অমানবিক বেসরকারি স্কুল, ফি না দেওয়ায় পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হল না খুদে ছাত্রীকে

অমানবিক বেসরকারি স্কুল, ফি না দেওয়ায় পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হল না খুদে ছাত্রীকে

অনিশ্চিত ভবিষ্যত ক্লাস থ্রির পড়ুয়া সিলভি চক্রবর্তীর।

  • Share this:

#হুগলি: অমানবিক বেসরকারী ইংরেজি মাধ্যম স্কুল! ফিজ জমা দিতে না পারায় পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হলো না ছাত্রীকে,বছরের মাঝপথে পড়াশুনা বন্ধে অন্ধকারে ছাত্রীর স্কুলের ভবিষ্যৎ। ফি জমা দিতে না পারায় ছাত্রীকে পরীক্ষায় বসতে না দেওয়ার অভিযোগ। বিতর্কে হুগলির মগরার খেজুরিয়ার বেসরকারি স্কুল।

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী রাইট টু এডুকেশন অ্যাক্টে সবার জন্য শিক্ষার অধিকার রয়েছে। লক্ষ্য ছিল, সবাইকে স্কুলে আনা। তবে মগরার খেজুরিয়ার বেসরকারি স্কুলে সেই বার্তা পৌঁছয়নি। সেজন্যই ফি দিতে না পারায় পরীক্ষা দেওয়া হল না ক্লাস থ্রিয়ের সিলভি চক্রবর্তীর ৷ মাসখানেক হঠাৎ করে নিরুদ্দেশ হয়ে যান সিলভির বাবা। তারপর থেকেই কার্যত দিশেহারা সিলভির মা কাবেরী চক্রবর্তী। বাপের বাড়ির সাহায্যেই সংসার চলে তাঁদের । চলতি বছরের এপ্রিলের পর আর স্কুলে ফি দিতে পারেননি সিলভির মা। তারপরই বারবার স্কুল ছাড়ার জন্য বলা হয়। সোমবার হাফইয়ার্লি পরীক্ষা থাকলেও পরীক্ষায় বসা হল না ক্লাস থ্রিয়ের পড়ুয়া।

স্কুলের অধ্যক্ষ কর্মচারীদের বেতনের সাফাই দিচ্ছেন। স্কুল যে সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত নয়, তাও জানিয়েছেন তিনি। ঘটনার নিন্দায় শিক্ষামহল। তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন অতিরিক্ত জেলাশাসক প্রদীপ আচার্য। এই ঘটনা কেন ঘটল, তা জানতে চাওয়া হয়েছে স্কুলের কাছে। পাশাপাশি ওই পড়ুয়া যদি সরকারি কোনও স্কুলে ভরতি হতে চায়, তাহলে ব্যবস্থা করা হবে। ছোট্ট সিলভির মন খারাপ। যদি স্কুল ছাড়তে হয়। এখানে যে অনেক বন্ধু হয়েছে তার।

First published: 09:32:50 PM Sep 16, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर