ছেড়ে দিতে হবে জঙ্গলে, তবু মাতৃস্নেহেই ৩টি ময়ূরছানা বড় করছে বেলডাঙার হাঁসদা পরিবার

তিনটি ময়ূরের খাবারের জন্য প্রতিদিন জঙ্গল থেকেই পোকা মাকড় খুঁজে নিয়ে আসেন সুখলাল হাঁসদা।

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 05, 2019 08:41 PM IST
ছেড়ে দিতে হবে জঙ্গলে, তবু মাতৃস্নেহেই ৩টি ময়ূরছানা বড় করছে বেলডাঙার হাঁসদা পরিবার
photo: Peacock
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 05, 2019 08:41 PM IST

#আসানসোল: জঙ্গলে কুড়িয়ে পেয়েছিলেন চারটি ডিম। সেই ডিম ফুটেই বেরয় ময়ূর ছানা। ময়ূরের তিনটি ছানাকেই এখন বড় করে তুলছেন আসানসোল ঢাকেশ্বরীর, বেলডাঙা আদিবাসী গ্রামের ঠাকুর হাঁসদার পরিবার। তবে আটকে রাখা নয়। ময়ূরগুলি বড় হলে ফের জঙ্গলে ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাঁরা। ময়ূর দেখতে ঠাকুর হাঁসদার বাড়িতে ভিড় জমাচ্ছেন অন্য গ্রামের বাসিন্দারাও।

আসানসোলের ঢাকেশ্বরী লাগোয়া বেলডাঙা আদিবাসী গ্রামের বাসিন্দা সুখলাল হাঁসদা। চলতি বছরের জুন মাসে জঙ্গল থেকে কুড়িয়ে পান চারটি ময়ূরের ডিম। চারটি ডিম ফুটেই বাচ্চা হয়। কিন্তু এরমধ্যেই একটি বাচ্চাকে তুলে নিয়ে যায় চিল। তারপর থেকে বাকি তিনটি বাচ্চাকে আর চোখের আড়াল করেনি হাঁসদা পরিবার।

তিনটি ময়ূরের খাবারের জন্য প্রতিদিন জঙ্গল থেকেই পোকা মাকড় খুঁজে নিয়ে আসেন সুখলাল হাঁসদা। ময়ূর দেখতে প্রতিদিন বেলডাঙার আদিবাসী গ্রামে ভিড় জমাচ্ছেন অন্য গ্রামের বাসিন্দারাও।

বন্যেরা বনে সুন্দর। শিশুরা মাতৃ ক্রোড়ে। তাই এই তিনটি ময়ূরকে আটকে রাখা নয়। মাতৃ স্নেহেই এই ময়ূরদের বড় করে জঙ্গলে ছেড়ে দেবে হাঁসদা পরিবার।

First published: 08:41:12 PM Sep 05, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर