বাবা বিকালে ঘুরতে না নিয়ে যাওয়ার পরই ৯ বছরের শিশুর অস্বাভাবিক মৃত্যু ,শোকের ছায়া পরিবারে

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার গাইঘাটা থানার চিকনপাড়া এলাকায়

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Jul 23, 2019 11:49 PM IST
বাবা বিকালে ঘুরতে না নিয়ে যাওয়ার পরই ৯ বছরের শিশুর অস্বাভাবিক মৃত্যু ,শোকের ছায়া পরিবারে
representative image
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Jul 23, 2019 11:49 PM IST

#চিকনপাড়া: নয় বছরের বাচ্চা মেয়ে বাবাকে বলেছিল বাবা আমাকে ঘুরতে নিয়ে চল, ঘুরতে না নিয়ে গিয়ে পড়তে বলেছিল বাবা। আর সেই অভিমানে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহতা করে বলে পরিবারের দাবি । মৃতার নাম ঋদ্ধি রায়(৯)। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার গাইঘাটা থানার চিকনপাড়া এলাকায়।

 সূত্রের খবর, চিকনপাড়ার বাসিন্দা রথীন্দ্র নাথ রায়ের  একমাত্র মেয়ে ঋদ্ধি, চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী ছিল ।  গত তিন বছর মা তাদের সঙ্গে থাকে না। ফলে একমাত্র মেয়েই সব ছিল রথিনের কাছে। মেয়ে যখন যা চাইত সব অভাব  পূরণ করত সে, কখনও মায়ের অভাব বুঝতে দিতেন  না ছোট্ট ঋদ্ধিকে। প্রায় প্রতিদিন কাজ থেকে বাড় ফিরে বিকালে মেয়েকে নিয়ে ঘুরতে বেড় হত রথিন।

২২ জুলাই বিকেলে ছোট্ট ঋদ্ধি বাবার কাছে আবদার করেছিল ঘুরতে যাওয়ার। নিজের কাজ থাকার ফলে মেয়েকে নিয়ে বেড়তে পারেননি রথিন, তাই ঠাকুমার কাছেই ছোট্ট মেয়েকে রেখে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন বাবা ।

বাড়িতে ঋদ্ধি ও তার ঠাকুমা ছিল। ছোট্ট মেয়ে তার ঘরে বসে খেলছে ভেবেছিল তার ঠাকুমা। কিছু সময় পর ঋদ্ধিকে খেতে ডাকতে তার ঘরে যায় ঠাকুরমা। দরজা খুলে তিনি দেখেন ছোট্ট ঋদ্ধি ঘরের জানালার সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগিয়ে অচৈতন্য অবস্থায় ঝুলে রয়েছে। তাড়াতাড়ি তাকে উদ্ধার করে চাঁদপাড়া প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে গেলে ডাক্তার তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন, যা মেনে নিতে পারেনি ঋদ্ধির পরিবার। ডাক্তারের কথা না মেনে জোরপূর্বক তাকে বনগাঁ হাসপাতালে নিয়ে যায় তার পরিবার। সেখানেও ডাক্তার তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে। নিমেষেই অন্ধকার নেমে আসে রায় পরিবারে। মর্মান্তিক এই ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

First published: 11:48:09 PM Jul 23, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर