Home /News /south-bengal /
একদিনের বাচ্চাকে নিয়ে রাস্তায় তরুণী মা! সামনে গলা জল, তারপর...

একদিনের বাচ্চাকে নিয়ে রাস্তায় তরুণী মা! সামনে গলা জল, তারপর...

একদিনের শিশু কোলে জলযাত্রা মায়ের...

একদিনের শিশু কোলে জলযাত্রা মায়ের...

সদ্যোজাত এক দিনের সন্তানকে কোলে করে বাড়ি ফিরছে সদ্য মা হওয়া ঘাটালের সুখচন্দ্রপুরের তরুণী।

  • Share this:

#ঘাটাল: অসহায়তা কোথায় গিয়ে পৌঁছেছে ঘাটালের বাসিন্দাদের! মাথার ওপর কালো মেঘে ঢাকা আকাশ। পায়ের নিচে থৈ থৈ জল। সদ্যোজাত এক দিনের সন্তানকে কোলে করে বাড়ি ফিরছে সদ্য মা হওয়া ঘাটালের সুখচন্দ্রপুরের তরুণী।

পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছেন তরুণী। কোভিড আবহে সন্তান ও মায়ের স্বাস্থ্যের নিরাপত্তার কথা ভেবে হাসপাতাল আর বাড়তি দিন রাখতে রাজি হয়নি। তাই তড়িঘড়ি ছুটি দিয়ে দেওয়া হয়েছে প্রসূতি ও সদ্যোজাত শিশুকে।

অসুস্থ নড়বড়ে শরীরে সন্তানকে কোলে নিয়েই হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে চোখ কপালে সদ্য মা হওয়া তরুণীর। রাস্তা দেখা যাচ্ছে না। গলা জলে ভাসছে ঘাটাল শহর। জলের তলায় ঘাটাল মেইন রোড। কী করবেন? আর কী করবেন না? বুঝে উঠতে পারছিলেন না প্রথমবার মাতৃত্বের স্বাদ পাওয়া তরুণী।

যে কোন মুহূর্তে আবার আকাশ ভেঙে বৃষ্টি আসবে। সামনে থৈ থৈ করছে গলা জল। অসুস্থ, নড়বড়ে শরীরে সেই জল টপকে সুখচন্দ্রপুরে বাড়ি যাওয়া আর আলাস্কায় ডালটন হাইওয়েতে পাড়ি দেওয়া মধ্যে ঝুঁকির তারতম্য বিশেষ নেই। অথচ বাড়ি ফিরতেই হবে। কোলে এক দিনের বাচ্চা। স্বামী রামচন্দ্র দলুই চেষ্টা করেও পাঁজাকোলা করে স্ত্রীকে তুলতে পারলেন না। অগত‍্যা জলের মধ্যেই সন্তানকে কোলে নিয়ে ঠায় দাঁড়িয়ে থাকল ঘাটালের সুখচন্দ্রপুরের দলুই দম্পতি।

লম্বা অপেক্ষার পর শেষমেষ নৌকা মিলল। দেশি নৌকার অপক্ক মাঝি ও স্বামীর কোলে চেপে কোনও মতে জল পেরিয়ে দেশি নৌকায় চেপে বসলেন সুখচন্দ্রপুরের লীনা। জলমগ্ন শহরের মধ্যে দিয়ে টাল খেতে খেতে এগিয়ে চলল নৌকা। সামনে, পিছনে শুধু জল আর জল। আর তরুণী মায়ের বুকে একরাশ আতঙ্ক। সদ্যোজাত শিশু। রাত-বিরেতে কিছু হলে কী ভাবে জল পেরিয়ে সদ্যজাত সন্তানকে নিয়ে কোথায় দৌড়াবেন! জল-যন্ত্রণায় চোখ দিয়ে জল গড়িয়ে আসে তরুণী মায়ের। প্রথমবার মা হওয়ার খুশি ততক্ষণে নিভে গেছে জল যন্ত্রণার আতঙ্ক আর আশঙ্কার মিলমিশে।

#ParadipGhosh

Published by:Arka Deb
First published:

পরবর্তী খবর