Home /News /south-bengal /
Fish farming: অনাবৃষ্টির জন্য় নদীতেই পাট জাগ, ভেসে উঠছে মরা মাছ!

Fish farming: অনাবৃষ্টির জন্য় নদীতেই পাট জাগ, ভেসে উঠছে মরা মাছ!

হালিম মন্ডল বলেন, ''প্রচুর মাছ ভেসে উঠছে নদীতে। প্রচুর লোক আসছে মাছে তোলার জন্য। আমিও কিছু মাছ নিয়েছি। তবে নদীতে পাট জাগ দেওয়ার জন্যই এত মাছ মারা যাচ্ছে।''

  • Share this:

#হরিহরপাড়া: অনাবৃষ্টির কারণে নদীতেই পাট জাগ দিতে হচ্ছে চাষীদের। নদীতে ভেসে উঠছে মরা মাছ। কিন্তু নদীতেও জল কম, সেই কারণে পাট জাগ দেওয়ায় মারা যাচ্ছে নদীর মাছ। এমনই সমস্যা দেখা দিয়েছে হরিহরপাড়ার তরতিপুর, সুন্দরপুর, পদ্মনাভপুর, স্বরূপপুর, শিবনগরের ভৈরব নদী ও নওদার জলঙ্গী নদী সংলগ্ন এলাকায়। আর মরা মাছ কুড়াতে ভিড় জমিয়েছে এলাকার ছোট থেকে বড় সকলেই।

এই বছর মুর্শিদাবাদ জেলায় বৃষ্টির পরিমাণ অনেকটাই কম। যার কারণে জলের অভাবে পাট জাগ দিতে সমস্যায় পড়তে হয় পাটচাষীদের। উপায় না থাকায় নদীতেই পাট জাগ দিচ্ছেন চাষীরা।

আরও পড়ুন: 'পার্থ-প্রিয়ার কোটি কোটি, আমাদের হাতে শুকনো রুটি', শ্লোগানে উত্তাল মেদিনীপুর

প্রতিদিনই নদীতে ভেসে উঠছে বড় বড় মরা মাছ। আর সেই মাছ কুড়াতে ভিড় জমাচ্ছেন এলাকার মানুষেরা। এলাকাবাসী টুটুন সেখ বলেন, ''কিছুদিন আগেই আমরা দেখতে পাই নদীতে মাছ ভেসে উঠছে। প্রথমে বুঝতে পারিনি কি কারণে এত মাছ মারা যাচ্ছে। তার পর জানা যায় নদীতে একেই জল কম তার উপর পাট জাগ দেওয়ায় জন্য এই ভাবে শয়ে শয়ে মাছ মারা যাচ্ছে। বড় বড় মাছ প্রতিদিনই নদীতে ভেসে উঠছে। আর সেই মাছ নেওয়ার জন্য বিভিন্ন জায়গা থেকে মানুষেরা ভিড় জমাচ্ছেন।''

পাটচাষী আসরফ মণ্ডল বলেন, ''এই বছর পর্যাপ্ত বৃষ্টি এখনও হয়নি। আমাদের জমিতেই সব পাট শুকিয়ে যাচ্ছে। তাই বাধ্য হয়েই নদীতে পাট জাগ দিয়েছি। কিন্তু পাট জাগ দেওয়ার জন্য এইভাবে নদীর মাছ মারা যাবে বুঝতে পারিনি। একই সমস্যা দেখা দিয়েছে নওদার জলঙ্গী নদীর চাঁদপুর ফেরীঘাট সংলগ্ন এলাকায়। একেই বৃষ্টি না হওয়ায় নদীতে জল কম। তার পর নদীতে পাট জাগ দেওয়ায় নদীতে মারা গিয়েছে প্রচুর পরিমাণে মাছ। মরা মাছ ভেসে উঠছে নদীতে।''

আরও পড়ুন: বন্ধ থাকছে মধ্যমগ্রাম- সোদপুর রোডের সংযোগকারী উড়ালপুল, জানুন বিস্তারিত

এলাকাবাসী আবদুল হালিম মন্ডল বলেন, ''প্রচুর মাছ ভেসে উঠছে নদীতে। প্রচুর লোক আসছে মাছে তোলার জন্য। আমিও কিছু মাছ নিয়েছি। তবে নদীতে পাট জাগ দেওয়ার জন্যই এত মাছ মারা যাচ্ছে।''

Pranab Kumar Banerjee

Published by:Teesta Barman
First published:

Tags: Fish Farming, Fishing

পরবর্তী খবর