• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • লাইভ সুইসাইড! গলায় ওড়না লাগিয়ে আত্মহত‍্যা করার আগে প্রেমিককে সেলফি

লাইভ সুইসাইড! গলায় ওড়না লাগিয়ে আত্মহত‍্যা করার আগে প্রেমিককে সেলফি

representative image

representative image

লাইভ সুইসাইড! আত্মহত্যার আগের মুহূর্তে ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রেমিকের ওয়ালে পোস্ট করলেন প্রেমিকা

  • Share this:

    #নানুর: লাইভ সুইসাইড! গলায় ওড়না লাগিয়ে আত্মহত‍্যা করার আগে প্রেমিককে সেলফি। তারপর ফোনে প্রেমিকের সঙ্গে কথা। কথা বলতে বলতেই সব শেষ। মৃত তরুণীর পরিবার প্রেমিকের বিরুদ্ধে আত্মহত‍্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ দায়ের করেছে। গত ৬ মে নানুর থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। কিন্তু, এখনও অভিযুক্ত যুবক পলাতক।

    গত ৫ মে নানুরের বাসিন্দা, বোলপুর কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী গলায় ওড়না লাগিয়ে আত্মহত‍্যা করেন বলে পরিবারের দাবি। পরের দিনই বছর ২২-এর প্রকাশ দাসের বিরুদ্ধে নানুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তরুণীর পরিবারের সদস্যরা। তরুণীর মোবাইল ফোনটিও পুলিশের হাতে তুলে দেন তাঁরা। পরিবারের তরফে অভিযোগ, যুবক নিজেকে পরিচালক বলে ফেসবুকে ভুয়ো প্রোফাইল তৈরি করে। তরুণীকে স্বপ্ন দেখায় ফিল্ম-সিরিয়ালে অভিনয়ের সুযোগ করে দেওয়ার। সেই মতো তরুণীর ছবি তোলা হয়। এরপরই ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ছবি ফাঁস করে দেওয়ার কথা বলে ব্ল‍্যাকমেল করা হত। পরিবারের দাবি, এই চাপেই শেষমশ আত্মহত‍্যা করতে হল তরুণীকে

    শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত প্রেমিককে চেয়েছিলেন তরুণী। গলায় ওড়নার ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যার আগে সেলফি তুলে পাঠিয়েছিলেন প্রেমিককে।

    অভিযুক্ত যুবকের বাড়ি বোলপুরের রাইপুরে। সে বোলপুর কলেজেরই ছাত্র। সেই সূত্রেই তরুণীর সঙ্গে সম্পর্ক ছিল।

    মৃত তরুণীর বাবার কথায়, '' আমার মেয়েকে প্রলোভন দিয়েছিল সিনেমা ও সিরিয়ালে সুযোগ করে দেব...ফেসবুক প্রফোলাইলে ডিরেক্টর বলে পরিচয়...ছবি তুলেছিল। সেই ছবি ফাঁস করে দেওয়ার হুমকি...তার জেরেই আত্মহত‍্যা।''

     ৬ মে যুবকের বিরুদ্ধে আত্মহত‍্যায় প্ররোচনার অভিযোগ দায়ের করা হয় নানুর থানায়। কিন্তু, আজও পুলিশ তাঁকে ধরতে পারেনি। মৃতের মা-বাবার এখন একটাই দাবি, বিচার চাই। দোষীর শাস্তি চাই।

    আরও পড়ুন-টেট বিক্ষোভে ৩ হাজার পুরুষ ৮০ মহিলার বিরুদ্ধে এফআইআর যোগী রাজ্যে

    First published: