corona virus btn
corona virus btn
Loading

পুলিশ আসতেই সব ফাঁস, শাড়ির ব্যবসার আড়ালে রমরমিযে চলছিল নকল মদ তৈরির কারখানা!

পুলিশ আসতেই সব ফাঁস, শাড়ির ব্যবসার আড়ালে রমরমিযে চলছিল নকল মদ তৈরির কারখানা!

কয়েক মাস আগে বর্ধমান শহর লাগোয়া এলাকায় নকল ঘি ও বেবি ফুড তৈরির কারখানা হদিশ মিলেছিল। এবার কালনা শহরে মিলল নকল মদ তৈরির কারখানা।

  • Share this:

#বর্ধমান:  এবার নকল মদ কারখানার হদিশ পেল আবগারি দপ্তর। বাড়ি ভাড়া নিয়ে চলছিল নকল মদের রমরমা কারবার। প্রচুর মদ ও সরঞ্জামসহ মূল অভিযুক্তকে আটক করেছে পূর্ব বর্ধমান জেলার আবগারি দপ্তর। তার কাছ থেকে প্রচুর নকল দেশী বিদেশি মদ ও মদ তৈরির সরঞ্জাম পাওয়া গিয়েছে। পূর্ব বর্ধমান জেলার কালনা শহরে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

কয়েক মাস আগে বর্ধমান শহর লাগোয়া এলাকায় নকল ঘি ও বেবি ফুড তৈরির কারখানা হদিশ মিলেছিল। এবার কালনা শহরে মিলল নকল মদ তৈরির কারখানা। কালনা শহরের যোগীপাড়ায় একটি বাড়িতে হানা দেয় আফগানি দপ্তরের তদন্তকারী আধিকারিকরা। সেখানেই হরেকৃষ্ণ দাস নামে একজনকে পাকড়াও করে আবগারি দপ্তর। তার কাছ থেকেই নকল দেশি বিদেশি মদ ও সরঞ্জাম বাজেয়াপ্ত করা হয়। এই ঘটনায় তাজ্জব এলাকার বাসিন্দারা। তাঁরা বলছেন, এই এলাকায়় হরেকৃষ্ণ বছর দেড়েক আগে এলেও বিশেষ কারও সঙ্গে তেমন মিশতেন না। শাড়ির ব্যবসা করেন বলে এলাকায় পরিচয় দিয়েছিলেন।কিন্তু তিনি যে গোপনে নকল মদের কারবার ফেঁদে বসেছেন তা ঘুণাক্ষরেও টের পাওয়া যায় নি।

আবগারি দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃত হরেকৃষ্ণ দীর্ঘদিন ধরেই নকল মদ তৈরির সঙ্গে যুক্ত ছিল। এর আগেও সে ধরা পড়ে জেল পর্যন্ত খেটেছিল। তার ওপর গোপনে নজর রেখেছিল আবগারি দপ্তর। দেড় বছর আগে কালনার শহরের যোগীপাড়ার শিমুলতলা কাছে একটি বাড়ি ভাড়া নেয় হরেকৃষ্ণ। শাড়ির ব্যবসা করার কথা বলে সে ঘর ভাড়া নিয়েছিল বলে জানা গিয়েছে। শাড়ির ব্যবসার আড়ালে সে ফের নকল মদ তৈরি করছে বলে গোপন সূত্রে খবর পায় আবগারি দপ্তর। এর পরই তারা সেখানে অভিযান চালিয়ে হরেকৃষ্ণকে হাতেনাতে ধরে ফেলে। সেই সঙ্গে তার ঘর থেকে নকল মদের বোতল ও বিভিন্ন সরঞ্জাম বাজেয়াপ্ত করে আবগারি দপ্তরের আধিকারিকরা।

Saradindu Ghosh

Published by: Elina Datta
First published: September 5, 2020, 1:02 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर