Birbhum: থানায় বসছে 'রং পেন্সিলের পাঠশালা', দুঃস্থ পড়ুয়াদের জন্য পুলিশকর্মীরাই এখন মাস্টারমশাই

বিনামূল্যের কোচিং সেন্টার। অভিনব উদ্যোগ পুলিশকর্মীদের।

বিনামূল্যের কোচিং সেন্টার। অভিনব উদ্যোগ পুলিশকর্মীদের।

  • Share this:

#চন্দ্রপুর:

বীরভূমের চন্দ্রপুর থানায় শুরু হল রং পেন্সিলের পাঠশালা।  চন্দ্রপুর থানার ওসি কস্তুরী মুখোপাধ্যায় চ্যাটার্জির উদ্যোগে গরিব ও দুঃস্থ শিশুদের নিয়ে পথ চলা শুরু হল রং পেন্সিলের পাঠশালার। এই পাঠশালা চলবে চন্দ্রপুর থানা চত্বরেই। শুধুমাত্র পাঠ্যসূচির পড়াশোনায় সীমাবদ্ধ থাকবে না এই পাঠশালা। পাশাপাশি থাকবে শিশুদের জন্য আনন্দদায়ক শিক্ষার ব্যবস্থা। যেমন আবৃত্তি, গান, ছবি আঁকা, নাচ, নাটক,  ছবি আঁকা সহ বিভিন্ন ধরনের শিক্ষামূলক কর্মসূচি থাকবে।

চন্দ্রপুর থানার ওসি কস্তুরী মুখোপাধ্যায় চ্যাটার্জির এই উদ্যোগে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন থানার অন্যান্য পুলিশকর্মী ও সিভিক ভলেন্টিয়াররা। চন্দ্রপুর থানার ওসির এই ধরনের সমাজসেবামূলক কর্মকাণ্ডের জন্য সাধুবাদ জানিয়েছেন এলাকার শুভবুদ্ধি সম্পন্ন মানুষজন। চন্দ্রপুর থানায় শিশুদের জন্য চালু হল বিনা পয়সার কোচিং সেন্টার। কোরোনা যেন এক পলকে থামিয়ে দিয়েছে মানব জাতির গতির চাকা। করোনার জেরে বন্ধ দোকানপাট থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। সবাই এখন বন্দি ঘরে। তাই স্কুল কলেজগুলি প্রথমে একদমই বন্ধ থাকলেও এখন অফলাইন থেকে অনলাইনকেই বেছে নিয়েছে শিক্ষাদানের মাধ্যম হিসাবে। তবে অনলাইনে শিক্ষাদান চললেও বিভিন্ন প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের খুদে পড়ুয়ারা কিন্তু এখনো তেমন সড়গড় নয় এই শিক্ষা ব্যবস্থায়। সেই সকল খুদে পড়ুয়াদের জন্য বীরভূমের চন্দ্রপুর থানার উদ্যোগে  বিনামূল্যের কোচিং সেন্টার শুরু হল।

চন্দ্রপুর লাগোয়া এলাকার গ্রামগুলির দরিদ্র পরিবারের বাচ্চাদের নিয়ে বসছে এই বিনামূল্যের কোচিং সেন্টার। স্বাস্থ্যবিধি মেনেই পাঠক্রমে বসানো হচ্ছে শিশুদের। তাদের পড়াশোনার সঙ্গে শেখানো হচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি মানার নিয়ম। চন্দ্রপুর থানার ওসিসহ বাচ্চাদের পড়াচ্ছেন থানার লেডি কনস্টেবল ও এলাকার কিছু শিক্ষিত যুবক। এই সেন্টারটির নাম রাখা হয়েছে "রং পেন্সিলের পাঠশালা"। প্রাথমিকভাবে প্রথম দিন সেন্টারে আসা পড়ুয়াদের খাতা, বই, রং ইত্যাদি দেওয়া হয়েছে থানার তরফ থেকে। উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন জেলার পুলিশ কর্তারা।

Published by:Suman Majumder
First published: