Home /News /south-bengal /
বাবা শোধ করতে পারেননি কৃষি ঋণ, মেয়েকে রূপশ্রীর ২৫ হাজার টাকা দিল না ব্যাঙ্ক

বাবা শোধ করতে পারেননি কৃষি ঋণ, মেয়েকে রূপশ্রীর ২৫ হাজার টাকা দিল না ব্যাঙ্ক

২০১৩ সালে শিউলির বাবা ভাগচাষি দিলীপ মালিক ওই ব্যাংক থেকে ২০ হাজার টাকা কৃষি ঋণ নিয়েছিলেন। কিন্তু তার পরই তিনি দুর্ঘটনায় পড়েন।

  • Share this:

Saradindu Ghosh

#জামালপুর: ভাগচাষি বাবা কৃষি ঋণ নিয়েছিলেন সাত বছর আগে। দুর্ঘটনার কারণে সেই ঋণ শোধ করতে পারেননি। তাই রাজ্য সরকারের দেওয়া মেয়ের রূপশ্রী প্রকল্পের টাকা আটকে দিল রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাঙ্ক। শুধু তাই নয় ওই টাকা আনতে গেলে ওই মহিলাকে অপমান করা হয় বলে অভিযোগ। পূর্ব বর্ধমানের জামালপুরের কাড়ালা গ্রামের বাসিন্দা শিউলি মালিক। পয়লা ডিসেম্বর তাঁর বিয়ে হয়। ১২ ফেব্রুয়ারি ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়ার কাড়ালা শাখায় তাঁর রূপশ্রী প্রকল্পের পঁচিশ হাজার টাকা ঢোকে। টাকা ঢোকার খবর পেয়ে তিনি সেই টাকা আনতে যান। তখন তাঁকে সেই টাকা না দিয়ে বাবার টাকা শোধ করতে বলা হয়। বাবাকে ব্যাঙ্ক সঙ্গে করে নিয়ে আসতে বলা হয়। শিউলির অভিযোগ, সরকারি প্রকল্পের টাকা আনতে গিয়ে তাঁকে অসম্মান জনক মন্তব্যও শুনতে হয়। তিনি এ ব্যাপারে জামালপুরের বিডিওর কাছে লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন।

২০১৩ সালে শিউলির বাবা ভাগচাষি দিলীপ মালিক ওই ব্যাংক থেকে ২০ হাজার টাকা কৃষি ঋণ নিয়েছিলেন। কিন্তু তার পরই তিনি দুর্ঘটনায় পড়েন। কাজ করার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলেন। ফলে ঋণ শোধ করতে পারেননি। তিনি বলেন, ‘‘পরবর্তী সময়ে আমি একশো দিনের কাজ করি। সে বাবদ পাওয়া পাঁচ হাজার টাকাও ব্যাঙ্ক থেকে তুলতে পারিনি। মেয়ের বিয়ে দিতে দেনা হয়েছে। পাওনাদাররা আসছে। অথচ টাকা তুলতে পারছি না।’’ এ ব্যাপারে জামালপুরের বিডিও শুভঙ্কর মজুমদার বলেন, ‘‘ওই মহিলার অভিযোগ পেয়েছি। এভাবে সরকারি প্রকল্পের টাকা আটকে রাখা যায় না। কী করনীয় তা জেলার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে জানতে চাইবো।’’ চাপে পড়ে সুর নরম করেছে ব্যাঙ্ক। ব্যাঙ্কের ওই শাখার সহকারি ম্যানেজার মহম্মদ শাহজাহান বলেন, ‘‘আমরা শুধু অনুরোধ করেছিলাম। টাকা আটকে রাখিনি। ওই মহিলা এলেই টাকা দিয়ে দেব।’’

Published by:Simli Raha
First published:

Tags: Agricultural loan, Rupashree project money

পরবর্তী খবর