গঙ্গায় মরণ ঝাঁপ, মাঝিদের তৎপরতায় প্রাণ বাঁচলো যুবতীর

গঙ্গায় মরণ ঝাঁপ, মাঝিদের তৎপরতায় প্রাণ বাঁচলো যুবতীর
photo: accident

দড়ি, টিউব ছুড়ে দেওয়া হয়, কিন্তু যুবতী ধরতে পারেননি।

  • Share this:

#হুগলি: প্রায় ১০ কিমি জলে ভাসার পর মাঝিদের তৎপরতায় প্রাণে বাঁচলেন যুবতী। সোমবার সকালে চন্দননগর রাণী ঘাট থেকে জগদ্দল যাওয়ার সময় মাঝিরা দেখেন একটি মেয়ে মাঝ গঙ্গা দিয়ে ভেসে যাচ্ছে। প্রথমে সবাই ভাবে মৃতদেহ। হঠাৎ নজরে আসে মেয়েটির হাত পা নড়ছে। সঙ্গে সঙ্গে দড়ি, টিউব ছুড়ে দেওয়া হয়, কিন্তু যুবতী ধরতে পারেননি।

প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই চন্দননগর ঘাট থেকে নৌকা নিয়ে বেরিয়ে চন্দননগর পাতালবাড়ির কাছে গিয়ে মেয়েটিকে ঊদ্ধার করা হয়। ততক্ষণে মেয়েটি নেতিয়ে পড়েছে। তড়িঘড়ি গরম দুধ খাইয়ে তাকে চন্দননগর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। মেয়েটির অবস্থা স্থিতিশীল। বাড়িতে খবর দেওয়া হয়েছে। জানা যায় হালিশহর, হাজিনগরের বছর কুরির সোনালি ভৌমিক বাড়িতে ঝগড়া করে সোমবার ভোরে হালিশহর শ্যামসুন্দর ঘাট থেকে গঙ্গায় ঝাঁপ দেন আত্মহত্যা করবে বলে।
First published: September 9, 2019, 10:38 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर