• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • FREQUENT ACCIDENTS ARE HAPPENING IN EAST BARDHAMAN DUE TO DRINK AND DRIVE OF SOME TRACK DRIVERS SDG

মদ্যপ চালকদের দৌরাত্ম্য বেড়েই চলেছে! ট্রাক উল্টে ঘটছে দুর্ঘটনা, অভিযানে নামল জেলা পুলিশ

মদ্যপ অবস্থায় থাকছেন গাড়ি চালকরা? সেই অবস্থাতেই কি গাড়ি চালাচ্ছেন তাঁরা? এবার মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালানো আটকাতে অভিযানে নামল পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশ।

মদ্যপ অবস্থায় থাকছেন গাড়ি চালকরা? সেই অবস্থাতেই কি গাড়ি চালাচ্ছেন তাঁরা? এবার মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালানো আটকাতে অভিযানে নামল পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশ।

  • Share this:

#বর্ধমান: মদ্যপ অবস্থায় থাকছেন গাড়ি চালকরা? সেই অবস্থাতেই কি গাড়ি চালাচ্ছেন তাঁরা? এবার মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালানো আটকাতে অভিযানে নামল পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশ। দু'দিন আগেই পূর্ব বর্ধমান জেলার জামালপুরের মুইদিপুরে বালি বোঝাই ট্রাক উল্টে একই পরিবারের তিন জনের মৃত্যু হয়। ওই ট্রাকের চালক মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন বলে অভিযোগ তোলেন এলাকার বাসিন্দারা। সেই অভিযোগের কথা শুনে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন জেলার মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ। এরপরই জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে প্রতিটি থানাকে অভিযানে নামার নির্দেশ দেওয়া হয়। গাড়ি চালকরা, বিশেষ করে বালি বোঝাই ট্রাক চালকরা যাতে মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি না চালায় তা নিশ্চিত করতে পুলিশকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই বালিঘাটগুলিতে গিয়ে সেই নির্দেশের কথা গাড়ি চালক ও ঘাট মালিকদের জানানোর কাজও শুরু করেছে পুলিশ।

পূর্ব বর্ধমান জেলায় দামোদরের বুক থেকে বালি তোলার এখন ভরা মরশুম চলছে। পূর্ব বর্ধমান জেলার গলসি, জামালপুর, মেমারি, খণ্ডঘোষ, রায়না, মাধবডিহি, বর্ধমানের দামোদরের বালিঘাটগুলিতে দিনরাত এক করে বালি তোলার কাজ চলছে। সাধারণত সন্ধ্যা নামার পর থেকে বালি বোঝাই করার কাজ শুরু হয় ট্রাকগুলিতে। গভীর রাতে বালি বোঝাই গন্তব্যের দিকে রওনা দেয়। এখানের বালি রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে যায়। অভিযোগ,মদ্যপ অবস্থায় থাকেন বেশিরভাগ ট্রাক চালক। তার ফলে দুর্ঘটনার আশঙ্কা অনেকটাই বেড়ে যায়।

জেলা পুলিশের এক আধিকারিক জানান, বালিঘাট থেকে মূল রাস্তায় যাওয়ার পথ বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই মসৃণ নয়। সংকীর্ণ বাঁধের রাস্তা দিয়ে অনেক সময় বালির লরি নিয়ে যেতে হয়। সেই সব রাস্তায় পর্যাপ্ত আলো থাকে না। মাটির রাস্তায় চাকা বসে গিয়ে গাড়ি উল্টে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। তাই সতর্কতার সঙ্গে গাড়ি না চালালে পদে পদে বিপদের আশঙ্কা। মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালালে সেই আশঙ্কা অনেকটাই বেড়ে যায়।তাই দুর্ঘটনা এড়াতে মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালানো আটকাতে প্রতিটি থানাকে বাড়তি তৎপর থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

জামালপুরে মুইদিপুরে বালি বোঝাই ট্রাকটি মুণ্ডেশ্বরী নদীর মাধবডিহি ঘাট থেকে বালি তুলে বাঁধ দিয়ে যাচ্ছিল। ওই বাঁধ অনেকটাই সংকীর্ণ। ট্রাকের চাকা একেবারেই বাঁধের প্রান্তে চলে গিয়েছিল। বেশ কিছুটা আগে থেকেই বাঁধের মাটি ভাঙতে শুরু করে। সেখান থেকে দশ-বারো ফুট যাওয়ার পর বালি বোঝাই ট্রাকটি উল্টে বাঁধের নিচের বাড়ির উপর পড়ে যায়। তাতেই চাপা পড়ে মৃত্যু হয় তিনজনের সে সময় চালক মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন বলে অভিযোগ তোলেন এলাকার বাসিন্দারা।সেই ঘটনার জেরে মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালানো বন্ধের ব্যাপারে তৎপরতা বাড়াতে উদ্যোগী হয়েছে পুলিশ।

Saradindu Ghosh

Published by:Shubhagata Dey
First published: