প্রচেষ্টা প্রকল্পের জন্য হাতে লেখা আবেদন গ্রাহ্য নয়, জানাল এই জেলা প্রশাসন

প্রচেষ্টা প্রকল্পের জন্য হাতে লেখা আবেদন গ্রাহ্য নয়, জানাল এই জেলা প্রশাসন

জেলা প্রশাসনের আধিকারিকরা বলেছেন, এখনই আবেদন পত্র নিয়ে জেলা শাসক বা মহকুমা শাসকের অফিসে দাঁড়ানোর প্রয়োজন নেই।

জেলা প্রশাসনের আধিকারিকরা বলেছেন, এখনই আবেদন পত্র নিয়ে জেলা শাসক বা মহকুমা শাসকের অফিসে দাঁড়ানোর প্রয়োজন নেই।

  • Share this:

#বর্ধমান: রাজ্য সরকারের প্রচেষ্টা প্রকল্পের জন্য আবেদন করতে হবে অনলাইনে। কোনও রকম লিখিত আবেদন গ্রাহ্য হবে না। এমনটাই জানিয়ে দিল পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন। অন লাইনে আবেদনপত্র এখনও চূড়ান্ত হয়নি। কিছু কাজ এখনও বাকি রয়েছে। তাই এই প্রকল্প এখনও চালু করা যায়নি। তবুও বেশ কিছু শ্রমিক দলে দলে বিভিন্ন প্রশাসনিক অফিসে ভিড় করছেন। লক ডাউন ভেঙে তাঁদের যাতে আবেদন জমা দিতে বাইরে আসতে না হয় সেই জন্যই এই অন লাইন ব্যবস্থা বলে জেলা প্রশাসন জানিয়েছে ।

জেলা প্রশাসনের আধিকারিকরা বলেছেন, এখনই আবেদন পত্র নিয়ে জেলা শাসক বা মহকুমা শাসকের অফিসে দাঁড়ানোর প্রয়োজন নেই। অন লাইনে সেই পরিষেবা চালু হলেই তা জেলার বাসিন্দাদের জানিয়ে দেওয়া হবে।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে লক ডাউনের জেরে কাজ হারিয়েছেন অনেকেই। অনেকেরই উপার্জন বন্ধ। তার ফলে সংসার চালানোই তাদের পক্ষে দায় হয়ে উঠেছে। সেই সব অসংগঠিত শ্রমিকদের জন্য রাজ্য সরকার মাথা পিছু এক হাজার টাকা করে বিশেষ ভাতা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে প্রচেষ্টা প্রকল্পে। সেই প্রকল্পের আওতায় আসার জন্য আবেদন পত্র জমা দিতে সোমবার থেকে বর্ধমানের বিভিন্ন প্রশাসনিক অফিসে, বিডিও অফিসগুলিতে বাসিন্দাদের হিড়িক  পড়ে যায়। সোমবার কাটোয়ার মহকুমা শাসকের অফিসেও প্রচুর মানুষ  ভিড় করেন। ভিড়  সামলাতে হিমসিম খেতে হয় পুলিশকে। লক ডাউন ভেঙে বহু মানুষ এক সঙ্গে অফিসে ভিড় করায় কপালে ভাঁজ পড়ে প্রশাসনিক কর্তাদের। ভিড় সামলাতে কার্যত হিমশিম খেতে হয় পুলিশ প্রশাসনকে। বিভিন্ন বিডিও অফিসেও বহু শ্রমিকের জমায়েতের খবর আসতে শুরু করে। সবাই লিখিত আবেদনপত্র নিয়ে হাজির হন বিভিন্ন প্রশাসনিক অফিসে।

এরপরই জেলা শাসকের অফিস থেকে জানিয়ে দেওয়া হয় লিখিত আবেদন গ্রাহ্য হবে না।অন লাইনে ফরম পূরণ করতে হবে অসংগঠিত শ্রমিকদের। তা বিবেচনা করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে রাজ্য সরকার। পূর্ব বর্ধমানের জেলা শাসক বিজয় ভারতী জানান, অন লাইনে আবেদনের ফরম তৈরি করার কাজ চলছে। কিছু কাজ এখনো বাকি আছে। সেই জন্য আপাতত প্রচেষ্টা প্রকল্প চালু করা যাচ্ছে না। খুব তাড়াতাড়ি অন লাইনে এই আবেদন করা যাবে। সেই আবেদনের ভিত্তিতে প্রকৃত অসংগঠিত শ্রমিকদের এই প্রকল্পের আওতায় পরিষেবা প্রদান করা হবে।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published: