চাকরিতে বন্ধুর উন্নতি সহ্য করতে না পেরে মাথা থেঁতলে খুন করল যুবক

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Oct 10, 2019 09:42 PM IST
চাকরিতে বন্ধুর উন্নতি সহ্য করতে না পেরে মাথা থেঁতলে খুন করল যুবক
প্রতীকী চিত্র ৷
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Oct 10, 2019 09:42 PM IST

#বর্ধমান: বন্ধুর হাতে যুবক খুনের অভিযোগ ৷ চাকরিতে বন্ধুর উন্নতি সহ্য করতে না পেরেই খুন বলে অনুমান পুলিশের ৷ চাঞ্চল্যকর এই ঘটনা ঘটেছে বর্ধমান শহরের আলমগঞ্জের একটি রাইস মিলে ৷ নিহত যুবকের নাম টুটুল মণ্ডল (১৯) ৷ বাড়ি বীরভূমের সাঁইথিয়ার পাথুরি গ্রাম এলাকায় ৷ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ৷

কিছুদিন আগে উচ্চমাধ্যমিক পাশ করা মেধাবী ছাত্র টুটুল মণ্ডলকে তাঁদেরই গ্রামের বিকাশ চন্দ্র গড়াই বর্ধমানের ওই রাইস মিলে কাজের ব্যবস্থা করে দেন। শ্রমিক হিসাবে কাজে ঢুকলেও শিক্ষিত হওয়ার সুবাদে মিল মালিক পক্ষ তাঁকে শ্রমিক থেকে সুপারভাইজার পদে উন্নীত করেন। আর তারপর থেকেই প্রতিহিংসায় জ্বলতে থাকেন টুটুলের বন্ধু বিকাশ।

টুটুলের আত্মীয় পরিজনরা জানান, নবমীর দিন টুটুল বাড়ি যায়। কিন্তু পরের দিনই বিকাশ তাঁকে মিলে কাজ আছে বলে নিয়ে চলে আসে। টুটুলের এই কাজের ক্ষেত্রে উন্নতির ঘটনায় টুটুলকে প্রায়ই হুমকি দিত বিকাশ ৷ বলত, সে তাঁকে কাজে ঢুকিয়েছে। এখন টুটুল তাকে পাত্তা দিচ্ছে না, অর্ডার করছে। এই হুমকির বিষয়টি টুটুল বাড়িতেও জানিয়েছিল বলে পরিবারের দাবি ৷

বুধবার রাতে বিকাশই তাঁদের ফোন করে জানান, টুটুল গুরুতর অসুস্থ। এই খবর শুনে রাতেই তাঁরা বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চলে আসেন এবং টুটুলের রক্তাক্ত মৃতদেহ শনাক্ত করেন।

টুটুলের মাথার পিছন ভারি লোহার বস্তু দিয়ে থেঁতলে দেওয়া হয়েছে। তাঁর গলায় পেঁচানোর দাগও রয়েছে। নৃশংসভাবে তাঁকে খুন করা হয়েছে।

Loading...

এ ব্যাপারে বর্ধমানের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার প্রিয়ব্রত রায় জানিয়েছেন, খুনের বিষয়টি বিকাশ স্বীকার করেছে। খুন করার পরই বৃহস্পতিবার রাতেই সে বর্ধমান থানায় আত্মসমর্পণের চেষ্টাও করে। কিন্তু ভয় পেয়ে পালিয়ে যায়। যদিও বৃহস্পতিবার সকালে সে নিজে এসেই থানায় আত্মসমর্পণ করে এবং টুটুলকে খুনের কথা স্বীকার করেছে।

First published: 09:42:04 PM Oct 10, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर