আকর্ষণ বাড়াতে হায়না, নেকড়ে আসছে রমনাবাগান অভয়ারণ্যে 

আকর্ষণ বাড়াতে হায়না, নেকড়ে আসছে রমনাবাগান অভয়ারণ্যে 
বর্ধমান জুলজিকাল পার্ক

এবার হায়না, নেকড়ে আসছে বর্ধমানের রমনাবাগান অভয়ারণ্যে। আকর্ষণ বাড়াতে ইতিমধ্যেই দুটি চিতাবাঘ, একটি কুমির-সহ বিভিন্ন পশুপাখি আনা হয়েছে।

  • Share this:

#বর্ধমান: এবার হায়না, নেকড়ে আসছে বর্ধমানের রমনাবাগান অভয়ারণ্যে। আকর্ষণ বাড়াতে ইতিমধ্যেই দুটি চিতাবাঘ, একটি কুমির-সহ বিভিন্ন পশুপাখি আনা হয়েছে। আরও আকর্ষণ বাড়াতে হায়না ও নেকড়ে আনার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। আনা হচ্ছে আরও পাঁচটি কুমিরও। সব মিলিয়ে আরও সুন্দর করে সাজিয়ে তোলা হচ্ছে বর্ধমানের গোলাপবাগের রমনাবাগান অভয়ারণ্য।

গত কয়েক বছর ধরেই বন দফতর রমনাবাগান অভয়ারণ্যের আকর্ষণ বাড়াতে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। তাদের সহযোগিতা করছে জু অথরিটি অব ইন্ডিয়া। নতুন করে তৈরি করা হয় ‘এনক্লোজার।’ আনা হয় চিতাবাঘ সহ নানা পশু-পাখি। এখন নেকড়ে ও হায়নার জন্য এনক্লোজার তৈরির কাজ চলছে। কুমিরের জলাশয়টিকেও বাকিগুলির থাকার মতো উপযুক্ত করে গড়ার কাজ চলছে। চিতাবাঘের টানে ভিড় বাড়ছে পর্যটকদের।

বর্ধমান জুলজিকাল পার্কে হরিণের দল বর্ধমান জুলজিকাল পার্কে হরিণের দল

বন দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, আগের থেকে এই অভয়ারণ্যে দর্শকদের ভিড় বেড়েছে। এখন প্রতিদিন গড়ে পাঁচশো দর্শক আসেন এই চিড়িয়াখানায়। তাতে চিড়িয়াখানায় ভাল আয়ও হচ্ছে। ছুটির দিনগুলিতে ভিড় থাকে অনেক বেশি। ‘কালী’ ও ‘ধ্রুব’ নামে চিতাবাঘ দুটি আসার পর থেকে দর্শকদের ভিড় বেড়েছে অনেকটাই। আর স্বাভাবিকভাবে এই আকর্ষণেই বাবা মায়ের হাত ধরে আসছে কিশোর কিশোরীরা। বর্ধমানের গোলাপবাগের অন্যতম আকর্ষণ এখন রমনাবাগান।

বন দফতর আধিকারিকরা মনে করছেন, নেকড়ে ও হায়না এসে গেলে চিড়িয়াখানার আকর্ষণ আরও বাড়বে। আগামী মার্চের মধ্যেই সেগুলিকে নিয়ে আসার চেষ্টা চলছে। এনক্লোজার দুইটি গড়ার কাজ দ্রুত শেষ করতে কাজের গতি বাড়ানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এমনিতেই প্রচুর হরিণ, নানা প্রজাতির পাখিও রয়েছে এখানে।

বর্ধমান শহরের গোলাপবাগের পাশেই রয়েছে এই রমনাবাগান। বিশাল এলাকাজুড়ে রয়েছে রাজ আমলে বসানো বিভিন্ন প্রজাতির প্রচুর গাছ। রাজ আমলে দেশ বিদেশের গোলাপ এনে সাজানো হয়েছিল এলাকা। নাম তাই গোলাপবাগ। এখানেই ছিল রাজবাড়ি নির্মিত চিড়িয়াখানা। রাজ আমল বিলোপ ঘটায় চিড়িয়াখানার পশুপাখি বন দফতরকে দিয়ে দেওয়া হয়। তা দিয়েই পথ চলা শুরু রমনাবাগান অভয়ারণ্যের। ধীরে ধীরে আকর্ষণীয় হয়ে উঠছে বর্ধমানের এই চিড়িয়াখানা।

SHARADINDU GHOSH

First published: February 18, 2020, 6:31 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर