বাঁচাতে হবে পরিবেশ,তাই উদ্যোগ নিয়ে কাজে নামল ‘এই’ সংস্থা

বাঁচাতে হবে পরিবেশ,তাই উদ্যোগ নিয়ে কাজে নামল ‘এই’ সংস্থা
আপনার আনন্দ যেন অন্যের দুঃখের কারণ না হয়...

আপনার আনন্দ যেন অন্যের দুঃখের কারণ না হয়...

  • Share this:

#সিউড়ি: শেষ শীতের কামড়। হয়তো আর সামনের সপ্তাহটাই শেষ বনভোজন হবে সিউড়ির বেশ কয়েকটা এলাকায়। হঠাত করে ঠান্ডা বেড়ে যাওয়াতে পিকনিক পার্টিদের প্ল্যানও পাল্টেছে। তবে শীতকাল মানেই বনভোজনের মরশুম তা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। কিন্তু এই বনভোজনের দরুন ঘটা পরিবেশ দূষণও কিন্তু হয়ে থাকে। সেই সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে এক অভিনব পদক্ষেপ নিল বীরভূমের জেলার অন্যতম স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা পরিবার ওয়েলফেয়ার সোসাইটি।

এই পরিবার ওয়েল ফেয়ার সংস্থার সদস্যরা সিউড়ি সংলগ্ন তসরকাটা জঙ্গলে এই সচেতনতা মূলক কার্যক্রমের আয়োজন করেন। পরিবার ওয়েল ফেয়ার সোসাইটির পক্ষ থেকে সিউড়ির তসরকাটা পিকনিক স্পট পরিষ্কার করা হয়।  পরিবার ওয়েল ফেয়ার সোসাইটির সংস্থার সভাপতি অরিন্দম দে জানিয়েছেন - শুধু সিউড়ি নয়,   আগামী দিনে বীরভূম জেলার বিভিন্ন জায়গায় তাঁরা এই ধরনের কার্যক্রম এর আয়োজন করা হবে। জানা গিয়েছে শীতকালে পিকনিকে আনন্দ নিতে বীরভূমবাসিরা বীরভূমের বিভিন্ন পিকনিক স্পট গুলিতে ভিড় করেন।

তার মধ্যে রয়েছে সিউড়ির তসরকাটা,  সিউড়ির তিলপাড়া ব্যারেজ। তবে আনন্দ সবাই মন খুলে করলেও প্রায় অনেকেই ভাবেন না প্রকৃতির কথা। পিকনিকের পর বিভিন্ন ধরনের প্লাস্টিকের জিনিস,  শোলার থালা পাতা,  শোলার বাটি সহ অন্যান্য জিনিস পত্র। সেগুলো বাতাসে উড়ে গিয়ে নিকাশি ব্যাবস্থায় সমস্যার তৈরী করে। পাশাপাশি ফেলে দেওয়া খাবার পচে গিয়ে দুর্গন্ধ তৈরী হয়,  তাতে আশেপাশের গ্রামবাসিদের অত্যন্ত সমস্যা তৈরী করে। এই ধরনের সমস্যা থেকে গ্রামবাসিদের মুক্তি দিতে উদ্যোগ পরিবার ওয়েল ফেয়ার সোসাইটির। আজও ওই সমস্ত পিকনিক স্পট পরিষ্কার করে প্রচুর পরিমানে প্লাস্টিক ও শোলার বিভিন্ন জিনিসপত্র একত্রিত করে নষ্ট করে দেওয়া হয় সংস্থার পক্ষ থেকে। সংস্থার এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জাবিয়েছেন সিউড়ির বাসিন্দারাও। প্রকৃতিপ্রেমী অনেকেই বলেছেন প্রকৃতির দিকে যে ভাবে এই সংস্থা খেয়াল রেখেছে তাতে সংস্থাকে ধন্যবাদ দিতেই হবে।


Supratim Das

Published by:Debalina Datta
First published: