Home /News /south-bengal /
Farakka School : শিক্ষক-শিক্ষিকার অভাবে এই স্কুলে একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণীতে সপ্তাহে মাত্র ৩ দিন করে ক্লাস

Farakka School : শিক্ষক-শিক্ষিকার অভাবে এই স্কুলে একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণীতে সপ্তাহে মাত্র ৩ দিন করে ক্লাস

স্কুল কর্তৃপক্ষের দাবি শিক্ষক শিক্ষিকার অভাব রয়েছে তবে ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনার কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে

স্কুল কর্তৃপক্ষের দাবি শিক্ষক শিক্ষিকার অভাব রয়েছে তবে ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনার কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে

Farakka School : স্কুল কর্তৃপক্ষের দাবি শিক্ষক শিক্ষিকার অভাব রয়েছে তবে ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনার কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ।

  • Share this:

ফরাক্কা : উৎসশ্রী প্রকল্পের সৌজন্যে শিক্ষক-শিক্ষিকার আকাল পড়েছে স্কুলে । এই অবস্থায় বাধ্য হয়ে একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণীতে সপ্তাহে তিনদিন ক্লাসের নোটিশ জারি করল ফরাক্কার অর্জুনপুর উচ্চমাধ্যমিক স্কুল কর্তৃপক্ষ । এর ফলে শিকেয় উঠেছে পঠন পাঠন । এইভাবে ক্লাস চললে সিলেবাস শেষ হবে কী করে তা নিয়ে উৎকণ্ঠায় ছাত্রছাত্রীরা । যদিও স্কুল কর্তৃপক্ষের দাবি শিক্ষক শিক্ষিকার অভাব রয়েছে তবে ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনার কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ।

প্রায় সাড়ে ৮ হাজারের বেশি ছাত্রছাত্রী রয়েছে ফরাক্কার অর্জুনপুর উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয়ে । সকাল ও দুপুর দু’টি শিফটে ক্লাস হয় স্কুলে । আগে শিক্ষক শিক্ষিকার সংখ্যা ছিল ১০৩ জন। কিন্তু উৎসশ্রী প্রকল্পের সৌজন্যে সম্প্রতি ৪৬ জন বদলি হয়েছেন । যার কারণে শিক্ষক-শিক্ষিকার সংকট পড়েছে স্কুলে । সেই কারণে একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণীতে সপ্তাহে তিনদিন করে ক্লাস করানোর নোটিস জারি করেছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। সপ্তাহে তিনদিন ক্লাস হচ্ছে একাদশ শ্রেণীর ও তিনদিন ক্লাস হচ্ছে দ্বাদশ শ্রেণীর। কিন্তু সপ্তাহে মাত্র তিন দিন করে ক্লাস হওয়ায় শিকেয় উঠেছে পঠনপাঠন। পরীক্ষার আগে সিলেবাস শেষ হবে কী করে, এই চিন্তায় উদ্বিগ্ন পড়ুয়ারা৷

আরও পড়ুন : সল্টলেকের সেন্ট্রাল পার্কে হাঁটতে এসে সাতসকালে এ কী বিড়ম্বনা প্রবীণ প্রবীণাদের!

আরও পড়ুন :  ঝুঁকির স্কুলযাত্রা ! নদীতে গলা পর্যন্ত ডুবে গিয়ে সন্তানকে বড় পাত্রে বসিয়ে স্কুলে পৌঁছে দিচ্ছেন অভিভাবকরা, দেখুন ভিডিও

এই পরিস্থিতিতে পড়াশোনা নিয়ে অত্যন্ত অসুবিধার মধ্যে রয়েছে পড়ুয়ারা। একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী মুসকান খাতুন বলে, স্কুলে শিক্ষক শিক্ষিকা না থাকায় আমাদের সপ্তাহে তিনদিন করে ক্লাস হচ্ছে। এইভাবে চলতে থাকলে আমাদের সিলেবাস কী করে শেষ হবে, আমরা পরীক্ষায় পাশ করতে পারব কী করে? স্কুলের স্টাফ কাউন্সিলের সেক্রেটারি দীপায়ন তরফদার বলেন,  ‘‘পর পর ৪৬ জন শিক্ষিক শিক্ষিকা বদলি হয়ে যাওয়ায় শিক্ষক শিক্ষিকার অভাব রয়েছে। একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণীতে পড়ানোর শিক্ষক শিক্ষিকা একেবারেই নেই। তবে ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনায় কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আশা করি খুব দ্রুত স্কুলে শিক্ষক শিক্ষিকা নিয়োগ করা হবে।’’

Published by:Arpita Roy Chowdhury
First published:

Tags: Farakka, School

পরবর্তী খবর