• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • West Bengal News: সন্ধ্যা প্রদীপ থেকে আগুন লাগল বাড়িতে, ঝলসে গেল কারা! আউশগ্রামে আতঙ্ক

West Bengal News: সন্ধ্যা প্রদীপ থেকে আগুন লাগল বাড়িতে, ঝলসে গেল কারা! আউশগ্রামে আতঙ্ক

আগুনে ঝলসে গেল বাড়ি

আগুনে ঝলসে গেল বাড়ি

West Bengal News: পূর্ব বর্ধমানের গুসকরার কাছে শিবদা গ্রাম। সেখানকার বাসিন্দা তাপস ঘোষের দোতলা মাটির বাড়িতে হঠাৎই আগুন লেগে যায়।

  • Share this:

#বর্ধমান: সন্ধ্যা  প্রদীপের আগুন থেকে ভস্মীভূত হয়ে গেল বসতবাড়ি। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়াল আউশগ্রামের শিবদা গ্রামে। আগুনে গোটা বাড়িটি পুড়ে ছাড়খাড় হয়ে গিয়েছে। বাড়ির বাসিন্দারা হতাহত না হলেও বাড়িতে বাসা বেঁধে থাকা অনেক পায়রার মৃত্যু হয়েছে। হঠাৎ লাগা আগুনে বাড়ির বাসিন্দারা হতচকিত হয়ে পড়েন। এরপর তাঁরা আগুন নেভানোর কাজে হাত লাগান। প্রতিবেশীরাও সে কাজে সামিল হন। তবে আগুন নেভানো তাঁদের সাধ্যের বাইরে ছিল।

পূর্ব বর্ধমানের গুসকরার কাছে শিবদা গ্রাম। সেখানকার বাসিন্দা তাপস ঘোষের দোতলা মাটির বাড়িতে হঠাৎই আগুন লেগে যায়। স্থানীয়রা তড়িঘড়ি এসে বালতি ও পুকুরে পাম্প লাগিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন। যদিও ততক্ষণে আগুনে পুড়ে গিয়েছে বাড়ির আসবাবপত্র থেকে শুরু করে সমস্ত মালপত্র। তাছাড়া ওই বাড়ির খড়ের চালে বাসা করে থাকা বেশ কিছু পায়রার মৃত্যু হয়েছে। এই অগ্নিসংযোগের ঘটনায় লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলেই দাবি পরিবারের।

আরও পড়ুন: শুভেন্দু অধিকারীর আর্জিতে সাড়া দেবে সুপ্রিম কোর্ট? নন্দীগ্রাম মামলায় তাকিয়ে সব পক্ষ

কীভাবে আগুন লাগল? এলাকার বাসিন্দারা জানিয়েছেন, গ্রাম বাংলায় সন্ধ্যা প্রদীপ জ্বালানোর প্রথা এখনও রয়ে গিয়েছে। তাপস ঘোষের বাড়িতেও নিয়মিত সন্ধ্যা প্রদীপ জ্বালানো হোত। সেই প্রদীপ থেকেই অসতর্কতায় এই আগুন লেগে যায়। পাম্প চালিয়ে বালতি করে জল দিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা হয়। কিন্তু সে সব সত্ত্বেও আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়নি। এর মাঝে সরানো যায়নি মূল্যবান সামগ্রী ও আসবাব পত্র। আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে প্রয়োজনীয় নথী সহ দরকারি অনেক কিছুই।

আরও পড়ুন: ত্রিপুরার ফলে উজ্জীবিত, নতুন সেনাপতিকে দায়িত্বে এনে মাস্টারস্ট্রোক দেবেন মমতা?

বাসিন্দারা বলছেন, এই বাড়ির খড়ের চালে দীর্ঘদিন ধরেই প্রচুর পায়রার বসবাস। আগুনে পুড়ে তাদের অনেকেরই মৃত্যু হয়েছে। সন্ধ্যার পর পায়রা সেভাবে উড়তে পারে না। সে কারণেই তারা দ্রুত অন্যত্র যেতে না পারায় আগুনে তাদের মৃত্যু হয় বলে মনে করা হচ্ছে। আগুনে সব হারিয়ে এখন দিশেহারা পরিবার। আপাতত তাদের অন্যত্র দিন কাটাতে হচ্ছে।

Published by:Suman Biswas
First published: