পরিস্থিতিতে তৃতীয় দফার ভোট মঙ্গলবার। আর সেই তৃতীয় দফায় শাসক, বিরোধী সব শিবিরেরই একাধিক হেভিওয়েটের অগ্নিপরীক্ষা হতে চলেছে। দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলির মোট ৩১ আসনে হতে চলেছে তৃতীয় দফার ভোট। একনজরে দেখে নেওয়া যাক, মঙ্গলবার কারা নামছেন ভোট পরীক্ষায়। সুজাতা মণ্ডল: স্বামী এখনও বিজেপি সাংসদ। কিন্তু ভোটের মাস কয়েক আগেই স্বামী সৌমিত্র খাঁয়ের দল ছেড়ে তৃণমূলে নাম লেখান সুজাতা খাঁ। বিজেপিতেও তাঁর সাংগঠনিক ক্ষমতা সমাদৃত ছিল। তৃণমূল যোগ দেওয়া মাত্রই নানা গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব তাঁকে দেওয়া হতে থাকে। আর এরপরই আরামবাগের তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে সুজাতার নাম ঘোষণা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আরামবাগ দখলে রাখতে সুজাতার দিকেই তাকিয়ে তৃণমূল। তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপির মধুসূদন বাগ। প্রসঙ্গত, ২০১৬ নির্বাচনে এই কেন্দ্র থেকে তৃণমূল প্রার্থী কৃষ্ণচন্দ্র সাঁতরা ৫০ শতাংশেরও বেশি ভোট পেয়েছিলেন। সুজাতা মণ্ডল খাঁ সুজাতা মণ্ডল খাঁ স্বপন দাশগুপ্ত: ছিলেন বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ। সেখান থেকে সটান তারকেশ্বরের মতো কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী। অনেকেই বলছেন, বিজেপি সরকার গড়লে স্বপন দাশগুপ্তের নাম মুখ্যমন্ত্রী পদের জন্যও আলোচনায় আসতে পারে। বিদেশ ফেরত শিক্ষিত, সাংবাদিক হিসেবে কাজ করার অভিজ্ঞতা, স্বচ্ছ ভাবমূর্তি, সব মিলিয়ে স্বপনকে নিয়ে বড় আশা দেখছে বিজেপি। তাঁর জন্য সভা করে গিয়েছেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তারকেশ্বরের হিন্দু ভোটের দিকে নজর বিজেপির। স্বপনকে কাজে লাগিয়েই তা দখল করতে চাইছে গেরুয়া শিবির। স্বপন দাশগুপ্ত স্বপন দাশগুপ্ত কান্তি গঙ্গোপাধ্যায়: রায়দিঘির 'ঈশ্বর' বলে ডাকা হত তাঁকে। দীর্ঘদিনের রাজনীতিক, মন্ত্রী। কিন্তু ২০১১ সালে পরিবর্তনের জোয়ারে হেরে যান কান্তি বাবু। তাঁকে হারিয়ে জয়ী হন তৃণমূলের দেবশ্রী রায়। দুবারের ওই কেন্দ্রের বিধায়ক দেবশ্রীকে এবার প্রার্থী করেননি মমতা। অথচ রায়দিঘি থেকে প্রার্থী হয়েছেন কান্তি বাবু। এবার কান্তি গঙ্গোপাধ্যায়ের লড়াই তৃণমূলের অলোক জলদাতা এবং বিজেপি প্রার্থী শান্তনু বাপুলির সঙ্গে। প্রবীণ কান্তি বাবু এখনও ছুটছেন ভোটের তাগিদে। কষ্ট কাজে এল কিনা, তার প্রমাণ মিলবে ২ মে। কান্তি গঙ্গোপাধ্যায় কান্তি গঙ্গোপাধ্যায় বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়: বারুইপুর পশ্চিম কেন্দ্র থেকে পরপর ২ বার জিতেছেন বিধায়ক বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। বিধানসভার বিদায়ী স্পিকার বিমানবাবুর এবারের প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপির দেবোপম চট্টোপাধ্যায় ও সংযুক্ত মোর্চার সিপিএম প্রার্থী লাহেক আলি। ২০১৬ সালে ৩০ হাজার ভোটে জিতলেও এবার ওই অঞ্চলে শক্তি অনেকটাই বাড়িয়েছে বিজেপি। সেই কারণেই বড় পরীক্ষার মুখে বিমান। বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় তনুশ্রী চক্রবর্তী: সদ্য যোগ দিয়েছেন বিজেপিতে। আর তারপরই হাওড়ার শ্যামপুরের দলীয় প্রার্থী। অভিনয় জীবনে এখনও তুঙ্গ সাফল্য আসেনি তাঁর। রাজনীতিতে কি আসবে? মিঠুন চক্রবর্তীকে নিয়ে গিয়ে নিজের এলাকায় রোড শো করিয়েছেন। ২০১৬ সালে তৃণমূল প্রার্থী কালীপদ মণ্ডল ১ লাখেরও বেশি ভোট পেয়ে জিতেছিলেন ওই কেন্দ্রে। এবারও তিনিই তৃণমূলের প্রার্থী। ফলে কঠিন লড়াই তনুশ্রীর জন্য। তনুশ্রী চক্রবর্তী তনুশ্রী চক্রবর্তী
    Published by:Suman Biswas
    First published: