দক্ষিণবঙ্গ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

মুম্বই থেকে ফিরে তিন মাস বাড়িতে বসে বেকার সোনার কারিগর, কী করে ফিরবেন জীবনে

মুম্বই থেকে ফিরে তিন মাস বাড়িতে বসে বেকার সোনার কারিগর, কী করে ফিরবেন জীবনে
Photo- Representative

বাড়িতে ফিরে বিপাকে সোনার কারিগর,কাজ না থাকায় বাড়ছে হতাশা

  • Share this:

#মুম্বই: এতদিন মুম্বইয়ে সোনার কারিগররের কাজ করতেন৷ কিন্তু, লকডাউনের কারণে উলুবেড়িয়ায় গ্রামের বাড়িতে ফিরে এসেছেন সৌরভ রায়৷ কিন্তু, এখানেও কাজ নেই৷ তিন মাস ধরে বাড়িতে বসে বাড়ছে হতাশা৷ তাই সৌরভ চান, আবার স্বাভাবিক হোক সব৷ ফিরতে চান কাজে৷

হাতের কাজের জোশেই সুদূর মুম্বইয়ে পাড়ি দিয়েছিলেন৷ কিন্তু, করোনা-লকডাউনে সব ওলটপালট৷ কাজ হারিয়ে ঘরে ফিরেছেন হাওড়ার উলুবেড়িয়ার হীরাপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের কাজিয়াখালি গ্রামের সৌরভ রায়৷ মুম্বইয়ে সোনার গয়নার কারিগরের কাজ করতে করতে স্বপ্ন বেঁধেছিলেন নতুন করে জীবন গড়ার৷ বাবা-মার পাশে দাঁড়িয়ে একচিলতে ঘরটাকে বড় করার স্বপ্ন তখন চোখেমুখে৷ কিন্তু, করোনার কারণে গিয়েছে কাজ৷ বিদেশ বিভুঁই ছেড়ে বাধ্য হয়ে ফিরেছেন গ্রামে৷ কিন্তু, তিন মাস বসে৷ কাজ নেই৷ তিল তিল করে যে স্বপ্নগুলো দেখতে শুরু করেছিলেন, তা নিমেষে শেষ! এখন আবার পেটের টানেই ফিরতে চান সৌরভ৷ চান, মুম্বইয়ে সোনার কারিগরের কাজে যোগ দিতে৷

বাবা ফুচকা বিক্রেতা৷ বাড়িতে আরও এক ভাই৷ সঙ্গে মা৷ অভাবের সংসার৷ দিন যত এগোচ্ছে ততই বাড়ছে দুশ্চিন্তা৷ আগামী দিনগুলো কী ভাবে চলবে তাই ভেবে উঠতে পারছেন না সৌরভ৷ হয়তো গ্রামে একশো দিনের কাজ আছে৷ কিন্তু, যে হাত এতদিন সোনার সূক্ষ্ম ডিজাইন আর বুননের কাজে ব্যস্ত ছিল, তা কী করে কোদাল নিয়ে মাটি খুঁড়বে? এটাই বুঝে উঠতে পারছে না সৌরভ৷ তবু মায়ের মন চায়, ছেলে থাকুক গ্রামে৷ দূরে গেলে আবার যে দুশ্চিন্তা৷

সৌরভের ইচ্ছে শুনে কেঁদে ওঠে মায়ের মন৷ করোনার বিপদ যে এখনও কাটেনি৷ কিন্তু বাস্তব বলছে, যে স্বপ্নগুলো আরব সাগরের দেশে দেখেছিলেন সৌরভ, তা গঙ্গায় এসে ভাসিয়ে দেবেন কী করে?

Published by: Debalina Datta
First published: July 8, 2020, 5:15 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर