Elephant in Bankura: খাবারের সন্ধানে গ্রামে ঢুকে পড়ল হাতির দল, তারপর...

বাঁকুড়ায় হাতি

তিনটি দলছুট হাতির (Elephant) আক্রমণে এখন ঘুম ছুটেছে বাঁকুড়ার (Bankura) বড়জোড়া ও বেলিয়াতোড় রেঞ্জের বিস্তীর্ণ এলাকার মানুষের।

  • Share this:

    #বীরভূম: ফের হাতির হানায় (Elephant) ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির ঘটনা ঘটল বাঁকুড়া জেলায়। গতকাল, বৃহস্পতিবার, রাতে আচমকাই একটি দলছুট দাঁতাল বড়জোড়ার জঙ্গল থেকে ঢুকে পড়ে বেলিয়াতোড় (Beliatore) রেঞ্জের বৃন্দাবনপুর বিট এলাকায়। এরপর একের পর এক(Elephant attack in South Bengal village) দোকানের দরজা ও সার্টার ভেঙে লুঠ করে ভেতরে থাকা বিভিন্ন সামগ্রী।

    গত ১৯ আগষ্ট খাবারের সন্ধানে বাঁকুড়ার সোনামুখী এলাকায় হাজির হয় দলমার দাঁতাল দল। পরে দলটি বিভিন্ন ভাগে ভাগ হয়ে বৃন্দাবনপুর রেঞ্জ হয়ে বারোটি হাতি হাজির হয় বড়জোড়া রেঞ্জে (Borojora Range)। এই বারোটি হাতির মধ্যে তিনটি হাতি দলছুট হয়ে পড়ে। এই তিনটি দলছুট হাতির আক্রমণে এখন ঘুম ছুটেছে বাঁকুড়ার বড়জোড়া ও বেলিয়াতোড় রেঞ্জের বিস্তীর্ণ এলাকার মানুষের। আজ, শুক্রবার, ভোরের দিকে একটি দলছুট হাতি আচমকাই হাজির হয় বেলিয়াতোড় রেঞ্জের বৃন্দাবনপুর ও সাগরাকাটা এলাকায়। খাবারের সন্ধানে হাতিটি (Elephant comes to find food) একের পর এক মোট চারটি দোকানে হানা দিয়ে দরজা ও সার্টার ভেঙে দোকানের ভেতর থাকা সামগ্রী খেয়ে চম্পট দেয়।

    আরও পড়ুন Bengal News| Birbhum: নদী বাঁধের ভূমিক্ষয় রোধে নানুরে লাগানো হচ্ছে ভাটিভার ঘাস

    আসা যাওয়ার পথে বিস্তীর্ণ কৃষিজমির ধান মাড়িয়ে নষ্ট করে দেয় হাতিটি (Elephant destroy vegetation)। এলাকার বাসিন্দাদের দাবি বারবার বলা সত্বেও বন দফতরের তরফে হাতি তাড়ানো ও উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ব্যবস্থা করছে না বন দফতর। বন দফতরের দাবি হুলা পার্টির বিপুল পরিমাণ মজুরি বকেয়া থাকায় হুলা পার্টিকে হাতি তাড়ানোর কাজে ব্যবহার করা যাচ্ছে না। তবে ক্ষতিগ্রস্থদের সরকারি নিয়ম অনুযায়ী ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

    Published by:Pooja Basu
    First published: