বিজেপিতে গিয়েই মানসিক 'অশান্তি', তৃণমূলেই ফিরতে চান 'প্রভাবশালী' বিধায়ক!

বিজেপিতে গিয়েই মানসিক 'অশান্তি', তৃণমূলেই ফিরতে চান 'প্রভাবশালী' বিধায়ক!

বাচ্চুর মনবদল

সোনালি গুহ, 'মাস্টারমশাই' রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য, জটু লাহিড়িদের সঙ্গেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে গিয়েছিলেন বাচ্চু। হাতে তুলে নিয়েছিলেন পদ্ম-পতাকা। কিন্তু সেই যোগদান মোটেই সুখকর হল না।

  • Share this:

    #দক্ষিণ দিনাজপুর: আগেই বুঝে গিয়েছিলেন এবার তাঁকে টিকিট দেবেন না দলের সর্বময় নেত্রী। যোগাযোগ শুরু করেছিলেন পুরনো 'দাদা' তথা বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের সঙ্গে। তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা প্রকাশের পরই বোঝা যায়, জল্পনা সত্যি, টিকিট পাননি উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দফতরের প্রাক্তন প্রতিমন্ত্রী, দক্ষিণ দিনাজপুরের তপন থেকে দু'বারের বিধায়ক বাচ্চু হাঁসদা। এরপরই সোনালি গুহ, 'মাস্টারমশাই' রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য, জটু লাহিড়িদের সঙ্গেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে গিয়েছিলেন বাচ্চু। হাতে তুলে নিয়েছিলেন পদ্ম-পতাকা। কিন্তু সেই যোগদান মোটেই সুখকর হল না। দিলীপ ঘোষ, মুকুল রায়দের হাত ধরে বিজেপিতে যাওয়ার সাতদিনের মধ্যেই মোহভঙ্গ হয়েছে তাঁর। তাই ফের তৃণমূলে ফিরে আসার ইচ্ছাই তিনি প্রকাশ করেছেন বলে খবর। বিজেপির প্রার্থীতালিকা নিয়ে যখন দিকেদিকে ক্ষোভ দেখাচ্ছেন বিজেপি কর্মীরা, সেখানে বাচ্চু হাঁসদার দল ছাড়ার খবর বিজেপির বিড়ম্বনা বাড়িয়েছে।

    ২০১১ এবং ২০১৬ সাল, পরপর দুবার তপন বিধানসভা কেন্দ্র থেকে জেতেন বাচ্চু। তাঁকে মন্ত্রী করে পুরষ্কারও দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু সম্প্রতি দলবদলের ঠেলা থেকে বাদ যাননি বাচ্চু। নাম লেখান গেরুয়া শিবিরে। কিন্তু সেই যাওয়া মনের মতো হল না। বিজেপিতে যোগ দিলেও স্থানীয় নেতৃত্ব তাঁকে ব্রাত্যই করে রেখেছে বলে খবর। যোগদানের পর দলের কোনও কর্মসূচিতে ডাকাও হয়নি। আর এতেই মানসিক অশান্তিতে ভুগছেন তিনি। সংবাদমাধ্যমের কাছ তিনি বলেন, 'বিজেপিতে যোগদান করার পর আমার সঙ্গে এখানকার কেউ যোগাযোগ করেনি। কোনও কর্মসূচীতেও আমাকে ডাকেনি। তাই মানসিক অশান্তি হচ্ছে।'

    তবে, তিনি জানান, তাঁর সঙ্গে তৃণমূলের রাজ্য ও জেলাস্তরের নেতাদের এখনও যোগাযোগ হয়েছে। বাচ্চুর দাবি, তৃণমূল থেকে তাঁকে ফিরে যাওয়ার আহ্বানও করা হয়েছে। তিনিও তাতে সাড়া দিয়েছেন। তবে, পুরনো দল তাঁকে কতটা সাগ্রহে নেবে, তা নিয়ে সন্দিহান থাকলেও তৃণমূলের জন্য ফের সর্বস্ব দিতে প্রস্তুত তিনি।

    যদিও তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্ব বিষয়টিকে এখনও অতটা সহজ ভাবছেন না। তাঁরা তুলে ধরছেন প্রাক্তন মন্ত্রী তথা বর্তমানে বিজেপিতে যোগ দেওয়া শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের কথা। বিজেপিতে গিয়েও টিকিট পাননি শ্যামাপ্রসাদ। এমনকী সাড়ে তিন কোটি টাকায় বিজেপির টিকিট বিক্রি হচ্ছে বলেও অভিযোগ তাঁর। ফের দলে ফিরতে চেয়ে পুরনো নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করতে দুর্গাপুরের হোটেলেও গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তাঁর ডাকে সাড়াই দেননি নেত্রী। শ্যামাপ্রসাদের ক্ষেত্রে মমতা যে রূপ দেখিয়েছেন, বাচ্চুর ক্ষেত্রে তা হবে কিনা, তা নিয়ে সন্দিহান অনেকেই। তবে, বিজেপিতে গিয়ে 'ভালো' না লাগার পর ফের তৃণমূলের ঝান্ডা ধরতে তিনি যে প্রস্তুত, তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন প্রাক্তন মন্ত্রী।

    Published by:Suman Biswas
    First published: