উত্তপ্ত সালার! বঙ্গধ্বনি সভা ঘিরে দুই গোষ্ঠীর ব্যাপক সংঘর্ষ, গুরুতর আহত ৪

উত্তপ্ত সালার! বঙ্গধ্বনি সভা ঘিরে দুই গোষ্ঠীর ব্যাপক সংঘর্ষ, গুরুতর আহত ৪

সালারে তৃণমূলের বঙ্গধ্বনি সভায় গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব। জখম চার তৃণমূল কর্মী।মুর্শিদাবাদ জেলার সালার থানার অন্তর্গত উজুনিয়া গ্রামে তৃণমূলের বঙ্গধ্বনি সভাতে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব।

সালারে তৃণমূলের বঙ্গধ্বনি সভায় গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব। জখম চার তৃণমূল কর্মী।মুর্শিদাবাদ জেলার সালার থানার অন্তর্গত উজুনিয়া গ্রামে তৃণমূলের বঙ্গধ্বনি সভাতে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব।

  • Share this:

#সালার: সালারে তৃণমূলের বঙ্গধ্বনি সভায় গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব। জখম চার তৃণমূল কর্মী।মুর্শিদাবাদ জেলার সালার থানার অন্তর্গত উজুনিয়া গ্রামে তৃণমূলের বঙ্গধ্বনি সভাতে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব। জখম হন চার তৃণমূল কর্মী। আক্রান্ত অবস্থায় চারজনকে কান্দি মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে চিকিৎসা জন্য।

সালার ব্লক যুব তৃণমূল সভাপতি আনারুল ইসলাম গোষ্ঠীর সঙ্গে সালার ব্লক সভাপতি তথা সালার পঞ্চায়েত সমিতির পুর্ত ও পরিবহন কর্মাধ্যক্ষ মহঃ আজাহার উদ্দিন সিজার মিঞা গোষ্ঠীর সংঘর্ষ। জখম হয়েছেন মোট চারজন যুব তৃণমূল কর্মী। আক্রান্তদের নাম আলিম সেখ, রাজা সেখ, এলিম সেখ ও সাইন সেখ কে কান্দি মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে চিকিৎসা জন্য।

বুধবার দুপুরে মুর্শিদাবাদের সালারে বঙ্গধ্বনি যাত্রাকে কেন্দ্র করে হাতাহাতি তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর। গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে এই ঘটনা বলে দাবি স্থানীয় বাসিন্দাদের।  অপরদিকে, এই ঘটনার পর এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় বিশাল পুলিশবাহিনী। পুলিশ পৌঁছনোর পর  আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে সালার ব্লক হাসপাতাল পরে কান্দি মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। নির্বাচনের আগেই ফের এই এলাকায় ঝামেলার আশঙ্কায় সালার থানার পুলিশ ও র‍্যাফ মোতায়েন করা হয়েছে। যদিও ঘটনার জন্য এলাকার বাসিন্দারা বর্তমান তৃণমূল সভাপতি এবং তার অনুগামীদের প্রতি অভিযোগের আঙুল তুলেছেন।

ইতিমধ্যেই ঘটনায় আহতদের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে সালার থানার পুলিশ। তৃণমূল নেতা অশোক দাস বলেন, ছোট একটা ঘটনা ঘটেছিল। আমরা পুরো ঘটনার খবর নিচ্ছি। দল তদন্ত করে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেবে। এই ধরনের ঘটনা মেনে নেওয়া যাবে না। ইতিমধ্যে গ্রামের তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে।

Pranab Kumar Banerjee

Published by:Shubhagata Dey
First published: