সহায়ক মূল্যে ধান বিক্রি করতে না পেরে পঞ্চায়েত সমিতির অফিসে তালা ঝোলালো কৃষকরা

সহায়ক মূল্যে ধান বিক্রি করতে না পেরে পঞ্চায়েত সমিতির অফিসে তালা ঝোলালো কৃষকরা
সমবায় সমিতির আধিকারিকদের দীর্ঘক্ষন তালাবন্ধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন তাঁরা

সমবায় সমিতির আধিকারিকদের দীর্ঘক্ষন তালাবন্ধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন তাঁরা

  • Share this:

#বর্ধমান: উৎপাদিত ধান এখনও বিক্রি করতে না পেরে চিন্তায় রাজ্যের শস্য ভান্ডার হিসেবে পরিচিত পূর্ব বর্ধমান জেলার কৃষকরা। অধিকাংশ কৃষকই এখনও সব ধান সহায়ক মূল্যে বিক্রি করে উঠতে পারেননি। কবে সেই ধান বিক্রি হবে তাও বুঝে উঠতে পারছেন না তাঁরা। ফলে কৃষকদের মধ্যে ক্ষোভ বাড়ছে। তেমনই ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ ঘটল পূর্ব বর্ধমান জেলার আউসগ্রামে। সহায়ক মূল্যে ধান বিক্রি না হওয়ায় সমবায় সমিতির অফিসে তালা ঝুলিয়ে দিয়ে বিক্ষোভ দেখালেন কৃষকরা।

কৃষকদের ধান কেনা নিয়ে নানা অনিয়ম করছে সমবায় সমিতি এই অভিযোগ ছিলই। ধান বিক্রি করতে এসে বারবার কৃষকদের ফিরে যেতে হচ্ছে এই অভিযোগ তুলে সমবায় সমিতির দপ্তরে তালা লাগিয়ে দিলেন ক্ষুব্ধ চাষীরা। সমবায় সমিতির আধিকারিকদের দীর্ঘক্ষন তালাবন্ধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন তাঁরা। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রাম এক ব্লকের বিল্বগ্রাম গ্রাম পঞ্চায়েতে।

বিল্লগ্রাম এস কে ইউ এস সমবায় সমিতিতে মঙ্গলবার সহায়ক মূল্যে ধান বিক্রি করতে এসেছিলেন এলাকার বহু কৃষক। সেখানে তাঁরা জানতে পারেন মাত্র কুড়ি জন কৃষকের ধান নেওয়া হবে। কোন কুড়ি জন কৃষকের ধান কেনা হবে তার তালিকা না থাকায় অনিয়ম ও দুর্নীতির গন্ধ পান কৃষকরা। তার পরেই তাঁরা সমবায় সমিতির আধিকারিকদের ঘরে আটকে রেখে বাইরে থেকে তালা দিয়ে দেন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় উত্তেজনা দেখা দেয়।


পরে আউসগ্রাম থানার পুলিশ ও স্থানীয় প্রশাসনের আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে আসেন। তাঁরা কৃষকদের সঙ্গে কথা বলে সমস্যার কথা জানার চেষ্টা করেন। কৃষকরা সহায়ক মূল্যে ধান বিক্রির ব্যবস্থা করার দাবি জানান। কৃষকরা যাতে সহায়ক মূল্য ধান বিক্রি করতে পারেন তা নিশ্চিত করতে প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলা হবে বলে স্থানীয় প্রশাসন আশ্বাস দেয়। কৃষকদের অভিযোগ নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে সহায়ক মূল্যে ধান কিনছে সমবায় সমিতি। তার ফলে তাঁদের সমস্যার মধ্যে পড়তে হচ্ছে।

Published by:Ananya Chakraborty
First published:

লেটেস্ট খবর