মোটর সাইকেলে পাখা লাগাতেই কামাল! কম তেল খরচে যাওয়া যাচ্ছে অনেক দূর

মোটর সাইকেলে পাখা লাগাতেই কামাল! কম তেল খরচে যাওয়া যাচ্ছে অনেক দূর

এই স্কুটি নিয়েই আলোচনা বর্ধমান জুড়ে।

পূর্ব বর্ধমানের কালনার পূর্ব সাতগাছিয়ার বাসিন্দা মদন গোপাল গোস্বামী।তিনি সংস্কৃতি জগতের সঙ্গে জড়িত, গান বাজনা নিয়ে থাকেন।তাঁর মোটর সাইকেল এখন কালনা মহকুমা আলোচনার বিষয় হয়ে উঠেছে।

  • Share this:

#কালনা: দিন দিন বাড়ছে পেট্রোল ডিজেলের দাম। লিটার প্রতি দর একশো টাকায় পৌঁছনো যেন সময়ের অপেক্ষা। অনেকে মোটর সাইকেল রেখে বাই- সাইকেলে ফেরার কথা ভাবছেন। অনেকে চারচাকা গাড়ির বদলে গণপরিবহণেই যাতায়াতের কথা ভাবছেন। এই সময় উপস্থিত বুদ্ধি ও প্রযুক্তিতে কাজে লাগিয়ে জ্বালানির সাশ্রয় খুঁজতে কাজ চালাচ্ছেন অনেকেই। তেমনই কালনার এক বাসিন্দা, মোটর সাইকেলের সঙ্গে পাখা জুড়েছেন। এতে নাকি জ্বালানির সাশ্রয় হচ্ছে অনেকটাই, এমনটাই দাবি করেছেন তিনি।

পূর্ব বর্ধমানের কালনার পূর্ব সাতগাছিয়ার বাসিন্দা মদন গোপাল গোস্বামী।তিনি সংস্কৃতি জগতের সঙ্গে জড়িত, গান বাজনা নিয়ে থাকেন।তাঁর  মোটর সাইকেল এখন কালনা মহকুমা আলোচনার বিষয় হয়ে উঠেছে। মোটর সাইকেল নিয়ে বেরোলেই সবার চোখ এখন তাঁর দিকে। কারণ তাঁর মোটর সাইকেলে লাগানো রয়েছে চার চারটি ফ্যান। তাতে নাকি জ্বালানি সাশ্রয় হচ্ছে অনেকটাই।

লকডাউনের সময় অনেকেই গৃহবন্দি অবস্থায় অবসর কাটিয়েছেন। তবে বসে থাকেননি মদন গোপাল গোস্বামী। লকডাউনে গৃহবন্দি থাকাকালীন তিনি জোর দিয়েছিলেন কম জ্বালানিতে মোটর সাইকেলে বেশি দূরত্ব অতিক্রম করার পদ্ধতি আবিষ্কারের পরীক্ষা-নিরীক্ষায়। সে পরীক্ষা চালিয়েছিলেন তিনি নিজের মোটর সাইকেলে। জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে নিজের মোটর সাইকেলটিতে কয়েকটি পাখা জুড়ে দিয়েছেন মদনবাবু। তাতেই কামাল দেখাচ্ছে সেই মোটর সাইকেল।

তাঁর দাবি, এক লিটার তেলে এত দিন পঁয়তাল্লিশ কিলোমিটার মাইলেজ পেতেন তিনি। পাখাগুলি লাগানোর পরে এখন এক লিটার তেলে কুড়ি থেকে পঁচিশ কিলোমিটার বেশি যেতে পারেন। উৎসাহী বাসিন্দারা তাঁর এই আজব গাড়ি দেখতে ভিড় জমাচ্ছেন সর্বত্র। তবে তাঁর এই দাবিকে ফেলে দিতে নারাজ অটোমোবাইল বিশেষজ্ঞরা।

কালনা রাজ স্কুলের অটোমোবাইল শিক্ষক বিশ্বজিৎ মুখোপাধ্যায় জানান, এভাবে অবশ্যই কম তেল খরচ করে বেশি দূরত্ব এগিয়ে চলা সম্ভব। গাড়ি চালাতে গেলে অনেক রেজিস্ট্যান্স পাওয়ার লাগে। তা কমানো গেলে ওয়ার্কলোড কমে। তাতে কম ফুয়েলে বেশি যাত্রা করা অবশ্যই সম্ভব।

Published by:Arka Deb
First published: