• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • মুম্বই থেকে ফিরে তিন মাস বাড়িতে বসে বেকার সোনার কারিগর, কী করে ফিরবেন জীবনে

মুম্বই থেকে ফিরে তিন মাস বাড়িতে বসে বেকার সোনার কারিগর, কী করে ফিরবেন জীবনে

Photo- Representative

Photo- Representative

বাড়িতে ফিরে বিপাকে সোনার কারিগর,কাজ না থাকায় বাড়ছে হতাশা

  • Share this:

    #মুম্বই: এতদিন মুম্বইয়ে সোনার কারিগররের কাজ করতেন৷ কিন্তু, লকডাউনের কারণে উলুবেড়িয়ায় গ্রামের বাড়িতে ফিরে এসেছেন সৌরভ রায়৷ কিন্তু, এখানেও কাজ নেই৷ তিন মাস ধরে বাড়িতে বসে বাড়ছে হতাশা৷ তাই সৌরভ চান, আবার স্বাভাবিক হোক সব৷ ফিরতে চান কাজে৷

    হাতের কাজের জোশেই সুদূর মুম্বইয়ে পাড়ি দিয়েছিলেন৷ কিন্তু, করোনা-লকডাউনে সব ওলটপালট৷ কাজ হারিয়ে ঘরে ফিরেছেন হাওড়ার উলুবেড়িয়ার হীরাপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের কাজিয়াখালি গ্রামের সৌরভ রায়৷ মুম্বইয়ে সোনার গয়নার কারিগরের কাজ করতে করতে স্বপ্ন বেঁধেছিলেন নতুন করে জীবন গড়ার৷ বাবা-মার পাশে দাঁড়িয়ে একচিলতে ঘরটাকে বড় করার স্বপ্ন তখন চোখেমুখে৷ কিন্তু, করোনার কারণে গিয়েছে কাজ৷ বিদেশ বিভুঁই ছেড়ে বাধ্য হয়ে ফিরেছেন গ্রামে৷ কিন্তু, তিন মাস বসে৷ কাজ নেই৷ তিল তিল করে যে স্বপ্নগুলো দেখতে শুরু করেছিলেন, তা নিমেষে শেষ! এখন আবার পেটের টানেই ফিরতে চান সৌরভ৷ চান, মুম্বইয়ে সোনার কারিগরের কাজে যোগ দিতে৷

    বাবা ফুচকা বিক্রেতা৷ বাড়িতে আরও এক ভাই৷ সঙ্গে মা৷ অভাবের সংসার৷ দিন যত এগোচ্ছে ততই বাড়ছে দুশ্চিন্তা৷ আগামী দিনগুলো কী ভাবে চলবে তাই ভেবে উঠতে পারছেন না সৌরভ৷ হয়তো গ্রামে একশো দিনের কাজ আছে৷ কিন্তু, যে হাত এতদিন সোনার সূক্ষ্ম ডিজাইন আর বুননের কাজে ব্যস্ত ছিল, তা কী করে কোদাল নিয়ে মাটি খুঁড়বে? এটাই বুঝে উঠতে পারছে না সৌরভ৷ তবু মায়ের মন চায়, ছেলে থাকুক গ্রামে৷ দূরে গেলে আবার যে দুশ্চিন্তা৷

    সৌরভের ইচ্ছে শুনে কেঁদে ওঠে মায়ের মন৷ করোনার বিপদ যে এখনও কাটেনি৷ কিন্তু বাস্তব বলছে, যে স্বপ্নগুলো আরব সাগরের দেশে দেখেছিলেন সৌরভ, তা গঙ্গায় এসে ভাসিয়ে দেবেন কী করে?

    Published by:Debalina Datta
    First published: