corona virus btn
corona virus btn
Loading

বাজারে উধাও স্যানেটাইজার, বিনামূল্যে হাজার হাজার বিলি করল এই বিশ্ববিদ্যালয়

বাজারে উধাও স্যানেটাইজার, বিনামূল্যে হাজার হাজার বিলি করল এই বিশ্ববিদ্যালয়
পথ দেখাল মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

স্যানিটাইজার তৈরির পাশাপাশি করোনাভাইরাস মোকাবিলায় মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ৫ লক্ষ টাকা অনুদান দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

  • Share this:

স্যানিটাইজার তৈরি করে এবার কার্যত রেকর্ড গড়লো কল্যাণীর মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।  গত কয়েকদিন ধরে ১০ হাজারেরও বেশি স্যানিটাইজার তৈরি করে নজির গড়েছে এই বিশ্ববিদ্যালয়। ইতিমধ্যেই  নদিয়া ও উত্তর ২৪ পরগনার বিভিন্ন জায়গায় এই স্যানিটাইজার বিলি করা হয়েছে। বিশেষত সরকারি অফিস স্বাস্থ্য কেন্দ্র-সহ বাজারগুলিতে বিনামূল্যে বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি করা এই স্যানিটাইজার দেওয়া হয়েছে। মূলত বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইন মেনে এই স্যানিটাইজার বিশ্ববিদ্যালয়ের কল্যাণী ক্যাম্পাসেই তৈরি করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য সৈকত মিত্র জানান "করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে বাজারে স্যানিটাইজার কার্যত নেই বললেই চলে। তাই আমরা এত সংখ্যক স্যানিটাইজার তৈরি করে চেষ্টা করেছি বাজারে জোগান সচল রাখতে।" স্যানিটাইজার তৈরির পাশাপাশি করোনাভাইরাস মোকাবিলায় মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ৫ লক্ষ টাকা অনুদান দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

দেশে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনাভাইরাস এ  আক্রান্তের সংখ্যা। যদিও আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও কেন্দ্রের তরফে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ তৃতীয় স্টেজে পৌঁছায়নি বলেই দাবি স্বাস্থ্যমন্ত্রকের। কম বেশি প্রত্যেকটি রাজ্য থেকেই করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ  রাজ্যেও ক্রমশই বাড়ছে করোনা ভাইরাসে সংক্রমণ হওয়ার ঘটনা। এখনো  পর্যন্ত এ রাজ্য থেকে ২৬জন আক্রান্ত হয়েছেন। সংক্রমিত হয়ে তিনজন মারাও গেছেন। যদিও গত তিন সপ্তাহ ধরেই বিভিন্ন জায়গায় বাজারে কার্যত অমিল স্যানিটাইজার। এই অবস্থায় বিভিন্ন সংস্থা ও বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়গুলির তরফেই বাজারে জোগন সচল রাখার জন্য স্যানিটাইজার তৈরীর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

কিন্তু তারই মধ্যে কার্যত বিপুল সংখ্যক স্যানিটাইজাার তৈরি করে রেকর্ড করে দিল মৌলানা আবুল কালাম প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। গত কয়েকদিন ধরেই বিশেষত নদিয়া এবং  উত্তর ২৪ পরগনার বিভিন্ন জায়গায় স্যানিটাইজার জোগান সচল রাখতে প্রায় ১০ হাজার ২০০ এর মত স্যানিটাইজার তৈরি করে নজির করল এই বিশ্ববিদ্যালয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সৈকত মিত্র আরো জানান "প্রয়োজনে আমরা আরো স্যানিটাইজার তৈরি করতে প্রস্তুত আছি।" অন্য দিকে করোনা সংক্রমণ মোকাবিলায় বিশ্ববিদ্যালয় তরফের বিভিন্নন ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ অধ্যাপকদের আর্থিক অনুদানের আর্জি জানিয়েছেন উপাচার্য।

 সোমরাজ বন্দোপাধ্যায়

First published: March 31, 2020, 2:50 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर